Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.4/5 (72 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ১০-২৫-২০১৬

দোকানের সঙ্গে ঝুলিয়ে স্কুলছাত্রকে নির্যাতন

দোকানের সঙ্গে ঝুলিয়ে স্কুলছাত্রকে নির্যাতন

রাজশাহী, ২৫ অক্টোবর- রাজশাহীতে মোবাইল চুরি সন্দেহে মুনিরুল ইসলাম (১৩) নামের এক স্কুলছাত্রকে দোকানের সঙ্গে ঝুলিয়ে নির্যাতন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সোমবার সকালে বাঘা উপজেলার নারায়ণপুর বাজারের মনিকা সিনেমা হলের সামনে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত তিন ভাইয়ের মধ্যে পুলিশ সদস্য জিল্লুর রহমানকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মঙ্গলবার তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হবে। বাকি দুই আসামি সেনা সদস্য জাহাঙ্গীর হোসেন ও ছোট ভাই ব্যবসায়ী মহিবুল আলমকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। বাঘা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলী মাহমুদ এসব জানিয়েছেন।

ওসি আলী মাহমুদ জানান, অভিযুক্ত জাহাঙ্গীর হোসেন সেনা সদস্য বলে জানা গেছে। তাকে গ্রেফতার করা হলে বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে। তিনি আরও জানান, সোমবার সকালে মনিকা সিনেমা হলের সামনে প্রকাশ্যে সপ্তম শ্রেণির ছাত্র মনিরুলকে শারীরিক নির্যাতন করা হয়। বাজারের লোকজন ওই ছাত্রকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়। বর্তমানে মনিরুল বাঘা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন রয়েছে। এ ঘটনায় মনিরুলের মা আবেদা বেগম মামলা করার পর জিল্লুর রহমানকে মোটরসাইকেলসহ গ্রেফতার দেখানো হয়।

ওসি আলী মাহমুদ, প্রত্যক্ষদর্শী লুৎফর ও তূর্য জানান, চকছাতারি গ্রামের সাবেক ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বর হারান আলীর ছেলে ব্যবসায়ী মহিবুল আলম নারায়ণপুর বাজারে মাছ বাজারে ঘোরাফেরা করছিল। এ সময় তার একটি মোবাইল ফোন চুরি হয়ে যায়। সেখানে কয়েক যুবক উপস্থিত ছিল। পরে চকনারায়ণপুর গ্রামের মিঠু প্রামাণিকের ছেলে মনিরুলকে মোবাইল চোর সন্দেহে মহিবুল ইসলাম ও তার দুই ভাই নারায়ণপুর বাজারের মোবাইল ও ফ্ল্যাক্সিলোড ব্যবসায়ী আনারুলের দোকানের সামনে নিয়ে যায়। সেখানে দুই পা বেঁধে দোকানের কাঠের সঙ্গে ওপরে পা ঝুলিয়ে শারীরিক নির্যাতন করে। এ দৃশ্য দেখে লুৎফর রহমান ও তূর্যসহ বাজারের লোকজন মনিরুলকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করায়। অন্যদিকে বিক্ষুব্ধ জনতার ধাওয়া খেয়ে মোটরসাইকেল ফেলে তিন ভাই পালিয়ে যায়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে মোটরসাইকেলসহ জিল্লুরকে আটক করে। তবে জিল্লুর দাবি করেছেন, তিনি ঘটনায় জড়িত ছিলেন না। মনিরুলের মা আবেদা বেগমের দাবি, তার ছেলে মোবাইল চুরি করতে পারে না।

এফ/১১:০০/২৫ অক্টোবর

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে