Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৮-২৪-২০১৬

ডেইলি মেইল-এর বিরুদ্ধে ট্রাম্পের স্ত্রীর আইনি পদক্ষেপ

ডেইলি মেইল-এর বিরুদ্ধে ট্রাম্পের স্ত্রীর আইনি পদক্ষেপ

নিউ ইয়র্ক, ২৪ আগষ্ট- জনপ্রিয় ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইলের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নিয়েছেন রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের স্ত্রী মেলানিয়া ট্রাম্প। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছে, ডেইলি মেইলসহ আরও কয়েকটি সংবাদপ্রতিষ্ঠানকে আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন তিনি। মেলানিয়ার আইনজীবীর দাবি, ডেইলি মেইল মেলানিয়ার বিরুদ্ধে সংবাদের নামে ‘১০০ভাগ’ গুজব প্রকাশ করেছে।

উল্লেখ্য, কিছুদিন আগে একটি স্লোভানিয়ায়ন সংবাদ মাধ্যমকে উদ্ধৃত করে ডেইলি মেইল এক প্রতিবেদনে দাবি করে, ১৯৯০ সালে তিনি মডেলিং এর পাশাপাশি একজন উঁচু শ্রেণীর যৌনকর্মীদের (এসকর্ট)প্রতিষ্ঠানের হয়ে কাজ করতেন। একে গুজব আখ্যা দিয়েছেন মেলানিয়া। মামলা করেছেন ওই সংবাদমাধ্যমের বিরুদ্ধে।

ডোনাল্ড ট্রাম্পের মামলার হুমকি দেওয়ার অতীত ইতিহাস থাকলেও কোনও প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী অথবা তাদের বিবাহিত সঙ্গীদের কেউ নির্বাচনের মাত্র কয়েকমাস আগে কোনও সংবাদমাধ্যমের বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ নিচ্ছেন, এমন ঘটনা দুর্লভ।

মেলানিয়া যে কয়টি সংবাদমাধ্যমের বিরুদ্ধে নোটিস পাঠিয়েছেন সেগুলোর মধ্যে পলিটিকোও একটি। এর আগেও মেলানিয়া পলিটিকোতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে তার অভিবাসন সংক্রান্ত তথ্যের প্রতিবাদ জানিয়েছিলেন।

অন্য আইনি নোটিশ পাওয়া প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে রয়েছে দ্য উইক, ইনকুইজিট, টারপ্লে, লিবারাল আমেরিকা, লনিউজ, বিফোর ইটস নিউজ, বাইপার্টিজান রিপোর্ট ইত্যাদি। 

ট্রাম্পের জন্য কর্মরত আইনি প্রতিষ্ঠান হার্ডার, মিলার অ্যান্ড অ্যাবরামের পক্ষ থেকে প্রকাশিত এক বিবৃতিতে বলা হয়, ‘এই আইনি প্রতিষ্ঠান মেলানিয়া ট্রাম্পের পক্ষ থেকে জানাচ্ছে, মিসেস ট্রাম্প বেশ কয়েকটি সংবাদ প্রতিষ্ঠানকে আইনি নোটিস পাঠিয়েছেন। ডেইলি মেইলও তার মধ্যে একটি।’  

প্রতিষ্ঠানের প্রধান আইনজীবী হার্ডার জানান, এই সংবাদ প্রতিষ্ঠানগুলোর কোনটির বিরুদ্ধেই এখনও মামলা করা হয়নি, শুধুমাত্র নোটিস পাঠানো হয়েছে। নোটিস পাঠানোর অর্থ এই প্রতিষ্ঠানগুলোর দৃষ্টি আকর্ষণ করা ও তাদের সাইট থেকে মানহানিকর প্রতিবেদনগুলো সরিয়ে ফেলা।  

এ প্রসঙ্গে পলিটিকো আইনি নোটিস পাওয়ার কথা স্বীকার করেছে তবে ডেইলি মেইলের পক্ষ থেকে এ বিষয়ে কোন মন্তব্য পাওয়া যায়নি। তবে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম ডেইলি মেইলকে উদ্ধৃত করে ওই তথ্য পরিবেশন করার জন্য ক্ষমাপ্রার্থনা করে বিবৃতি প্রকাশ করেছে ইনকুইজিট ও বাইপার্টিজান রিপোর্ট।

আর/১২:১৪/২৪ আগষ্ট

উত্তর আমেরিকা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে