Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৮-২৪-২০১৬

আগামী সপ্তাহে ঢাকায় আসছেন জন কেরি

রাহীদ এজাজ


আগামী সপ্তাহে ঢাকায় আসছেন জন কেরি

ঢাকা, ২৪ আগষ্ট- বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক জোরদারের বার্তা নিয়ে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি আগামী সপ্তাহে ঢাকায় আসছেন। প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ সফরে এসে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর সঙ্গে বৈঠক করবেন জন কেরি। এ ছাড়া পেশাজীবী, নাগরিক সমাজ ও গণমাধ্যমের একটি প্রতিনিধিদলের সঙ্গে তাঁর মতবিনিময়ের কথা রয়েছে।

সরকারের উচ্চ পর্যায়ের একটি সূত্র গত সোমবার প্রথম আলোকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। খসড়া সফরসূচি অনুযায়ী, জন কেরি ২৯ আগস্ট সকালে জেনেভা থেকে ঢাকায় আসবেন। ওই দিনই তাঁর ঢাকা থেকে দিল্লি যাওয়ার কথা রয়েছে।

ঢাকায় মার্কিন দূতাবাস জন কেরির সম্ভাব্য সফরসূচির বিষয়টি গত রোববার আনুষ্ঠানিকভাবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে জানিয়েছে।

জন কেরির সফরের পূর্বপ্রস্তুতি হিসেবে ঢাকায় মার্কিন রাষ্ট্রদূত মার্শা বার্নিকাট এ মাসে চারবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে বৈঠক করেছেন। গত রোববার তিনি পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাহমুদ আলী ও পররাষ্ট্রসচিব মো. শহীদুল হকের সঙ্গে সফরের বিষয়ে কথা বলেন।

মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে জন কেরির এটি প্রথম ঢাকা সফর হলেও গত পাঁচ বছরে যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের এটি দ্বিতীয় ঢাকা সফর। ২০১২ সালের মে মাসে যুক্তরাষ্ট্রের তখনকার পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটন দুই দিনের সফরে ঢাকায় এসেছিলেন। হিলারি বাংলাদেশ সফর শেষে ভারতে গিয়েছিলেন।

দুই দেশের কূটনৈতিক সূত্রগুলো জানিয়েছে, জন কেরি এমন এক সময়ে ঢাকায় আসছেন, যখন যুক্তরাষ্ট্রে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন ঘনিয়ে আসছে আর বিশ্বজুড়ে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদী হামলা বেড়ে যাওয়ায় বিভিন্ন দেশ ও জোটের সঙ্গে নিরাপত্তা সহযোগিতা বাড়ানোর ওপর জোর দিচ্ছে ওবামা প্রশাসন। ফলে কেরির ঢাকা সফরে দুই দেশের স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয়গুলোর পাশাপাশি সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ দমনের বিষয়টি গুরুত্ব পাবে। তা ছাড়া গুলশানে জঙ্গি হামলার পর বাংলাদেশের নিরাপত্তা পরিস্থিতি নিয়ে বিভিন্ন দেশের উদ্বেগের পরও তাঁর এই সফরের মধ্য দিয়ে প্রমাণিত হয় যে বাংলাদেশের সঙ্গে সম্পর্ক আরও জোরদারের বিষয়ে যুক্তরাষ্ট্রের বিশেষ আগ্রহ রয়েছে।

জানতে চাইলে যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের সাবেক রাষ্ট্রদূত হুমায়ূন কবীর গতকাল মঙ্গলবার সকালে বলেন, ‘কোনো দেশে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সফর ওই দেশের ব্যাপারে যুক্তরাষ্ট্রের আগ্রহ ও গুরুত্ব তুলে ধরে। সেই প্রেক্ষাপট থেকে জন কেরির আসন্ন ঢাকা সফরটির যথেষ্ট তাৎপর্য রয়েছে। বাংলাদেশসহ বিশ্বজুড়ে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে। গুলশানের জঙ্গি হামলার পর বাংলাদেশের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠলেও জন কেরির ঢাকায় আসার মধ্যে প্রতিফলিত হচ্ছে যে এ দেশের ব্যাপারে মার্কিন প্রশাসনের যথেষ্ট আগ্রহ আছে। স্বাভাবিকভাবেই এই সফরে সন্ত্রাস ও জঙ্গি দমনের বিষয়টি বিশেষ গুরুত্ব পাবে। তবে গণতন্ত্র, সুশাসন, উন্নয়ন, বাণিজ্য, মানবাধিকার ও মত প্রকাশের স্বাধীনতার মতো বিষয়গুলো নিয়ে তিনি কথা বলবেন বলে মনে করি।’

কলম্বোভিত্তিক গবেষণা প্রতিষ্ঠান রিজিওনাল সেন্টার ফর স্ট্র্যাটেজিক স্টাডিজের (আরসিএসএস) নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক ইমতিয়াজ আহমেদ গতকাল মঙ্গলবার সকালে বলেন, মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের দিনক্ষণ ঘনিয়ে আসার সময় জন কেরির বাংলাদেশ সফরটা বেশ তাৎপর্যপূর্ণ। সমসাময়িক প্রসঙ্গ হিসেবে স্বাভাবিকভাবেই গুলশানে জঙ্গি হামলাসহ নিরাপত্তার বিষয়টি নিয়ে তিনি কথা বলবেন। এ ছাড়া নির্বাচন, গণতন্ত্র ও সুশাসনের অন্য বিষয়গুলো তিনি জানতে ও বুঝতে চাইবেন। আর ঢাকা থেকে দিল্লি গিয়ে বাংলাদেশ সম্পর্কে ভারতের মূল্যায়ন বোঝার চেষ্টা করবেন।

ওয়াশিংটনের কূটনৈতিক সূত্রগুলো এই প্রতিবেদককে আভাস দিয়েছে, গত জুনে বাংলাদেশ-যুক্তরাষ্ট্র পঞ্চম অংশীদারত্ব সংলাপে অংশ নেওয়ার ফাঁকে পররাষ্ট্রসচিব শহীদুল হক মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার বিশেষ সহকারী পিটার লেভয় ও মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী চিফ অব স্টাফ জনাথন ফিনারের সঙ্গে আলোচনা করেন। ওই আলোচনাগুলোতে জন কেরির ঢাকা সফরের প্রস্তুতি নিয়ে তাঁদের কথা হয়েছে। 

গত বছরের মে মাসে ওয়াশিংটন সফরের সময় জন কেরিকে বাংলাদেশ সফরের আমন্ত্রণ জানান মাহমুদ আলী। ওই আমন্ত্রণে সাড়া দিয়ে ঢাকা সফরের ব্যাপারে বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রীকে কথা দিয়েছিলেন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

আর/১২:১৪/২৪ আগষ্ট

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে