মধ্যপ্রাচ্য

সেনা মোতায়েন করে কঠোর লকডাউন চাইলেন ইরানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী

তেহরান, ০২ আগস্ট – ইরানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী সাইদ নামাকি দেশটিতে সেনা মোতায়েন করে দুই সপ্তাহের জন্য কঠোর লকডাউন জারি করার অনুরোধ জানিয়েছেন।

ইরানে হঠাৎ করে করোনা সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় তিনি দেশটির শীর্ষ নেতা আলি খামেনির কাছে বৃহস্পতিবার লেখা এক চিঠিতে এ অনুরোধ জানান। রোববার ইরানের বিভিন্ন গণমাধ্যমে এ চিঠির খবর ব্যাপকভাবে প্রচারিত হয়।

চিঠিতে তিনি লিখেছেন, ‘চাপ খুবই বেশি। আমি আতঙ্কিত যে এ পরিকল্পনাও কাজে না আসতে পারে যতক্ষণ না আমরা অসুস্থতার অধিক চাপ কমিয়ে আনতে পারছি।’

তিনি আরও লিখেছেন, দেশটিতে করোনার পঞ্চম ঢেউয়ের ধাক্কা লেগেছে। ডেল্টা ভ্যারিয়েন্টের কারণে এবারের ধাক্কা আগের চাইতে আরও বেশি ‘সর্বনাশা’ এবং ‘অপরিবর্তনীয়’। দেশে যদিও হাসপাতালের সংকট না দেখা দেয়, তবে স্বাস্থ্যকর্মী সংকট দেখা দেবে।

এর আগে গত সপ্তাহে দেশটির ৬৫টি মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় এবং অনুষদের প্রধানরা বিদায়ী প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির কাছে একটি চিঠিতে লকডাউন আরোপ করার আহ্বান জানান।

দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৩৯ লাখের বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে অন্তত ৯১ হাজার মানুষের মৃত্যু হয়েছে।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, রোববার সেখানে ৩৬৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। যা এক সপ্তাহ আগের তুলনায় ৩৮ শতাংশ বেশি।

ধারণা করা হচ্ছে দেশটির নতুন প্রেসিডেন্ট ইবরাহিম রাইস দায়িত্ব গ্রহণ করলে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর পদ থেকে মি. সাইদকে সরিয়ে দেয়া হবে। তবে তিনি তার আগে এ আহ্বান জানিয়ে গেলেন।

এর আগে গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে করোনার সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর দেশটিতে কয়েক দফায় লকডাউন এবং শাটডাউন আরোপ করা হয়েছে। তবে এর প্রায় সবগুলোই ঢিলেঢালাভাবে পালিত হয়েছে। রাজধানী তেহরান এবং পার্শ্ববর্তী আলবোর্জ শহরে জুলাইয়ের শেষে ৬ দিনের লকডাউন ঘোষণা করা হয়। তবে এতে খুব কম ব্যবসা প্রতিষ্ঠানই বন্ধ ছিল। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর দুর্বল তৎপরতার কারণে জনগণের চলাচলও সেভাবে সীমিত করা যায়নি।

সূত্র : জাগো নিউজ
এম এউ, ০২ আগস্ট

Back to top button