Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

হায়াৎ মামুদ ও রুশ লেখকদের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাৎ

হায়াৎ মামুদ ও রুশ লেখকদের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাৎ… এমন সুন্দর করে গল্প বলতে আর কোনো লেখক পারেন এই ভাষাতে! মনে হয় গল্প শুনছি বড় ভাইয়ের কাছে, কিংবা ছোট চাচার কাছে, অথবা অকালে বুড়িয়ে না-যাওয়া দাদুর কাছে। গল্প শুনলে মনে হবে, কোনো পণ্ডিতি নেই কথার মধ্যে। কিন্তু অন্তরালের বিষয় হচ্ছে ব্যাপক এবং গুলে-খাওয়া পাণ্ডিত্য না থাকলে কেউ এভাবে গল্প বলতে পারেন না। জন্মভূমি ছাড়াও তিনি দীর্ঘদিন কাটিয়েছেন অধূনালুপ্ত সমাজতান্ত্রিক সোভিয়েত ইউনিয়নে। বাস করেছেন পুঁজিবাদের শিখরস্থান মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এবং কানাডায়। কিন্তু জিজ্ঞাসিত হওয়ামাত্র তিনি নির্দ্বিধায় বলেন— মস্কোর জীবন ছিল পাশ্চাত্যের তুলনায় অনেক ভালো, অনেক সুন্দর, অনেক স্বস্তির, অনেক আনন্দের। কারণটা কী? এই রচনালেখকের ধারণা, অনেকের মধ্যে প্রধান একটি হচ্ছে, তিনি মস্কোতে ছিলেন আলেকজান্ডার পুশকিন, তলস্তয়, দস্তয়ভস্কি থেকে শুরু করে মিখাইল শলোখফ, আন্না আখমাতোভা কিংবা রাসুল গামজাতভের বসবাসসঙ্গী। রুশসাহিত্যে প্রতিভার যে মিছিল এসেছে, তা পৃথিবীর অন্য ভাষায় খুঁজে পাওয়া যাবে না। কোনো ভাষাতে কোনো দেশে একসঙ্গে এতজন আকাশছোঁয়া প্রতিভাবান লেখক-কবি জীবন যাপন এবং রচনামগ্ন ছিলেন—ভাবতেই শিহরণ জাগে। সেই তাঁদের সঙ্গে সময় কাটিয়েছেন হায়াৎ মামুদ। দেড়শ বছরের প্রতিভার মিছিলের সঙ্গে। নিজে লেখক তিনি। আর লেখক মানে সবচাইতে মগ্ন পাঠক। পাঠের এমন সুযোগ যে মস্কো…

আমাদের নেক্সট জেনারেশনের ঈদ

আমাদের নেক্সট জেনারেশনের ঈদ
আমাদের পরের জেনারেশনও আর ছোট নেই। তারাও দিব্যি বড় হয়ে গেছে। বেশির ভাগই পিএচইডি করে ফেলেছে বা করছে। আমি বলি পিএইচডি জেনারেশন। বেশির ভাগই বিদেশে। এমন না যে আমরা ঠেলে ঠুলে তাদের বিদেশে পাঠিয়েছি। তারা নিজেরা নিজেরাই দিব্যি পড়াশুনা করতে এখন বিদেশে। আমার নিজের মেয়েটার কথাই বলি। একদিন সে এসে গম্ভীর মুখে জানালো ‘ বাবা আমি এমএস করতে সাউথ ক্যারোলিনা যাচ্ছি। ক্লেমসন ইউনিভার্সিটি আমাকে…

ঘর পালানো প্রিয় কবি

ঘর পালানো প্রিয় কবি
১. বলা হয়, তিনি ছিলেন আজন্ম বোহেমিয়ান, যে ধারণার সঙ্গে আমি সম্পূর্ণ একমত নই, যদিও আমরা জেনেছি বেলাল চৌধুরী নামের একজন উড়নচণ্ডী লোক কলকাতায় পালিয়ে গেছেন, যিনি নাকি জাহাজের খালাসির কাজ থেকে কুমিরের চামড়া বিক্রির ব্যবসা পর্যন্ত করেছেন। একজন কবি ও সাংবাদিকরূপে কলকাতায় খুব নামডাক হয়েছে এবং কলকাতার খ্যাতিমান কবি সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়ের খুব কাছাকাছি একজন মানুষ হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত…

প্রিয় শওকত আলী

প্রিয় শওকত আলী
শওকত আলী প্রয়াত হয়েছেন! এই সত্য যতবার মনে আসছে, অন্ধকার হয়ে যাচ্ছে ভেতর-বাহির! জানি তো, মৃত্যুই মনুষ্যজীবনের শেষ গন্তব্য! অমোঘ, অবধারিত! তবুও প্রাণ অসাড় হয়ে যেতে চাচ্ছে, থেকে থেকে! এদিকে আজকাল বেশ ক'দিন হয়, একটা কঠিন মতো কী জানি জিনিস- আমার ভেতরে বসত নিয়ে, আমাকেই খুব রূঢ়ভাবেই নিয়ন্ত্রণ করা শুরু করেছে! বেহিসাব,…

অসামান্য কথাকার

অসামান্য কথাকার
শওকত আলীর সাথে আমার শেষ দেখা হয়েছে বছর চারেক আগে। একটি দৈনিক পত্রিকা আয়োজিত ঘরোয়া এক আয়োজনে সেদিন তার সাথে আমার দেখা হয়েছিল প্রায় বছর দশেক পরে। দেখলাম রুগ্‌ণ হয়ে গেছেন। অসুস্থ, বোঝাই গেল। এর আগেও শুনেছিলাম তিনি দীর্ঘদিন ধরে নানা রকম অসুখে ভুগছিলেন। যার জন্য লেখালেখি ঠিক করতে পারছেন না। সেদিন বেশি কথাবার্তা…

সেইসব দিন, সেইসব মানুষেরা

সেইসব দিন, সেইসব মানুষেরা
রাতের দিকে কার্জন হলের সামনে গেলে এখনও আমার মাঝে মাঝে মনে হয়...ওই যে দোতলার বারান্দা দিয়ে হাঁটতে হাঁটতে গাছের পাতায় যিনি ঢেকে গেলেন, তাঁর ওয়েলিংটন বুট বা বাদামি উইগের সাথে কালো কোটের প্রান্ত ঝুলছে। ভাইসরয়ের পোশাকটা সদ্য জাহাজে করে এসেছে বাক্সবন্দী হয়ে। তিনি আড়াল হতেই যে কাঁচের জানালাটা বাতাসে সরে গেল, ওটা…

আঁকার বন্ধু, লেখার বন্ধু

আঁকার বন্ধু, লেখার বন্ধু
গতকাল ছিল কাইয়ুম চৌধুরীর মৃত্যুবার্ষিকী। শিল্পী গত হওয়ার পর তাঁর প্রথম জন্মদিন উদ্‌যাপিত হয় ২০১৫ সালে। এ উপলক্ষে জাতীয় জাদুঘরে তাঁর প্রচ্ছদ ও অলংকরণের একটি প্রদর্শনী হয়েছিল। তার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সব্যসাচী লেখক সৈয়দ শামসুল হক মেলে ধরেছিলেন শিল্পীর সঙ্গে তাঁর দীর্ঘ বন্ধুত্বের খেরোখাতা আমার বন্ধু…

হুমায়ূন আহমেদের ১৯টি গুরুত্বপূর্ণ উক্তি

হুমায়ূন আহমেদের ১৯টি গুরুত্বপূর্ণ উক্তি
বাংলা সাহিত্যের জননন্দিত লেখক হুমায়ূন আহমেদের ৬৮তম জন্মদিন আজ। ১৯৭২ সালে প্রকাশিত প্রথম উপন্যাস 'নন্দিত নরকে' দিয়েই হুমায়ূন আহমেদ কথাসাহিত্যে পালাবদলের তাৎপর্যপূর্ণ ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। একের পর জনপ্রিয় উপন্যাস রচনা করে গেছেন। তাঁর বিভিন্ন উপন্যাসে জনপ্রিয় হয়ে যাওয়া উক্তিগুলো পাঠকদের উদ্দেশ্যে তুলে…

‘অসুখী’ জাতির ‘সুখী’ হুমায়ূনের গল্প

‘অসুখী’ জাতির ‘সুখী’ হুমায়ূনের গল্প
বাংলাদেশের ছোটগল্পের ইতিহাস পর্যালোচনা করলে দেখা যায়, ষাটের দশকের গল্পে যে বাঁক উপস্থিত হয়েছিল তা পুরোপুরি বদলে দিলেন সত্তরের দশকের কয়েকজন ছোটগল্পকার। তাঁদের প্রবণতার অন্যতম- ভাষাকে সহজ-সাবলীলরূপে উপস্থাপন। ভাষার সাবলীলতা কী? এ নিয়ে নানা বিতর্ক থাকলেও বলা যায়, এ ক্ষেত্রে ভাষিক সহজতা মানে, ছোট, সরল বাক্যের…

হুমায়ুনের গানে জল-জোছনার মাতম

হুমায়ুনের গানে জল-জোছনার মাতম
একবার হুমায়ুন আহমেদের সঙ্গে অভিমান করে স্ত্রী মেহের আফরোজ শাওন চলে গিয়েছিলেন বাপের বাড়ি। কেননা শাওনকে নিয়ে তিনি সাগর-পাহাড়ে বেড়াতে যাওয়ার সময়-সুযোগ বের করতে পারছিলেন না। বউ বাপের বাড়ি চলে গেলে কী হয়? স্বামী তাকে সরি টরি বলে ফেরত নিয়ে আসে। অন্য স্বামীরা যা করে, হুমায়ুন হাঁটলেন না সে পথে। একটু কৌশল অবলম্বন…

'সে বড় অদ্ভুত সময় ছিল'

'সে বড় অদ্ভুত সময় ছিল'
বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে লেখা যেসব গল্প ও উপন্যাস বিষয় ও শিল্পের দ্বিবিধ বিচারে উত্তীর্ণ হয়েছে, সেগুলোতে লেখকের সততার সঙ্গে যুক্ত হয়েছে তার তীক্ষষ্ট অন্তর্দৃষ্টি এবং এই বিশাল গৌরবের ঘটনাটি একটি যথাযথ শিল্প কাঠামোয় দাঁড় করানোর প্রয়াস। সৈয়দ শামসুল হক তার 'দ্বিতীয় দিনের কাহিনী'তে একটি নিরীক্ষাধর্মী…

প্রচলিত ধারণা ভেঙে দেন সেলিনা হোসেন

প্রচলিত ধারণা ভেঙে দেন সেলিনা হোসেন
‘হাঙর নদী গ্রেনেড’ ও ‘পোকামাকড়ের ঘর বসতি’ উপন্যাসের লেখক সেলিনা হোসেন সুখ্যাত দুই দেশেই। বাংলাদেশ ও ভারত দুই দেশেই তাঁর পাঠক। তাঁর সঙ্গে দেখা হয়েছিল কলকাতায় দেশভাগ নিয়ে এক সেমিনারে। আমি তাঁর পাঠক। পড়েছি তাঁর অনেক গল্প। মেয়েদের যুদ্ধের কথা মেয়েদের চেয়ে বেশি কে বলতে পারে? সেলিনা হোসেন তাঁর গল্পে বাংলাদেশের…

 1 2 3 >  শেষ ›
Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে