Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

'আমার জীবন' ও রাসসুন্দরী দেবী

'আমার জীবন' ও রাসসুন্দরী দেবী
নারীকে লেখাপড়া শেখানোর প্রয়োজন বাঙালিরা খুব বেশিদিন ধরে অনুভব করেনি। সচেতনভাবে নারীকে শিক্ষিত করে তোলার প্রয়াস দেখা যায় উনিশ শতকে অনেকটা পুরুষের প্রয়োজনেই। সে সময় শিক্ষিত তরুণদের পক্ষে অশিক্ষিত স্ত্রী নিয়ে সংসার করা অসম্ভব হয়ে পড়েছিল। ফলে নারী শিক্ষার জন্য তৈরি হয়েছিল বেথুন স্কুল। এর আগে যেসব নারী লেখাপড়া শিখতেন, তাদের বেশির ভাগেরই মূল উদ্দেশ্য ছিল ধর্মগ্রন্থ পাঠ কিংবা জমিদারি দেখাশোনা। ধর্মগ্রন্থ পাঠের প্রয়োজনেই রাসসুন্দরী দেবী নিজে নিজে লেখাপড়া শিখেছিলেন। 'আমার জীবন' নামে দুই খণ্ডের একটি আত্মজীবনী রচনা করেছিলেন, যা বাংলা ভাষায় প্রকাশিত প্রথম আত্মজীবনী। পাবনার পোতাজিয়া গ্রামে জন্মগ্রহণকারী স্বশিক্ষিত এক নারী কীভাবে আত্মজীবনী রচনার প্রয়োজন অনুভব করেছিলেন, তা সত্যিই বিস্ময়কর। ১২১৬ বঙ্গাব্দের চৈত্র মাসে রাসসুন্দরী দেবীর জন্ম। তৎকালীন রক্ষণশীল পরিবারে বেড়ে ওঠেননি তিনি। বাংলা স্কুল তাদের বাড়িতেই ছিল। সেখানে এক মেমসাহেবের কাছে গ্রামের সবাই পড়া শিখত। সকাল-সন্ধ্যা পাঠশালাতেই থাকতেন। ছেলেরা মাটিতে দাগ কেটে কেটে পড়া শিখত। মেয়েদের লেখাপড়া শেখানোর প্রচলন তখনও হয়নি। ছেলেদের পড়া দেখতে দেখতে রাসসুন্দরী দেবীও মনে মনে পড়া শিখে ফেললেন। পার্সি শেখার প্রচলন থাকায় তা-ও শেখা হয়ে গেল। দুর্ভাগ্যক্রমে বাড়িতে আগুন লেগে স্কুলটি…

আমাদের শহরে স্বাগতম

আমাদের শহরে স্বাগতম
আম্মার চোখে পানি, আব্বার চোখেমুখে গাঢ় উদ্বেগ মনে পড়ে। মনে পড়ে রবি ময়রার সন্দেশ, ইলিশ ভাজা, শেভ্রোলে ট্যাক্সি আর দর্পচূর্ণ। কবে কীভাবে ঢাকায় এসেছিলাম, পেছনে তাকালে সার বেঁধে এক এক করে এগুলো মনে পড়ে যায়। প্রথম ঢাকায় এসেছিলাম ১৯৭০ সালে। আসা মানে সিদ্ধান্ত, রওনা আর পৌঁছানো- এমন সাদামাটা ঘটনা নয়। আসার পেছনে ছিল তুলকালাম কাণ্ড। লেখাপড়ায় মন ছিল না। ছবি আঁকতে ভালো লাগত। তখন ছবি আঁকতে রঙতুলি…

পাখির উড়ে যাওয়া

পাখির উড়ে যাওয়া
২৪ এপ্রিল ২০১৮। তিনি এক নতুন ভ্রমণে নামলেন। সেই ভ্রমণের দিশা এ প্রান্তের কারও জানা নেই। তবু সবাই তাকিয়ে আছে দূরবর্তী কোনো বিন্দুর দিকে, যা শুধু কুহকই সৃষ্টি করে। গমনের মুহূর্তে হয়তো বা উচ্চারিত হয়, চললাম। অনন্তের সেই পথে যাত্রা শুরু করলেন কবি বেলাল চৌধুরী। অদৃশ্য, অনির্দিষ্ট, অলৌকিক সে ভ্রমণের শুরুতে যে নিশ্বাসের পতন, তা কি পঞ্চভূতে অন্য কোনো অন্বেষণ? শুরু যেখান থেকেই হোক, আমি তো…

রবীন্দ্রনাথের তিন নারী : অপর্ণা, সুদর্শনা ও নন্দিনী

রবীন্দ্রনাথের তিন নারী : অপর্ণা, সুদর্শনা ও নন্দিনী
ভ্রূণাবস্থা থেকেই নারীজাতির সঙ্গে আমাদের নাড়ির যোগ। কখনো মা, কখনো ভগিনী, কখনো প্রেয়সী, কখনো-বা সহধর্মিণীরূপে তাঁরা ধরা দিয়েছেন। কবির লেখনীর প্রেরণা হয়ে উঠেছেন। আবার সভ্যতার দ্রোহকালে নিজেই স্বহস্তে তুলে নিয়েছেন আয়ুধ। দেবতাকুল যখন মহিষাসুর বিনাশে ব্যর্থ হয়েছেন, তখনই আবির্ভূত হয়েছেন মা দুর্গা। এরপর থেকেই…

নিভৃত যতনে জেনো...

নিভৃত যতনে জেনো...
এক. যে মুহূর্তগুলো চলে যায়, সেগুলো একেকটি হারিয়ে যাওয়া স্বর্ণমুদ্রার মতো আপন ঐশ্বর্যে অদৃশ্য হয়ে পড়ে। তারা ফিরবে না কোনোদিন আর দৃশ্যপটে। হাতের মুঠোয় পাবো না তাদের আহদ্মাদে, ভালোবাসায় ফিরে। প্রতিটি মানুষের ভেতর তা নিয়ে ফিসফিস থাকে। থাকে কাতরতা।  অমোনি আছে কিছু মানুষের মুখ, প্রতিটি মানুষের কাছে তারা আপন…

ভাস্কর্য-স্থাপনাশিল্পে একাত্তরের বর্বরতা

ভাস্কর্য-স্থাপনাশিল্পে একাত্তরের বর্বরতা
রিপ্রেজেন্টেশন বা প্রতিবর্ণীকরণ শিল্পের গুরুত্বপূর্ণ অংশ। শিল্পী তার অনুভূতিকে আবিস্কার করেন বাস্তব জগতের দৃশ্যাবলি থেকে। দৃশ্যমান আকৃতিটুকু এড়িয়ে গিয়ে নিজস্ব বিশ্বাস আর অনুভূতিকে সঙ্গী করে যে আকৃতি গড়ে ওঠে, তাকে তিনি রূপ দিয়ে থাকেন। গত ২৬ মার্চ ঢাকার সেগুন বাগিচায় বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে প্রদর্শিত…

আমাদের পাখি জীবন

আমাদের পাখি জীবন
ঝিনাই নামের এক নদী, শীতে ভীষণ কাঁপছে। কিছুদিন আগে পানি নেমে গেছে। এখনও চিহ্ন আছে তার। অল্প জলে নেমে মাছ হাতড়ে বেড়াচ্ছি; হাতের আঙুল থেকে মাছ ফসকে যাচ্ছে বারবার। পাড় থেকে নদীর এই জায়গাটা অনেক নিচে। ছায়া পড়ে আছে খুব। এই ছায়ার ছবি দারুণ দেখতে। নদীর ছায়া যে। পাড়ে জানুয়ারির আকাশ থেকে খসে পড়া রোদ্দুর। তা গায়ে মেখে…

এ লেখা লইয়া কী করিব?

এ লেখা লইয়া কী করিব?
জীবন নিয়ে কমলাকান্তের আর্তনাদ/আত্মজিজ্ঞাসার পরিধিটা একটু বিস্তৃত করলে, এবং কমলাকান্তকে এ যুগের একজন লেখক কল্পনা করলে, শিরোনামের প্রশ্নটি একটি যথার্থতা পায়। খারাপ লেখা হলে বাজে কাগজের ঝুড়িতে ফেলুন, বঙ্কিমচন্দ্র বলছেন কমলাকান্তকে, ভালো হলে এ নিয়ে ভাবতে থাকুন—যেমন, কাকে শোনাবেন লেখাটা? কোথায় ছাপাবেন?…

আমার সঙ্গীরা

আমার সঙ্গীরা
পৃথিবীতে মানুষ একাই আসে। চলেও যেতে হয় একাই। কিন্তু যত দিন পৃথিবী থাকে, তত দিন কোনো মানুষই একা থাকতে পারে না। সামান্য পিঁপড়াও দলবল নিয়ে চলে! মানুষ তো কোন ছাড়! তবে মানুষের সঙ্গী যে সব সময় মানুষই হবে, এমন কথা নেই। যেমন- ছেলেবেলায় আমার সঙ্গী ছিল ডাকটিকিট। আমি প্রায় সারাদিন ডাকটিকিট নিয়ে কাটাতাম। নানা দেশের, নানা…

শওকত ওসমানের কথাসাহিত্যে রীতির জগৎ

শওকত ওসমানের কথাসাহিত্যে রীতির জগৎ
প্রত্যেক মানুষ এক একটি স্বতন্ত্র অসিত্মত্ব। মানুষের এই স্বাতন্ত্র্যের দুটি দিক আছে। এর একটি হলো তার বাহ্যিক গড়ন এবং অন্যটি হলো তার জীবনাচরণ। বাহ্যিক গড়নের দিক থেকে একজন মানুষ কতভাবে যে অন্যের থেকে আলাদা তার কোনো হিসাব নেই। মোটা দাগে উলেস্নখ করা যায় তার বর্ণ, উচ্চতা, ওজন, চোখের রং, চুলের রং, গড়ন-সৌষ্ঠব, হাঁটার…

বাংলাদেশের ছোটগল্পে মুক্তিযুদ্ধ

বাংলাদেশের ছোটগল্পে মুক্তিযুদ্ধ
স্বাধীনতা-উত্তর সময়ে বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক ক্ষক্ষত্রে যেমন পরিবর্তন সূচিত হয়েছে তেমনি শিল্প-সাহিত্যও হয়েছে সমৃদ্ধতর। বাংলা ভাষা-সাহিত্যের গতিপথ বাঁকবদল করে অসাম্প্রদায়িক চেতনাকে করেছে ধারণ। বাংলা সাহিত্যের বিভিন্ন শাখায় মুক্তিযুদ্ধের অবিমিশ্র গৌরবগাথা চিত্রিত হয়েছে বহুমাত্রিক ব্যঞ্জনায়। বিষয়…

বাংলার মুখ আমি দেখিয়াছি

বাংলার মুখ আমি দেখিয়াছি
বাংলা ঘড়ির একটা দোকান তৈরি করেছিলেন আমার বাবা। 'বাংলা বিচিত্রা'। বাংলা অক্ষর আর শব্দ বসানো হাত ঘড়ি, টেবিল ঘড়ি ও দেয়াল ঘড়ি বাঙালি মানুষের কাছে থাকবে। তবে কোনো ব্যবসায়িক কর্মকাণ্ডেই বেশিদিন তিনি থাকতে পারতেন না। নতুন করে পরিকল্পনা শুরু করতেন অভিনব নতুন কোনো ব্যবসার। 'বাংলা বিচিত্রা'র রূপও বদলে গেলো। …

 1 2 3 >  শেষ ›
Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে