Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৮-২৮-২০১৬

মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলে আরো বরাদ্দ দিচ্ছে সরকার

মামুন আব্দুল্লাহ


মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলে আরো বরাদ্দ দিচ্ছে সরকার

চট্টগ্রাম, ২৮ আগষ্ট- চট্টগ্রামের মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলের জন্য নতুন করে এক হাজার ১৬৩ কোটি টাকা বরাদ্দ দিচ্ছে সরকার। এ অর্থে উপকূলের প্রায় ১৮ কি.মি. এলাকা জুড়ে বাঁধ নির্মাণ করা হবে। পুনঃখনন করা হবে ৯টি খালের প্রায় ৩০ কি.মি.। নির্মাণ করা হবে ৯টি স্লুইস গেইট। এ সংক্রান্ত একটি প্রকল্প প্রস্তাবনা জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক)  অনুমোদনের জন্য উপস্থাপন করা হচ্ছে। পরিকল্পনা কমিশন সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

মঙ্গলবার রাজধানীর এনইসি সম্মেলন কেন্দ্রে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া একনেকের বৈঠকে প্রকল্পটি আলোচ্য সূচিতে রয়েছে। সরকারের নিজস্ব তহবিল থেকেই বহন করা হবে এ ব্যয় ভার। এ লক্ষ্যে একটি উন্নয়ন প্রকল্প প্রস্তাব করেছে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়।

সূত্র জানায়, একনেকের অনুমোদন পেলে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করবে বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড। ২০১৯ সালের মধ্যে প্রকল্পের সময়সীমা বেধে দেয়া হবে। প্রকল্পটি  চলতি অর্থবছরের বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির (এডিপি) তালিকা বহির্ভূত। তবে প্রকল্প বাস্তবায়নে চলতি অর্থবছর ৩৩৮ কোটি টাকার প্রয়োজন হবে। প্রকল্পটির কাজ শেষ হলে চট্টগ্রামের মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে রক্ষা পাবে বলে মনে করে পরিকল্পনা কমিশন। এর ফলে চট্টগ্রাম অঞ্চলে শিল্পাঞ্চল প্রতিষ্ঠা, নিরবচ্ছিন্ন সড়ক যোগাযোগ প্রতিষ্ঠার পাশাপাশি জনসাধারণের আয় বৃদ্ধি ও জীবনযাত্রার মানের উন্নতি হবে বলেও আশা কমিশনের। 

প্রকল্পটির বিষয়ে পরিকল্পনা কমিশনের কৃষি, পানি সম্পদ ও পল্লী প্রতিষ্ঠান বিভাগের সদস্য এ এন সামসুদ্দিন আজাদ চৌধুরী বলেন, প্রস্তাবিত প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে মিরসরাই বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে রক্ষা পাবে। ফলে চট্টগ্রাম অঞ্চলে শিল্প প্রতিষ্ঠার পথ সুগম হবে। এছাড়া কর্মসংস্থান সৃষ্টি, আয় ও জীবনযাত্রার মান উন্নয়নে প্রকল্পটি ভূমিকা রাখবে।  

পানিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলের দক্ষিণে রয়েছে বঙ্গোপসাগর। ২ হাজার ৬৭৮ হেক্টর আয়তনের এ অর্থনৈতিক অঞ্চলের প্রায় ১ হাজার ৪৮৬ হেক্টর জমি সাগর হতে উদ্ধার করা হয়েছে। এ অর্থনৈতিক অঞ্চলটি দেশের প্রথম ও সর্ববৃহৎ মাল্টিসেক্টর অর্থনৈতিক এলাকা। এ অর্থনৈতিক অঞ্চলের পাশেই সরকারের উদ্ধার করা ৩৪০ হেক্টর জমি রয়েছে। অর্থনৈতিক অঞ্চলের আওতাভূক্ত হিসেবে এ জমিকেও ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে। এছাড়া প্রকল্প এলাকায় প্রায় কয়েক হাজার হেক্টর জমিতে শিল্প প্রতিষ্ঠান স্থাপনের সম্ভাবনা রয়েছে। ঢাকা চট্টগ্রাম চার লেন মহাসড়কের সঙ্গে এলাকাটির সংযোগ সড়ক থাকায় সড়ক পথে যোগাযোগ স্থাপনও সম্ভব হবে।

পানি উন্নয়ন বোর্ড সূত্র জানায়, বিশেষ এ অর্থনৈতিক অঞ্চলকে প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে সুরক্ষার পাশাপাশি শিল্পাঞ্চল প্রতিষ্ঠায় পানি উন্নয়ন বোর্ড একটি কারিগরি কমিটি গঠন করে।  

আর/১০:১৪/২৮ আগষ্ট

ব্যবসা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে