Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৮-৩১-২০১৬

বেকিং এর সময় এই ভুলগুলো আপনিও করছেন না তো?

নিগার আলম


বেকিং এর সময় এই ভুলগুলো আপনিও করছেন না তো?

কেক, বিস্কুট খেতে আমরা সবাই পছন্দ করি। অনেকেই শখ করে  ঘরে কেক, বিস্কুট তৈরি করে থাকেন। কিন্তু যত চেষ্টা করুন না কেন দোকানের মত কেক, বিস্কুট তৈরি হয় না। উপকরণ, পরিমাণ সব ঠিকমত দেওয়ার সত্ত্বেও দেখা যায় ছোট একটি ভুলের কারণ কেক, বিস্কুট দোকানের মত তৈরি হচ্ছে না। ভিতরটা কিছুটা শক্ত অথবা কাঁচা রয়ে যাচ্ছে। বেকিং এর সময় যেই ভুলগুলো  সাধারণত সবাই করে থাকেন, তা নিয়ে আজকের ফিচার।

১। বেকিং এর জন্য ঠান্ডা উপকরণ ব্যবহার করা
কেক বিস্কুট তৈরির উপকরণগুলো অনেকেই ঠান্ডা ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু প্রতিটি রেসিপিতে লেখা থাকে সাধারণ তাপমাত্রায় থাকা উপকরণগুলো ব্যবহার করতে হবে। যেমন মাখনের সাথে চিনি মিশিয়ে ডো তৈরি করতে হয়। এতে চিনি আর মাখনের মিশ্রণটি মিহি হতে হবে। মাখন যদি ঠান্ডা থাকে, তাহলে চিনির সঙ্গে এর মিশ্রণটি ভালো হবে না এবং পরবর্তী সময়ে বেকিং পাউডারের সাথেও ভালোভাবে মিশবে না। যার কারণে বিস্কুট মুচমুচে হয় না।

২। রেসিপি ভালোমত না পড়া
অনেকেই রেসিপি ভালোমত পড়েন না। উপকরণ পড়ে অনেকে রান্না করতে ব্যস্ত হয়ে যান। পারফেক্ট দোকানের মত খাবার তৈরি করার জন্য রেসিপি মনোযোগ সহকারে সম্পূর্ণভাবে পড়ার প্রয়োজন রয়েছে। অনেক ছোট ছোট বিষয় রয়েছে যা অবহেলা করার কারণে বেকিং এ সমস্যা সৃষ্টি হয়।

৩। বিস্কুট তৈরির খামিরের তাপমাত্রায় সামঞ্জস্য রাখা
বিস্কুটের খামির তৈরি করার সময় তিনটি উপায়ে একে ঠান্ডা করতে হবে। প্রথমে ডো তৈরির আগে সব উপাদান মিশিয়ে ফ্রিজে ঠান্ডা করে নিন। এরপর খামির তৈরি করে আবার ফ্রিজে রাখুন। বিস্কুটের ছাঁচে রাখার পর আবার ফ্রিজে রেখে কিছুক্ষণ ঠান্ডা করে নিন। এতে বেক ভালো হবে।

৪। উপকরণ সঠিকভাবে পরিমাণ না করা
বেকিং এর উপকরণগুলো পরিমাণ করার ভুলের কারণে আপনার রান্না ক্ষতি হতে পারে। যেমন রেসিপিতে এক কাপ বাদাম কুচির কথা উল্লেখ থাকে। এটা দেখে আমরা এক কাপ বাদাম আলাদা করে রাখি। কিন্তু আমরা এটা খেয়াল করি না এক কাপ বাদাম দিয়ে আধা কাপ বাদাম কুচি হতে পারে। এ ধরনের পরিমাণে ভুল হলে বেকিং করলে ঠিকমতো বেক হয় না। তাই উপকরণের পরিমাণ ঠিকমতো দেওয়ার প্রয়োজন রয়েছে।

৫। অতিরিক্ত উপকরণ ব্যবহার
অনেক সময় আমরা রেসিপির বহিভূর্ত উপকরণ ব্যবহার করি। আমরা মনে করি এতে খাবারে স্বাদ বৃদ্ধি পাবে। কিন্তু বেশির ভাগ সময় এটি খাবারে স্বাদ নষ্ট করে দেয়। যেমন মাখন এবং তেল উভয়ই ফ্যাট কিন্তু এদের ব্যবহার একই নয়। তেল কেককে বেশি নরম করে মাখনের তুলনায়। তাই আপনি যদি তেলের পরিবর্তে মাখন ব্যবহার করেন তবে কেক কিছুটা শক্ত হবে।

৬। ওভেনের দরজা খুলে বেক হয়েছে কিনা পরীক্ষা করা
কেক তৈরি না হওয়া পর্যন্ত বার বার ওভেনের দরজা খুলে পরীক্ষা করার প্রয়োজন নেই। কারণ ওভেনে যখন বেকের জন্য তাপমাত্রা তৈরি করে, তখন বারবার ওভেনের দরজা খুললে তাপমাত্রায় পরিবর্তন হয়। যার ফলে খাবার ঠিকমতো বেক হয় না। রেসিপিতে বেক হওয়ার জন্য যে সময় দেওয়া থাকে, সেটা পরিপূর্ণ হওয়ার পর একবার পরীক্ষা করে দেখতে পারেন বেক হয়েছে কি না। না হলে আরো কিছুক্ষণ বেক হতে দিন। তবে মনে রাখবেন, নির্ধারিত সময়ের আগে ওভেনের দরজা খোলার প্রয়োজন নেই।

৭। কেকের উপকরণ অতিরিক্ত বিট করা
কেকের উপকরণগুলো অতিরিক্ত বিট করা থেকে বিরত থাকুন। অনেক সময় অতিরিক্ত বিটের কারণে কেক শক্ত হয়ে যায়।

৮। ফ্রিজে ঠান্ডা না করা
কেক বেক করার পর ভালোভাবে সেট করার জন্য কেক ফ্রিজে রাখার প্রয়োজন হয়। কেক ভালোভাবে সেট না হলে হয় সেটা শক্ত হয়ে যায় এবং এতে স্বাদের ব্যতিক্রম ঘটে। বেক হওয়ার পর ক্রিমের লেয়ার দিয়ে ১৫ মিনিটের জন্য ফ্রিজে রেখে ঠান্ডা করে আবার লেয়ার দিন। এভাবে লেয়ারগুলো ফ্রিজে রেখে সেট করুন। দেখবেন দোকানের মত কেক তৈরি হয়ে গেছে।

লিখেছেন- নিগার আলম

এফ/০৮:৪০/৩১আগষ্ট

জানা-অজানা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে