Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 2.9/5 (7 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৪-২১-২০১৭

মানুষের অশেষ উপকার করেছে এই প্রাণীটি। কী, জেনে নিন

মানুষের অশেষ উপকার করেছে এই প্রাণীটি। কী, জেনে নিন

ছাগল বলে অবহেলা করবেন না। ভুলেও ভাববেন না, বর্তমান প্রতিবেদনে জামাই ঠকানোর কেতায় বলা হবে যুগে যুগে নিজের মাংস দান করে ছাগকুল মানব জাতির অপার উপকার করেছে। না, মাংস নয়, দুধও নয়, ছাগলের একটি আবিস্কার মানব সভ্যতার মুখটিকেই বদলে দিয়েছিল।  

গল্পটা জানতে গেলে পিছিয়ে যেতে হবে ৮৫৮ খ্রিস্টাব্দে। ইথিওপিয়ার এক ছাগল পালক কালদি, প্রতিদিনের মতো সেদিনও গিয়েছেন ছাগল চরাতে। ছাগলদের তৃণভূমিতে চরতে দিয়ে দিব্যি নিজের বাঁশিটি বের করে বাজাতে শুরু করেছেন। দুপুরে এক সময়ে ঘুমিয়েও পরেছেন। বিকেলে জেগে উঠে আবার বাঁশিতে ফুঁ। এবারে সেই সুর, যা তিনি প্রতিদিনই বাজান ছাগলের পালকে তাঁর কাছে ফিরিয়ে আনার জন্য। কালদি দীর্ঘকাল ধরেই এই এক সুর বাজিয়ে ছাগলদের একত্র করে গ্রামের পথ ধরতেন। কিন্তু সেদিন কী হল, তাঁর সেই বাঁশির সুরে কোনও ছাগলই ফিরে এল না। কালদি তাদের খুঁজতে শুরু করলেন।

এদিক-ওদিক খুঁজে শেষ পর্যন্ত কালদি দেখলেন, সারাদিন চরে কোথায় ছাগলেরা ক্লান্ত হয়ে ঘরে ফেরার জন্য উন্মুখ থাকবে, তা নয়। তারা অতি উৎসাহে লাফিয়ে ঝাঁপিয়ে একসা। কালদি নজর করলেন সেই তৃণভূমির এখানে ওখানে কিছু ঝোপ জাতীয় গাছ রয়েছে এবং সেই গাছগুলিতে লাল রংয়ের বেরির মতো এক প্রকার ফল ফলে আছে। ছাগলেরা মাঝে মাঝেই সেই ফল খাচ্ছে এবং মহাউৎসাহে লম্ফঝম্প করছে। তিনি নিজেও কয়েকটা বেরি খেয়ে দেখলেন। অল্প সময়ের মধ্যেই কেটে গেল তাঁর ঘুমের জড়তা। কালদি বেশ উৎফুল্ল বোধ করতে লাগলেন। তিনি বুঝলেন, এই লাল বেরিই ছাগলদের উৎসাহের উৎস।

বেশ কিছু বেরি কোঁচড়ে বেঁধে ছাগলের পাল নিয়ে গ্রামে ফিরে এলেন কালদি। গ্রামবাসীদের সব কথা খুলে বলার পরে সেই বেরিকে ফুটিয়ে তাঁরা একটা পানীয় তৈরি করে পান করলেন। এতে উদ্দীপনা এল আরও জাঁকালো ভাবে। তার পর...

... তার পর বাকিটা ইতিহাস। ছাগলদের আবিস্কার করা সেই লাল বেরি আসলে কফি-ফল। ছাগলেরা নেহাত খেলাচ্ছলেই আবিস্কার করেছিল বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় পানীয়। মানুষ সেকথা তেমন মনে রাখেনি। কিন্তু এই কাহিনি ছড়িয়ে রয়েছে ইথিওপিয়ার মৌখিক পরম্পরায়। ভারত, ব্রাজিল, ভিয়েতনাম, ইন্দোনেশিয়ায় আজও ছাগলরা কফি বেরি বা বিন খায়। কেউ তা নজর করেন না। ছাগলরাও এ নিয়ে তেমন উদ্বেল নয়। কারণ তাদের আর যাই থাক ‘ইতিহাস’ নেই। আর তা নিয়ে কেয়ারও করে না। 

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে