Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 2.9/5 (20 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৯-০৭-২০১৬

জাম্বিয়ায় সন্তানদের বাঙালি বানাচ্ছে পাঠশালা

হাসান মাসুম


জাম্বিয়ায় সন্তানদের বাঙালি বানাচ্ছে পাঠশালা

লুসাকা, ০৭ সেপ্টেম্বর- আফ্রিকা মহাদেশে অনেক দেশের ভিড়ে জাম্বিয়া একটি উল্লেখযোগ্য দেশ। দ্বিধাহীন সূর্য, অপার সবুজ প্রকৃতি, ভিক্টোরিয়া জলপ্রপাত আর জীবনযুদ্ধে হাসিমুখে লড়াই করতে থাকা কালো মানুষগুলোর বাড়িয়ে দেয়া বন্ধুর হাত- এই হলো জাম্বিয়া। অন্যান্য দেশের মানুষের মতো বাংলা ভাষী মানুষেরা বিভিন্ন সময়ে জাম্বিয়ায় প্রবাসী হয়েছেন গত শতাব্দীর মাঝামাঝি সময় থেকে। এদের অনেকের সন্তান জন্মগ্রহণ করেছে ওখানেই। এপার বাংলা-ওপার বাংলা থেকে বাংলাভাষীরা কেউ প্রকৌশলী, কেউ শিক্ষক, কেউ ব্যাবসায়ী আবার কেউবা চিকিৎসক হিসেবে কর্মরত আছেন জাম্বিয়ায়। যখন বাবা-মায়েরা তাদের সন্তানদের সাথে বাংলায় কথা বলেন অনেকেই পুরোটা বুঝতে পারে না, আবার যখন বাবা-মা সন্তানদের নিয়ে সত্যজিত রায়ের গুপি গাইন বাঘা বাইন চলচ্চিত্র দেখতে বসেন, তখন ছেলে-মেয়েরা  বাংলা সংলাপ বুঝতে পারেন না।  

এই অবস্থায় ২০১৪ সালের অক্টোবর মাসে জাম্বিয়ার রাজধানী লুসাকায় বসবাসরত দুই বাংলার উদ্যমী কিছু মানুষ গড়ে তোলেন বাংলা শেখার স্কুল ‘পাঠশালা’। প্রথমে মাত্র ছয়জন শিক্ষার্থী নিয়ে পাঠশালা হাঁটতে হাঁটতে আজকে তাদের সংখ্যা প্রায় কুড়িজন।

মহৎ হৃদয় প্রবাসী শ্রী দিব্যেন্দু ঘোষের বাড়িতে প্রতি রবিবার দিদিমণিরা (সুস্মিতা দিদি, নম্রতা দিদি আর কুমকুম দিদি) বাংলা আদর্শলিপি’র পাঠশিক্ষা দেন জাম্বিয়ার বাংলাভাষী পরিবারগুলোর নুতন প্রজন্মের শিশু-কিশোরদের। ওরা যখন পাঠশালায় সমস্বরে আবৃত্তি করে কবি নজরুল ইসলামের লিচুচোর কবিতা থেকে ‘বাবুদের তালপুকুরে হাবুদের ডালকুকুরে” তখন শ্রোতাদের শিহরণ জাগে বৈকি।

পাঠশালায় শিশুদের পৌঁছে দিয়ে অপেক্ষমান অভিভাবকরা যেখানে আড্ডা জমান সেটা ‘বাপীদা’র চায়ের দোকান’। ওখানে চা এর পেয়ালায় চুমুক দিতে দিতে তারা এপার বাংলা-ওপার বাংলার ক্রিকেট, রাজনীতি, অর্থনীতি, বাংলা সিরিয়াল, নাটক, সাহিত্য নিয়ে আড্ডায় কিছুটা সময় ক্ষেপণ করেন।

সম্প্রতি তারা প্রকাশ করেছেন আফ্রিকায় বাংলা ভাষা’র প্রথম সাহিত্য পত্রিকা ‘ভোর’। এবছর দুটি সংখ্যা বেরিয়েছে- সূচনা সংখ্যা ও বাংলা নববর্ষ সংখ্যা, যা ইতোমধ্যে আফ্রিকায় বসবাসরত বাংলাভাষীদের মধ্যে ব্যাপক সাড়া জাগিয়েছে। অচিরেই ভোর-এর তৃতীয় সংখ্যা প্রকাশ হতে যাচ্ছে।

ভোর-এর সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করছেন প্রকৌশলী দেবাশীষ ভট্টাচার্য এবং ডা. রাজীব মাহবুব মুরশিদ। তাদের সহযোগিতা করছেন এপার বাংলা-ওপার বাংলার অনেক প্রবাসী বাংলাভাষী সাহিত্যপ্রেমী।

আর/১০:১৪/০৭ সেপ্টেম্বর 

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে