Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

দাগ

দাগ
চলো, মাটি খুঁড়ে আজ স্মৃতি পুঁতে রাখি। যা কিছু হয়নি বলা, থাক বাকি। সম্পর্কের রক্ত- মাংস- হাড় জংলা ঝোপের দাগে। আবেগের শাবল সামলে রাখি; জমানো যা কিছু আমার ভাগে, দিয়ে যাব সব, মাটি খুঁড়ে শুধু স্মৃতি পুঁতে রাখি।   জেগে থাকা যত হিসেবের ভিড়, কালচে গোলাপেও গন্ধ লুকিয়ে থাকে। বইয়ের তাকে জমে থাকা ধুলো, অস্তিত্বেও তার স্মৃতি জমিয়ে রাখে। কালো জলে আয়না ভেসে ওঠে, শুধু মুখটুকু ফুটিয়ে তোলা বাকি। চলো, দুজনে মিলে আজ মাটি খুঁড়ে স্মৃতি পুঁতে রাখি।

যৌবনে জীবনে তুমি

যৌবনে জীবনে তুমি
তোমারই আভায় নিত্য নবরূপে তোমাকে দেখার আকাঙ্ক্ষার দীপ জেলে হৃদয়ে কৈশর-যৌবনের সারাপথ হেঁটেছি, জীবন আমার একার নয় জেনেছি এবং তোমাতেই সমর্পণ করেছি; রেখেছি একাগ্র দৃষ্টির আলো পথে ফেলে যে পথের ধূলি মেখেছি সর্বাঙ্গে আর কারার নির্মম অন্ধকার উপেক্ষা করেছি মুক্ত বুক সঙনের মুখে পেতেছি নির্ভয়ে শুধু এক অকৃত্রিম বাসনায়। পলাশে বকুলে বিকশিত সোঁদাল মাটির গন্ধে মর্মরিত হলুদ ফুলের স্বচ্ছন্দ সহজ…

সিদরাতুল মুনতাহার বর্ষার ছড়া

সিদরাতুল মুনতাহার বর্ষার ছড়া
বৃষ্টির ছড়া বৃষ্টি শেষে রামধনুতে  সাতটি রঙের খেলা, হীরক কুচি বৃষ্টি ফোঁটায় প্রজাপতির মেলা। উড়ে বেড়ায় ফড়িংরাজা লাফায় পুঁটি মাছ, মাতাল করা সুবাস ছড়ায় কদম কেয়ার গাছ। মেঘের আড়ে মুখটি লুকায় হলদে রবি মামা, কাদার মাঝে পিছলে পড়ে ভেজে খুকুর জামা। **** বর্ষাধারা পুকুর ভাসে ডোবা ভাসে ভাসে গাঁয়ের ঝিল, বজ্রপাতে আঁতকে ওঠা মাছ তুলে নেয় চিল। বর্ষাধারা দেয় ভিজিয়ে নরম সবুজ ঘাস, মনের সুখে সাঁতার কাটে…

রাখালী

রাখালী
এই গাঁয়েতে একটি মেয়ে চুলগুলি তার কালো কালো, মাঝে সোনার মুখটি হাসে আঁধারেতে চাঁদের আলো। রানতে বসে জল আনতে সকল কাজেই হাসি যে তার, এই নিয়ে সে অনেক বারই মায়ের কাছে খেয়েছে মার। সান করিয়া ভিজে চুলে কাঁখে ভরা ঘড়ার ভারে মুখের হাসি দ্বিগুণ ছোটে কোনমতেই থামতে নারে। এই মেয়েটি এমনি ছিল, যাহার সাথেই হত দেখা, তাহার মুখেই…

গৃহত্যাগী জ্যোৎস্না

গৃহত্যাগী জ্যোৎস্না
প্রতি পূর্নিমার মধ্যরাতে একবার আকাশের দিকে তাকাই গৃহত্যাগী হবার মত জ্যোৎস্না কি উঠেছে ? বালিকা ভুলানো জ্যোৎস্না নয়। যে জ্যোৎস্নায় বালিকারা ছাদের রেলিং ধরে ছুটাছুটি করতে করতে বলবে- ও মাগো, কি সুন্দর চাঁদ ! নবদম্পতির জ্যোৎস্নাও নয়। যে জ্যোৎস্না দেখে স্বামী গাঢ় স্বরে স্ত্রীকে বলবেন- দেখ দেখ নীতু চাঁদটা…

ভাবনা নিয়ে মরিস কেন খেপে

ভাবনা নিয়ে মরিস কেন খেপে
ভাবনা নিয়ে মরিস কেন খেপে।           দুঃখ-সুখের লীলা      ভাবিস এ কি রইবে বক্ষে চেপে           জগদ্দলন-শিলা।      চলেছিস রে চলাচলের পথে      কোন্‌ সারথির উধাও মনোরথে?      নিমেষতরে যুগে যুগান্তরে           দিবে না রাশ-ঢিলা।        শিশু হয়ে এলি মায়ের কোলে,           সেদিন গেল ভেসে।…

সাঁঝের মায়া

সাঁঝের মায়া
অনন্ত সূর্যাস্ত-অন্তে আজিকার সূর্যাস্তের কালে সুন্দর দক্ষিণ হস্তে পশ্চিমের দিকপ্রান্ত-ভালে দক্ষিণা দানিয়া গেল, বিচিত্র রঙের তুলি তার_ বুঝি আজি দিনশেষে নিঃশেষে সে করিয়া উজাড় দানের আনন্দ গেল শেষ করি মহাসমারোহে। সুমধুর মোহে ধীরে ধীরে ধীরে প্রদীপ্ত ভাস্কর এসে বেলাশেষে দিবসের তীরে ডুবিল যে শান্ত মহিমায়,…

অভিশাপ দিচ্ছি

অভিশাপ দিচ্ছি
আজ এখানে দাড়িয়ে এই রক্ত গোধূলিতে অভিশাপ দিচ্ছি। আমাদের বুকের ভেতর যারা ভয়ানক কৃষ্ঞপক্ষ দিয়েছিলো সেঁটে, মগজের কোষে কোষে যারা পুতেছিলো আমাদেরই আপনজনের লাশ দগ্ধ, রক্তাপ্লুত, যারা গনহত্যা করেছে শহরে গ্রামে টিলায় নদীতে ক্ষেত ও খামারে আমি অভিশাপ দিচ্ছি নেকড়ের চেয়েও অধিক পশু সেই সব পশুদের। ফায়ারিং স্কোয়াডে…

শুধাবো না, সত্যি ভালোবাসো কিনা?

শুধাবো না, সত্যি ভালোবাসো কিনা?
শুধাবো না, সত্যি ভালোবাসো কিনা? মেঘ করে আসছে। কোথাও বৃষ্টিও পড়ছে, ভেজা মাটির গন্ধ। আহ!  এই একটা ব্যাপারই আছে বৃষ্টিতে। নাহলে খরতাপা মাঠের কৃষক ছাড়া আর কারো কেন বৃষ্টি ভালো লাগবে রিনির স্বল্প জ্ঞানের পরিধিতেই আসে না। বৃষ্টি এক বালাই মাত্র! বাইরে থাকলে রাস্তাঘাটে তুমুল যন্ত্রণা, ঘরে কাপড় শুকানোর ঝামেলা।…

বর্ষা বিভাবরী

বর্ষা বিভাবরী
বর্ষা আমার কাঁধে ছিল তাই পাইনি টের বর্ষা যেদিন চোখের পাতায় ভেজা ক্লাস অষ্টমশ্রেণি তাকিয়ে দেখি ফের;   বর্ষা তখন কাদাজল মাখামাখি                  কী যে! কাঁধের বর্ষা বৃষ্টি নিয়ে নিজেই যাচ্ছে ভিজে   বর্ষা এখন শহরে যাচ্ছে একা তার সঙ্গে হঠাৎ একদিন        মেঘের হবে দেখা! ছোট বর্ষা আমার এখনো কাঁধে বড়…

অভিসম্পাত

অভিসম্পাত
বিষাদমাখা বিন্দু বিন্দু নীল শিশিরের অঝোর ধারায় কেন আমাকেই ভিজতে হবে প্রতিদিন? অসম্ভবের পায়ে আমিই তো অবিরাম মাথা কুটে মরি। অযথাই কেন তুমি সন্দেহের সঙ্গোপন বীজ বুনে দাও আমারই যত্নে গড়া নিভৃত বাগানে?   মূলত এই দোষ কার— আঁধারলিপ্ত রাতের, না আমার? আমি মোক্ষলাভের আশায় নিরন্তর একলব্য-সাধনায় নিজেকে আড়াল করে…

মন

মন
মন মোর আসন্ন সন্ধ্যার তিমি মাছ- ডুব দিল রাত্রির সাগরে। তবু শুনি দূর হ’তে ভেসে আসে-যে আওয়াজ অবরুদ্ধ খাকের সিনায়। সূর্য মুছিয়াছে বর্ণ গোধুলি মেঘের ক্লান্ত মিনারের গায়, গতি আজ নাইকো হাওয়ায় নিবিড় সুপ্তির আগে বোঝে না সে শান্তি নাই তমিস্রা পাথারে। তবু পরিশ্রান্ত ম্লান স্নায়ুর বিবশ সঞ্চরণে আতপ্ত গতির স্বপ্ন…

 < 1 2 3 4 5 >  শেষ ›
Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে