Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৮-৩১-২০১৬

‘এবার মরেও শান্তি পাব’। রাজ্যে সিঙ্গুর উৎসবের ঘোষণা মমতার (ভিডিও সংযুক্ত)

‘এবার মরেও শান্তি পাব’। রাজ্যে সিঙ্গুর উৎসবের ঘোষণা মমতার (ভিডিও সংযুক্ত)

কলকাতা, ৩১ আগষ্ট- সুপ্রিম কোর্ট সিঙ্গুর রায় দেওয়ার পরে সিঙ্গুর অন্দোলনের স্মৃতিচারণা মমতার গলায়। ২৬ দিনের অনশন থেকে শুরু করে তাপসী মালিকের মৃত্যু, অনেক কিছুই উঠে এল রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর গলায়। একনজরে দেখে নিন প্রতিক্রিয়ায় কী কী বললেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।

১।‘গত দশ বছর অপেক্ষা করেছি। সত্যের জয়, আদালতের জয়। আমি সিঙ্গুর নিয়ে অনশন করেছিলাম। সিঙ্গুর আন্দোলনের সময়েই মা-মাটি-মানুষ স্লোগান শুরু করেছিলাম।

২। মহাশ্বেতা দেবী-সহ বিশিষ্টজনদের ধন্যবাদ। মহাশ্বেতাদি বেঁচে থাকলে সবথেকে বেশি খুশি হতেন। আজকে তাঁর না থাকাটা সবথেকে বেশি উপলব্ধি করছি। তাপসী মালিক-সহ যে ১৪ জন ওখানে শহিদ হয়েছেন, তাঁদের স্মরণ করছি। সিঙ্গুরের পরেই নন্দীগ্রাম শুরু হয়েছিল। সিঙ্গুর, নন্দীগ্রাম, নেতাইয়ে শহিদ হওয়া মানুষদের স্মরণ করছি। সবথেকে বেশি স্যালুট জানাচ্ছি সিঙ্গুরের খেতে না পাওয়া মানুষদের প্রতি যাঁরা অন্যায়ের কাছে মাথা নোয়ায়নি, জমি দেয়নি।

৩। আমরা জমি হাতে নিয়েছিলাম যাতে জমিটা কেউ না নিতে পারে। দু’টাকা কিলো চাল, দু’হাজার টাকা দিয়েছি। রেলে থাকাকালীন সাহায্য করেছি।

৪। রাজ্যের নতুন নাম ‘বাংলা’ হওয়ার পরেই এটা ঐতিহাসিক জয়। বাঙালি হিসেবে আমরা গর্বিত।

৫। ধারাবাহিক আন্দোলন, অনশন, মা-মাটি-মানুষ, সিঙ্গুরের কৃষকদের জয়। আমি খুবই খুশি হয়েছি। এই জয়ে আনন্দাশ্রু চলে আসছে।

৬। সিঙ্গুর উৎসব পালন হবে গোটা রাজ্যে। ওয়ার্ড থেকে ওয়ার্ড, ব্লকে ব্লকে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে কৃষকদের, মাটির মানুষদের সম্মান জানিয়ে উৎসব হবে।

৭। আমরা জোর করে জমি অধিগ্রহণ করি না। আমরা মানুষ চাইলে জনস্বার্থমূলককাজে জমি অধিগ্রহণ করি। জমি বিল প়ড়ে আছে, জোর করে নয়, কৃষকদের সম্মতি নিয়েই জমি নেওয়া উচিত। কৃষকদের স্বার্থে যে লড়াই চলেছে, আদালতের রায়ে সেই স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে।

৮। সিঙ্গুরের মানুষ চিরকাল ইতিহাসে লেখা থাকবে। এবার আমি মরেও শান্তি পাব!

৯। আগের সরকার বলপূর্বক যে আইন করেছিল, সেটা বেআইনি ছিল। এটা প্রমাণিত হল। সেদিনের সিদ্ধান্ত ঐতিহাসিক আত্মহত্যা ছিল। প্রাক্তন রাজ্যপাল গোপালকৃষ্ণ গাঁধীর সামনে হওয়া চুক্তিও ওঁরা মানেননি।

১০। আমি প্রতিহিংসাপরায়ণ নই। টাটারা এখনও এরাজ্যে বিভিন্ন প্রকল্পে কাজ করছে, ভবিষ্যতেও তাদের স্বাগত। এদেশে শিল্পের চূড়ান্ত গন্তব্য বাংলাই।

আর/১৭:১৪/৩১ আগষ্ট

পশ্চিমবঙ্গ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে