Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৯-১০-২০১৬

ডিসেম্বরের মধ্যে জেলা পরিষদ ভোট করতে চায় ইসি

ডিসেম্বরের মধ্যে জেলা পরিষদ ভোট করতে চায় ইসি

ঢাকা, ১০ সেপ্টেম্বর- জেলা পরিষদের নির্বাচন ডিসেম্বরের মধ্যে করার প্রস্তুতি শুরু করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এ লক্ষ্যে নির্বাচনবিধি ও আচরণবিধির সংশোধনের খসড়াও গুছিয়ে এনেছে প্রতিষ্ঠানটি।

নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে সংশিষ্ট কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, ডিসেম্বরের শেষ ভাগে জেলা পরিষদের ভোট আয়োজনে বিধিমালা ও ভোটার তালিকা তৈরির কাজে তোড়জোড় চলছে। স্থানীয় সরকারের এ প্রতিষ্ঠানে আইন প্রণয়নের ১৬ বছর পর প্রথমবারের মতো পরোক্ষ ভোটে প্রতিনিধি নির্বাচন হবে।

এ বিষয়ে নির্বাচন কমিশনার মো. শাহনেওয়াজ বলেন, ‘জেলা পরিষদের আইনের গেজেটের কপি আমরা এখনো হাতে পাইনি। শুনেছি রাষ্ট্রপতি তাতে স্বাক্ষর করেছেন। এটা হাতে পেলেই আমরা দ্রুত এ নির্বাচনের জন্য নির্বাচন পরিচালনা বিধি ও নির্বাচনী আচরণবিধিমালা তৈরি করে ফেলবো।’

নির্বাচন কমিশনের উপসচিব ফরহাদ আহাম্মদ খান জানান, ঈদুল আযহার পরে যত দ্রুত সম্ভব জেলা পরিষদের বিধি চূড়ান্ত করে আইন মন্ত্রণালয়ে ভেটিংয়ের (যাচাই-বাছাই) জন্য পাঠানো হবে।

ঢাকা বিভাগীয় আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মিহির সারওয়ার মোর্শেদ জানান, এখন পর্যন্ত ১৯৮৯ সালে তিন পার্বত্য জেলায় একবারই সরাসরি নির্বাচন হয়েছিল। আর কোনো জেলা পরিষদ নির্বাচন হয়নি।

সূত্র জানায়, সংসদ, সিটি করপোরেশন, উপজেলা, পৌরসভা, ইউনিয়ন পরিষদে জনগণের প্রত্যক্ষ ভোটে নির্বাচিত হলেও আইনে জেলা পরিষদে প্রত্যক্ষ ভোটের বিধান নেই। জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন পরোক্ষ ভোটে। অর্থাৎ জেলায় অন্তর্ভুক্ত সিটি করপোরেশন (যদি থাকে), উপজেলা, পৌরসভা, ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিদের ভোটে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান নির্বাচিত হবেন।

১৯৮৮ সালে এইচ এম এরশাদের সরকার প্রণীত স্থানীয় সরকার (জেলা পরিষদ) আইনে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যানকে সরকার কর্তৃক নিয়োগ দেওয়ার বিধান ছিলো। তবে পরে আইনটি অকার্যকর হয়ে পড়ে। ২০০০ সালে তৎকালীন আওয়ামী লীগ সরকার নির্বাচিত জেলা পরিষদ গঠনের জন্য নতুন আইন করে।

পাঁচ বছর মেয়াদী জেলা পরিষদগুলোতে বর্তমানে অনির্বাচিত প্রশাসক দায়িত্ব পালন করছেন। সরকার ২০১১ সালের ১৫ ডিসেম্বর ৬১ জেলায় আওয়ামী লীগের জেলা পর্যায়ের নেতাদের প্রশাসক নিয়োগ দেয়।

বিদ্যমান পরিস্থিতিতে গত ২৮ অগাস্ট মন্ত্রিসভার বৈঠকে ‘জেলা পরিষদ (সংশোধন) আইন, ২০১৬’ এর খসড়ার নীতিগত ও চূড়ান্ত অনুমোদন দেওয়া হয়। সংসদ অধিবেশন চলমান না থাকায় ‘জরুরি বিবেচনায়’ ৫ সেপ্টেম্বর এ সংশোধন অধ্যাদেশ আকারে জারি করা হয়েছে।

ইসি কর্মকর্তারা জানান, বিধির গেজেট, সীমানা নির্ধারণ, ভোটার তালিকা প্রণয়ন করে ডিসেম্বরের শেষ নাগাদ এ নির্বাচন করার পরিকল্পনা রয়েছে। সেক্ষেত্রে ইসিতে নভেম্বরে তফসিল ঘোষণা করতে হবে।

এরই মধ্যে জেলা পরিষদের সদস্য ও সংরক্ষিত মহিলা সদস্য নির্বাচনের জন্য ওয়ার্ডের সীমানা নির্ধারণে বিধিমালা জারি করা হয়েছে। আইন অনুযায়ী প্রতিটি জেলায় ১৫ জন সাধারণ ও পাঁচজন সংরক্ষিত মহিলা সদস্য নির্বাচিত হবেন বলেও জানান ইসি কর্মকর্তারা।

ভোট হবে নির্দলীয়: স্থানীয় সরকারের সিটি, পৌর, উপজেলা ও ইউপি দলীয়ভাবে প্রতীকে ভোট হলেও জেলা পরিষদে দলীয়ভাবে ভোট হচ্ছে না। গত নভেম্বরে দলীয়ভাবে স্থানীয় সরকারের সব স্তরে ভোটের জন্য বিল উপস্থাপন করা হলেও পরে জেলা পরিষদের বিলটি প্রত্যাহার করে নেওয়া হয়।

ভোটার যারা: প্রত্যেক জেলার অন্তর্ভুক্ত সিটি করপোরেশনের (যদি থাকে) মেয়র ও কাউন্সিলর, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান, পৌরসভার মেয়র ও কাউন্সিলর, ইউপির চেয়ারম্যান ও সদস্য, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও  সদস্য এ নির্বাচনের ভোটার হবেন। তাদের ভোটেই জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও সদস্য নির্বাচিত হবেন। এ নির্বাচনে স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানের নির্বাচিত জনপ্রতিনিধিরাই ভোট দিতে পারবেন। সাধারণ ভোটারদের এখানে ভোট দেওয়ার সুযোগ নেই।

এ হিসেবে স্থানীয় সরকারের চারটি প্রতিষ্ঠানের প্রায় ৬৭ হাজার নির্বাচিত প্রতিনিধি এই নির্বাচনে ভোট দেবেন। এর মধ্যে সব চেয়ে বেশি ভোটার হচ্ছে ইউনিয়ন পরিষদে। দেশে বর্তমানে ইউনিয়ন পরিষদের সংখ্যা সাড়ে চার চার হাজার। প্রতিটি ইউনিয়ন পরিষদে গড়ে ১৩ জন করে প্রায় ৬০ হাজারের মতো নির্বাচিত প্রতিনিধি রয়েছে। ৪৮৮টি উপজেলা পরিষদে প্রায় দেড় হাজার; ৩২০টি পৌরসভায় সাড়ে পাঁচ হাজার এবং ১১টি সিটি করপোরেশনে প্রায় সাড়ে ৫০০ নির্বাচিত প্রতিনিধি রয়েছেন।

প্রার্থী : বাংলাদেশের ২৫ বছর  বয়সী যে কোনো ভোটার  জেলা পরিষদ নির্বাচনের প্রার্থী হতে পারলেও ভোট দিতে পারবেন না।

অন্যদিকে জনপ্রতিনিধিরা শুধু ভোটই দিতে পারবেন তারা প্রার্থী হতে পারবেন না।

আর/১০:১৪/০৯ সেপ্টেম্বর 

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে