Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

নভেরাকে আমরা জীবন্ত কবর দিয়েছি

নভেরাকে আমরা জীবন্ত কবর দিয়েছি
নভেরাকে আমরা আক্ষরিক অর্থে আবর্জনার স্তূপে নিক্ষেপ করেছি। এই প্রথম বাক্যের কাজটার কারণ উদ্ধার করতে হলে প্রায় ৩৮ বছর পেছনে ফিরে যেতে হয়। আমরা তখন নবীন যুবা। আমরা তখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা ভবনে। আর কী চাই! আমরা প্রাচ্যের অক্সফোর্ডখ্যাত এ দেশের সবচেয়ে নামি বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্মান শ্রেণির ছাত্র। তরুণ জীবনযাপনে আরো বেশি শিহরণ। আমরা অনেকেই ব্যাক-বেঞ্চার হলাম না। একেবারে দালানের পেছনেই চলে গেলাম।  বিশ্ববিদ্যালয়ের মূল গ্রন্থাগারের পেছনে তখন ঘোর-ঘোরাল আড্ডা। কেউ কথা বলত প্রচুর, আর সেই সঙ্গে টানত সিগারেট আর চা। কেউ শুধু কথা আর কথা। কেউ বা শুধু উন্নততর ভেষজ নেশা আর নীরবতা। কেউ বা আবার ট্যাবলেট খেয়ে যাপন করত নীরবতা আর নীরবতা। অদূরে পাণ্ডুলিপি ভর্তি গোল দালানের বাইরের দেয়ালে আরো ঘনিষ্ঠ হওয়ার সুযোগ। সেখানে দেয়ালে দেহ ঠেসে দিয়ে তাদের প্রেম। বিশ্ববিদ্যালয়ের জীবনের নবীন মৌসুমি হাওয়ায় তাদের হৃদয়ে তখন আবেগের জোয়ার এসেছে। তারা দেহের উষ্ণতা বিনিময় করে নিজেদের বুঝছে তখন।  একটু দূরেই দুই দালানের মধ্যে দাঁড়িয়েছিল পাথুরে মানুষ। তাদের অঙ্গ-প্রত্যঙ্গ বৃক্ষের মতো শাখা-প্রশাখাময় দেয়ালের পলেস্তারা, ভাঙা ইট আর সুরকির দামে কারো বা দেহ খানিকটা ঢেকে আছে। বড় বড় মানকচুর গাছ ছিল। গাছের নিচে বসে ছিল এক নারী। শাড়িটায় খানিকটা মাথা ঢেকে দুই পা ভাঁজ…

মহারাজা তোমারে সেলাম, পেলাম কি?

মহারাজা তোমারে সেলাম, পেলাম কি?
সোশ্যাল মিডিয়ায় লাখো জন্মদিনের উইশ কি দেখতেন সত্যজিৎ রায়? যদি এই ৯৪ বছর বয়সে সশরীরে তিনি থাকতেন! অনুমান করা যায়, দেখতেন৷ হয়তো মন দিয়েই দেখতেন৷ সময়ের নাড়ি হয়তো ছেড়ে দিতেন না৷ কিন্তু এ তো পুরোপুরি কাল্পনিক প্রসঙ্গ৷ বরং ভাবনাটা উল্টোদিক থেকে ভাবলে কেমন হয়? অর্থাৎ, যে বিপুল সংখ্যক মানুষ সত্যজিতকে তাঁর ৯৩ তম জন্মদিনে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছবি দিয়ে জন্মদিনে শুভেচ্ছাবার্তা…

মীজান চাচা

মীজান চাচা
২০০৭ সালের নভেম্বরে ডঃ মীজান রহমানের সাথে আমার প্রথম দেখা। জেলহত্যা দিবস উদযাপন উপলক্ষে তাজউদ্দীন আহমদ ফাউন্ডেশনের আমন্ত্রনে  মন্ট্রিয়লে আগমন এবং সেখানেই পরিচয় ছোটখাট অবয়বের এই বিশাল মাপের মানুষটির সাথে। তাঁর বিশালত্ব এখানেই  যে তিনি তাঁর বুদ্ধিবৃত্তির চর্চায় সদা নিমগ্ন থেকেছেন সত্য ও সুন্দরকে ধারনের জন্যে। শিক্ষা –দীক্ষা এবং লেখনীর জগতে তিনি ব্যাপক খ্যাতি  লাভ করেছেন…

লেখক মীজান রহমানের খোঁজে

লেখক মীজান রহমানের খোঁজে
আজ থেকে প্রায় ৩০/৩৫ বছর আগে কানাডার টরন্টো থেকে প্রকাশিত সাপ্তাহিক ‘দেশেবিদেশে’ (সম্পাদক নজরুল মিন্টো) পত্রিকাটি আমার কাছে আসতো। মধ্যবর্তী পাতায় একটি রচনা আমাকে খুবই মুগ্ধ করতো, এর লেখার ভঙ্গিটি বিষয়বস্তু স্পষ্টতা, দৃষ্টিভঙ্গী ও নির্ভীকতায় আমি একটি নতুন অনুভূতি পেতাম প্রতি সপ্তাহে। লেখক মীজান রহমান।…

পিঠাবীজ


	পিঠাবীজ
গরমের ছুটিতে কনকপুর, নানীবাড়ি নলদাড়িয়া এসেছি। মাইলকে মাইল আইলকাটা মাটির সড়কে। রিক্সা থামার আগেই নেমে দেখি দিঘী, তেতুল গাছ, ধান ক্ষেত, মন্দির সবই লাফাচ্ছে। ক্ষেতের পাশ দিয়ে ভেল্লার গাছের সারি। ডগমগে ডগা ভাঙলেই দুধের মত কষ গড়িয়ে পড়বে। এই বনৌষধিই আমার ট্রিটমেন্ট। সোনামামার কাঁধে করে এসে আমার মুখে…

পুরনো সেই দিনের কথা


	পুরনো সেই দিনের কথা
রবীন্দ্রনাথের জীবদ্দশায় বহু বিশিষ্ট মানুষের পুত্র-কন্যা তাঁর শান্তিনিকেতন বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী হয়ে এসেছিলেন। বিগত শতকের তিনের দশকে শিক্ষার্থী হয়েছিলেন ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওয়াহেরলাল নেহরুর কন্যা ইন্দিরা নেহরু (গান্ধী)। পরবর্তীকালে তিনিও ভারতের প্রধানমন্ত্রীর পদ অলঙ্কৃত করেন। ছাত্রী…

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে