Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৩-০২-২০১৭

অটোয়াস্থ বাংলাদেশ হাই কমিশন আয়োজিত ২১ ফেব্রুয়ারী অনুষ্ঠানে বিতর্কিত ব্যক্তিকে আমন্ত্রণ

সৈয়দ আব্দুল গফফার


অটোয়াস্থ বাংলাদেশ হাই কমিশন আয়োজিত ২১ ফেব্রুয়ারী অনুষ্ঠানে বিতর্কিত ব্যক্তিকে আমন্ত্রণ

অটোয়াস্থ বাংলাদেশ হাই কমিশন প্রতি বছরের ন্যায় এবারও মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালন উপলক্ষে গত ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০১৭ইং শনিবার অটোয়াস্থ একটি কমিউনিটি হলে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানের সভাপতি ছিলেন কানাডায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার মিজানুর রহমান এবং অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন দূতাবাসের প্রথম সচিব (বাণিজ্যিক) দেওয়ান মাহমুদুল হক। 
অনুষ্ঠানে উইং কমান্ডার (অব:) কাউসার আহমেদ নামে জনৈক ব্যক্তিকে আমন্ত্রণ জানিয়ে তাকে মঞ্চে আহবান করায় স্থানীয় বাংলাদেশীরা হতভম্ব হয়ে যান। এতে উপস্থিত ব্যক্তিবর্গ ও স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা কর্মীদের মাঝে ক্ষোভের সঞ্চার হয়। উল্লেখ্য, জিয়াউর রহমানের আস্থাভাজন এ্যাটাসে বঙ্গবন্ধুর খুনিদের সহযোগী এই উইং কমান্ডার (অব:) কাউসার আহমেদ, ১৯৮২ সালে সপরিবারে কানাডায় পাড়ি দেন। এখানে এসে তিনি স্থানীয় বিএনপির রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত হন এবং বিএনপিকে সংগঠিত করে। তার দাপটে বিগত বিএনপি আমলে আওয়ামী লীগের লোকজন আতঙ্কের মধ্যে ছিল। উক্ত সময়ে তারা হাই কমিশনকে বিএনপির অফিস এবং বঙ্গবন্ধুর খুনিদের রক্ষার কেন্দ্রস্থলে পরিণত করে। খুনি নূর চৌধুরীর আস্থাভাজন এই কাউসার গত সাত আট বছর লোক চক্ষুর অন্তরালে ছিলেন। কিন্তু বর্তমানে হাই কমিশনার যোগদানের পর এবং হাই কমিশনের ভিতরে তার নিজস্ব লোক থাকার ফলে তিনি পুনরায় হাই কমিশনে জায়গা করে নেন। 
জানা যায়, উইং কমান্ডার (অব:) কাউসার আহমেদ হাই কমিশন থেকে কেবল এই অনুষ্ঠানের আমন্ত্রনই গ্রহণ করেননি; বরং হাই কমিশনার ছাড়া তিনিই একমাত্র ব্যক্তি যিনি উক্ত অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন। প্রশ্ন উঠেছে, যে ব্যক্তি কথায় কথায় বঙ্গবন্ধু এবং বর্তমান প্রধানমন্ত্রীকে গালিগালাজ করেন তিনি কিভাবে হাই কমিশনারের পাশে বসেন এবং জাতীয় অনুষ্ঠানে বক্তৃতা দেন। উল্লেখ্য, উক্ত অনুষ্ঠানে অটোয়া আওয়ামী লীগ এর সভাপতি উপস্থিত থাকা সত্ত্বেও তাকে মঞ্চে উঠতে না দিয়ে কাউসারকে দিয়ে বক্তৃতা করানো হয়। জানা যায় এই কাউসার খুনি নূর চৌধুরীকে কানাডায় স্থায়ীভাবে রাখার জন্য এবং দেশে ফেরৎ না পাঠানোর জন্য কানাডার বর্তমান সরকারের সাথে লবিষ্ঠ হিসেবে কাজ করছেন। 

জাতীয় অনুষ্ঠানে কাউসারের আমন্ত্রন এবং বক্তৃতা দেয়ার বিষয়ে অনুষ্ঠানের পরিচালনাকারী প্রথম সচিব মাহমুদের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, হাই কমিশনার ও মিনিষ্টার নাইম উদ্দিনের নির্দেশনায় তিনি অনুষ্ঠান পরিচালনা করেছেন এবং তাদের নির্দেশনা অনুযায়ী তিনি কাউসারকে বক্তৃতার জন্য আমন্ত্রন জানান। উল্লেখ্য, বর্তমান হাই কমিশনার গত সেপ্টেম্বরে প্রধানমন্ত্রীর কানাডা সফরের সময়ও আওয়ামী লীগ নেতা কর্মীদের সাথে অসহযোগিতা করেন, আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে প্রধানমন্ত্রীকে সমবর্ধনা দেওয়ার সকল প্রস্তুতি গ্রহণ করা হলেও দেওয়ান মাহমুদ ও আলাউদ্দিনের পরামর্শে নিরাপত্তার অযুহাত দেখিয়ে হাই কমিশনার উক্ত হোটেলের বল রুমের বুকিং বাতিল করে দেন। যার ফলে কানাডা আওয়ামী লীগকে আর্থিক ক্ষতিসহ অনেক সমস্যায় পড়তে হয়। পরবর্তীতে কানাডা আওয়ামী লীগ আরও অর্থ খরচ করে অন্যত্র হল ভাড়া করে সর্ম্বধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। 
সৈয়দ আব্দুল গফফার
সহ সভাপতি
কানাডা আওয়ামী লীগ 

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে