Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 4.0/5 (2 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৩-২১-২০১৭

কিশোর-কিশোরীদের আত্মপ্রত্যয়ী হয়ে গড়ে উঠতে যা প্রয়োজন

সাবেরা খাতুন


কিশোর-কিশোরীদের আত্মপ্রত্যয়ী হয়ে গড়ে উঠতে যা প্রয়োজন

আপনার সন্তানকে আত্মবিশ্বাসী হিসেবে গড়ে তুলতে চান আপনি। কিন্তু কিছু কারণ হয়তো তাকে আত্মবিশ্বাসী হতে বাঁধা দেয়। এই বাঁধাগুলোকে এড়িয়ে কীভাবে সে আত্মবিশ্বাসী হয়ে গড়ে উঠবে সেই বিষয়টি নিয়েই আমাদের আজকের ফিচার।  

আত্মবিশ্বাসের ৩ টি স্তম্ভকে উৎসাহিত করুন 
নিজের প্রতি বিশ্বাসী হওয়া প্রয়োজন:  সেজন্য নিজেকে নিজে বলতে হবে- ‘আমি এটা করতে পারি’,  নিজেকে অনুপ্রাণিত করা : আমি চেষ্টা করতে চাই, নিজের সাথে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হওয়া : আমি খুব ভালোভাবে চেষ্টা করবো। উৎসাহ দেয়া অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয় কারণ ব্যর্থতার ভয় বা কম আত্মসম্মান মানুষকে পিছিয়ে দেয়। কখনো কখনো চেষ্টা করাটাই সাহসী হওয়ার অনুভূতি দেয়।

চেষ্টার প্রমাণ হিসেবে ব্যর্থতাকে উদযাপন করুন
ব্যর্থতা শুধু আপনাকে হারানোর অনুভূতিই দেয় না বরং আপনাকে শক্তিশালী হতেও সাহায্য করে। বেশিরভাগ মানুষই প্রচেষ্টা নির্ধারণ করে ফলাফল নয়। কারণ ফলাফলের ক্ষেত্রে বিভিন্ন ফ্যাক্টর কাজ করে যা কারো নিয়ন্ত্রণে থাকেনা। তাই যেকোন ফলাফলকেই মেনে নেয়া উচিৎ।  

আকাঙ্ক্ষাকে সমর্থন করুন
ভবিষ্যৎ লক্ষ্য বর্তমানের প্রচেষ্টাকে উৎসাহিত করে আত্মবিশ্বাস সৃষ্টি করার মাধ্যমে। আপনি বর্তমানে কী করছেন তা ভবিষ্যতে কী হবে তার সাথে সম্পর্কিত। শিশু অবস্থায় বা কিশোর অবস্থায় অদূরদর্শী হওয়াটা সহজ। লক্ষ্য বা উদ্দেশ্যই দূরদর্শিতা তৈরি করে যা আত্মবিশ্বাসকে উৎসাহিত করে। ‘আমি যেখানে পৌঁছাতে চাই তার জন্য কাজ করতে পারি আমি’ এই মনোভাব থাকতে হবে।

ভুলকে আত্মবিশ্বাসের হাতিয়ার হিসেবে কাজে লাগাতে হবে
কিশোর-কিশোরীদের তাদের ভুল থেকে শিক্ষা নিতে সাহায্য করুন। সে যেন পুনরায় এই ভুল না করে সেজন্য কাজটি কীভাবে সঠিকভাবে করতে হয় তা শেখান। ভুল ভিত্তিক শিক্ষা থেকেই মানুষ কঠিন পথটা চিনে নিতে পারে।

অনুশীলনের মূল্য
যেহেতু পুনরাবৃত্তি সম্পূর্ণতা সৃষ্টি করে তাই আত্মবিশ্বাস ও বৃদ্ধি পায়। তাই অনুশীলনের বিকল্প নেই বলা যায়। সব সময় অনুশীলন ভালো নাও লাগতে পারে তবে এর ফলে উন্নতি হয় তা মনে রাখতে হবে।

প্রতিকূলতার উপহারকে বুঝতে পারা
কঠিন পরিস্থিতিকে সামলে নেয়ার মাধ্যমে নিজের সম্পদের বিষয়ে আস্থা তৈরি হয়। জীবনের চ্যালেঞ্জগুলোকে মোকাবেলা করতে পারলেই আত্মবিশ্বাস তৈরি হয়।

পিতামাতার কর্তৃত্ব মধ্যপন্থী হওয়া উচিৎ
পিতামাতা যদি সন্তানের প্রতি খুব বেশি কঠোর হোন তাহলে সন্তান প্রাথমিক অবস্থায় অনুগত হবে এবং পিতামাতার প্রতি নির্ভরশীল হবে। ফলে তার আত্মবিশ্বাস জন্মাবে না। এ কারণেই পিতামাতার উচিৎ তাদের সন্তানকে দায়িত্ব নিতে শেখানো।

এছাড়াও সন্তানকে আত্মবিশ্বাসী গড়ে তোলার জন্য সন্তানের নিয়ম লঙ্ঘনকে ব্যতিক্রম হিসেবে দেখুন, সমস্যা সমাধানের জন্য উৎসাহিত করুন, দায়িত্ব দিন, আত্মশাসনকে সম্মান করুন, চ্যালেঞ্জ নিতে শেখান, সাহায্য করুন কিন্তু অনেক বেশি নয়, সন্তানের কর্মক্ষমতার সমালোচনা করবেন না।    
সূত্র : সাইকোলজি টুডে

আর/১০:১৪/২১ মার্চ

ব্যক্তিত্ব

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে