জাতীয়

যুক্তরাজ্য ভ্রমণের লাল তালিকায় বাংলাদেশ, মুক্তি পেল ভারত

লন্ডন, ০৫ আগস্ট – বাংলাদেশসহ বিশ্বের ৫৯টি দেশকে আন্তর্জাতিক ভ্রমণের ক্ষেত্রে লাল তালিকাভুক্ত করছে যুক্তরাজ্য। একই সঙ্গে এসব দেশে যুক্তরাজ্যের নাগরিকদের ভ্রমণেও বিধি-নিষেধ আরোপ করা হয়েছে। এসব দেশকে করোনাভাইরাস মহামারির প্রকোপ মোকাবিলায় উচ্চ-ঝুঁকিপূর্ণ বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

যুক্তরাজ্যের সরকারি ওয়েবসাইটে বলা হয়, আপনি যদি গত ১০ দিনের মধ্যে লাল তালিকাভুক্ত দেশে থাকেন, তাহলে কোনোভাবেই যুক্তরাজ্য ভ্রমণ করতে পারবেন না। তবে ব্রিটেনের নাগরিক, আইরিশ নাগরিক এবং যুক্তরাজ্যে যাদের বসবাসের অনুমতি আছে তারা লাল তালিকাভুক্ত দেশ থেকে ব্রিটেন ভ্রমণ করতে পারবেন।

বাংলাদেশসহ বিশ্বের ৫৯ দেশ ব্রিটেনের লাল তালিকাভুক্ত হলেও এই তালিকা থেকে রেহাই পেয়েছে ভারত, বাহরাইন, কাতার এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত। লাল থেকে বাদামি তালিকায় ঠাঁই পেয়েছে ওই চার দেশ। এর ফলে এই চার দেশ থেকে কেউ যুক্তরাজ্য ভ্রমণে গেলে তাকে ১১ দিনের হোটেল কোয়ারেন্টাইনের বিল পরিশোধ করতে হবে না।

ব্রিটেনের সরকার সম্প্রতি তাদের ভ্রমণ বিধি-নিষেধে পরিবর্তন এনেছে; যা আগামী রোববার থেকে কার্যকর হবে। যে কারণে যুক্তরাজ্যের হালনাগাদকৃত ভ্রমণ তালিকায় আগামী ৮ আগস্ট থেকে বাদামিতে অন্তর্ভূক্ত হবে ভারত।

দেশটির পরিবহন মন্ত্রী গ্র্যান্ট শ্যাপস বলেছেন, একেবারে কঠিন পরিস্থিতি ছাড়া কোনোভাবেই লাল তালিকাভুক্ত দেশে ভ্রমণ করা যাবে না।

করোনাভাইরাসের উদ্বেগজনক ভ্যারিয়েন্ট ডেল্টা শনাক্ত হওয়ায় এবং মহামারির প্রকোপ বৃদ্ধি পাওয়ায় ব্রিটেনের ভ্রমণের লাল তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশি পর্যটকদের জন্য বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইনের নির্দেশও দিয়েছে দেশটি। বাংলাদেশসহ লাল তালিকাভুক্ত ৫৯ দেশের নাগরিকরা যুক্তরাজ্যে ভ্রমণে গেলে, সেখানে পৌঁছানোর পর নির্দিষ্ট কিছু হোটেলে বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টাইন পালন করতে হবে।

তবে কেউ যদি নির্ধারিত হোটেলে কোয়ারেন্টাইন পালনে ব্যর্থ হন তাহলে তাকে ১০ হাজার ইউরো (বাংলাদেশি প্রায় ১০ লাখ ৪ হাজার ২২ টাকা) জরিমানা গুনতে হবে। হোটেল কোয়ারেন্টাইনের খরচও ভ্রমণকারীদের মেটাতে হবে। ১০ দিন এবং ১১ রাতের হোটেল কোয়ারেন্টাইনের ক্ষেত্রে মাথাপিছু ১৭৫০ ইউরো করে খরচ হবে বলে জানা গেছে।

সূত্র: আরটিভি
এম ইউ/০৫ আগস্ট ২০২১

Back to top button