Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.1/5 (30 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৮-৩০-২০১৬

যে কারণে ১০ দিনের ছেলেকে বিক্রি করল বাবা-মা!

যে কারণে ১০ দিনের ছেলেকে বিক্রি করল বাবা-মা!

টাঙ্গাইল, ৩০ আগষ্ট- নিজের গর্ভজাত সন্তানকে ভালোবাসে না এমন বাবা-মা পৃথীবিতে নেই বললেই চলে। তবে এক দম্পতি নিজেদের ১০ দিনের সন্তানকে বিক্রি করে দিয়েছেন। ঘটনাটি ঘটেছে টাঙ্গাইলের নাগরপুর উপজেলার ঘিওর কোল গ্রামে।

সংসারের যাঁতাকলে পিষ্ট হতদরিদ্র মা-বাবা অভাবের তাড়না আর ক্ষুধার জ্বালা সইতে না পেরে মাত্র ২০ হাজার টাকায় বেঁচে দিয়েছেন তাদের নাড়িছেঁড়া ধন ১০ দিনের শিশুপুত্রকে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, নাগরপুর উপজেলার উপকণ্ঠ ঘিওরকোল গ্রামের হতদরিদ্র মো. মাজেদ আলীর পালিত ছেলে মো. লুৎফর মিয়া (৩৫)। সহায় সম্বল বলতে মাথা গোজার জন্য মাত্র ৩ শতাংশ জমি রয়েছে তার। ফরিদা বেগম ও লুৎফর মিয়ার সাংসারিক জীবনে তিন ছেলে এবং এক মেয়ে। বড় সংসারে অভাব ছিল তাদের নিত্যসঙ্গী।

প্রিয় সন্তানদের বুকে আকড়ে ধরে নতুন করে বাঁচার চেষ্টা করেন। দুই বেলা দুই মুঠো ভাত সন্তানদের মুখে তুলে দিতে উপায়ান্তর না পেয়ে মা-বাবা কর্মের সন্ধানে গাজীপুর চলে যান। সেখানে নিজে রিকশা আর স্ত্রী ফরিদা বেগম পোশাক কারখানায় কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন। কিন্তু বিধিবাম। ছয় সদস্যের সংসার চালাতে গিয়ে অনেকটা নিরুপায় লুৎফর মিয়া।

অভাব-অনটন ডানা মেলে আরো প্রকট হয়ে ওঠে। চোখের সামনে নেমে আসে ঘোড় অন্ধকার। অনাহার অর্ধাহারে চলতে থাকে তাদের জীবন। এভাবে আর কতদিন। ছোট ছোট ছেলে-মেয়ের ভবিষ্যতের কথা ভেবে তাদের মুখে অন্ন তুলে দিতে অবশেষে ১০ দিনের শিশুপুত্রকে বিক্রির সিদ্ধান্ত নেন তারা। যেমন কথা তেমন কাজ।

গত সোমবার বিকেলে দেলদুয়ার উপজেলার তাতশ্রী গ্রামের নিঃসন্তান মো. রতন মিয়ার কাছে নাড়িছেঁড়া ধন ১০ দিনের শিশুপুত্রকে ২০ হাজার টাকায় বিক্রি করেন লুৎফর মিয়া। রতন মিয়া ১৫ হাজার টাকা নগদ লুৎফরকে দিয়ে আর পাঁচ হাজার টাকা চুক্তিপত্রের সময় পরিশোধ করার অঙ্গীকার করে শিশুপুত্রকে তার বাড়ি নিয়ে যান। এ ব্যাপারে রতন মিয়া জানান, বিবাহিত জীবনে নিঃসন্তান তিনি। সন্তানের অভাব পূরণের জন্য ওই শিশুপুত্রকে কেনা হয়েছে।

এফ/২২:৪০/৩০আগষ্ট

টাঙ্গাইল

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে