Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৮-২৩-২০১৬

বলিউড থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে হলিউডে নির্মিত হয়েছে যে ১০ সিনেমা

বলিউড থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে হলিউডে নির্মিত হয়েছে যে ১০ সিনেমা

মুম্বাই, ২৩ আগষ্ট- বেশিরভাগ সময় দেখা যায়, হলিউডের সিনেমার কাহিনী থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে বলিউডে নির্মিত হয়েছে হিন্দি ছবি। এমনকি, ছবির কাহিনী থেকে শুরু করে ছবির পোস্টারেও সাদৃশ্য পাওয়া গেছে। তবে মাঝে মধ্যে ভিন্ন চিত্রের অবতারণাও হয়। এই যেমন, এখন যদি আপনি জানতে পারেন, হলিউড থেকে বলিউডে নয়, বরং বলিউড থেকে কাহিনী নিয়ে হলিউডের মত বড় মাধ্যমে নির্মিত হয়েছে সিনেমা- নির্ঘাত অবিশ্বাস্য মনে হবে আপনার কাছে! অবিশ্বাস্য মনে হলেও আদতে ঘটেছে এমন ঘটনা। তেমন ১০টি সিনেমা নিয়ে আমাদের আজকের প্রতিবেদন।


ভিকি ডোনার ও স্টারবাক
ভারতের আগে অন্যান্য পশ্চিমা দেশে সন্তান জন্মদানের জন্য পুরুষেরা স্পার্ম ডোনেট করে থাকলেও এই ভাবনায় সর্বপ্রথম বলিউডে নির্মিত হয় সিনেমা। আয়ুষ্মান খুরানা ও ইয়ামি গৌতম অভিনীত ‘ভিকি ডোনার’ মুক্তি পায় ২০১২ সালে।অভিনেতা জন আব্রাহামের প্রযোজনায় ছবিটি পরিচালনা করেন সুজিত সরকার। এই ছবিটির সঙ্গে সাদৃশ্য পাওয়া যায় ফ্রেঞ্চ কানাডিয়ান সিনেমা ‘স্টারবাক’ এর সঙ্গে।  


অ্যা ওয়েডনেস ডে ও দ্য কমন ম্যান
নিরাজ পান্ডে পরিচালিত ২০০৮ সালের ছবি ‘দ্য ওয়েডনেস ডে’। ছবিতে অভিনয় করেছিলেন নাসিরউদ্দিন শাহ, অনুপম খের, জিমি শেরগিল সহ অনেকে। মজার ব্যাপার হচ্ছে, একই কাহিনী নিয়ে শ্রীলঙ্কার নির্মাতা নির্মাণ করেছেন ‘দ্য কমন ম্যান’ ছবিটি। চান্দ্রান রত্নম পরিচালিত ছবিতে অভিনয় করেছেন বেন কিংসলে। ২০১৩ সালে ছবিটি মুক্তি পায়।


ডর ও ফিয়ার
বলিউডের বিখ্যাত নির্মাতা যশ চোপড়ার ক্লাসিক থ্রিলার ‘ডর’ ছবিটি মুক্তি পায় ১৯৯৩ সালে। ছবিতে অভিনয় করেন শাহরুখ খান, জুহি চাওলা ও সানি দেওল। ছবিটি মুক্তির তিন বছর পর ১৯৯৬ সালে একই কাহিনী নিয়ে হলিউডে নির্মিত হয় ‘ফিয়ার’ ছবিটি। বলা হয়, জেমস ফোলে পরিচালিত ছবিটি নাকি ‘ডর’ ছবির ইংরেজী অনুবাদ। এমনকি কয়েকটি দৃশ্য নাকি হুবহু নকল করে বানানো হয়েছে হলিউডে। 


সঙ্গম ও পার্ল হারবার
আজ থেকে প্রায় ৪০ বছর আগে রাজ কাপুর নির্মাণ করেছিলেন তার বিখ্যাত ‘সঙ্গম’ ছবিটি। ওদিকে ২০০১ সালে হলিউডে নির্মিত হয় ‘পার্ল হারবার’ ছবিটি। বলা হয়, ১৯৬৪ সালের ‘সঙ্গম’ ছবির কাহিনীর সঙ্গে মিল পাওয়া যায় মার্কিন ছবিটির। মাইকেল বে পরিচালিত এই ছবিতে অভিনয় করেন হলিউডের প্রথম সারির অভিনেতা অভিনেত্রীরা। বেন অ্যাফ্লেক, জেনিফার গারনার ও কেট বেকিন্সেল অভিনয় করেন এই ত্রিভুজ প্রেমের গল্পের ছবিতে।


রঙ্গিলা ও উইন অ্যা ডেট উইথ টেড হ্যামিলটন
আমির খান, জ্যাকি শ্রফ ও ঊর্মিলা মাতন্ডকার অভিনীত ত্রিভুজ প্রেমের আরেক বলিউড সিনেমা ‘রঙ্গিলা’। এটি মুক্তি পায় ১৯৯৫ সালে। ওদিকে ২০০৪ সালে হলিউডে মুক্তি পায় রোমান্টিক কমেডি সিনেমা ‘উইন অ্যা ডেট উইথ টেড হ্যামিলটন’। ছবিটির কাহিনী ও পটভূমি এক হলেও সিনেমার মেকিংয়ের জন্য বৈচিত্র্য পাওয়া যায় হলিউডের ছবিটিতে।


অভয় ও কিল বিল
কমল হাসানের অভয় ছবিটি মুক্তি পায় ২০০১ সালে। ওদিকে হলিউডের ‘কিল বিল’ সিরিজের প্রথম ছবিটি মুক্তি পায় ২০০৩ সালে। দুটি ছবির কাহিনীতে মিল না থাকলেও একটি দিকে সাদৃশ্য পাওয়া গেছে। বলিউডের ছবিটি থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে হলিউডের ‘কিল বিল’ ছবির একটি একজন দৃশ্য নির্মাণ করা হয়। মজার ব্যাপার হচ্ছে, বিখ্যাত চলচ্চিত্র ব্যক্তিত্ব কোয়েন্টিন তারেন্টিনো এই ব্যাপারটি প্রকাশ্যে আনেন।


জাব উই মেট ও লিপ ইয়ার 
বলা হয়, ইমতিয়াজ আলীর ‘জাব উই মেট’ ছবিটি থেকে অনুপ্রাণিত হয়ে নির্মিত হয়েছে হলিউডের রোমান্টিক সিনেমা ‘লিপ ইয়ার’। শহীদ কাপুর ও কারিনা কাপুর অভিনীত ছবিটি বলিউডে মুক্তি পায় ২০০৭ সালে। ওদিকে হলিউডের ছবিটি ২০১০ সালে মুক্তি পায়। আনান্দ টাকার পরিচালিত ছবিটিতে অভিনয় করেন অ্যামি অ্যাডামস, ম্যাথিউ গুডি, অ্যাডাম স্কট সহ অনেকে।


চারুলতা ও ফোরটি শেডস অব ব্লু
সত্যজিৎ রায়ের বিখ্যাত বাংলা ছবি চারুলতা মুক্তি পায় ১৯৬৪ সালে। এই ছবিটি থেকেও কাহিনী নিয়ে হলিউডে নির্মিত হয়েছে আধুনিক সিনেমা। মারটিন স্করসিস পরিচালিত ‘ফোরটি শেডস অব ব্লু’ ছবিটি মুক্তি পায় ২০০৫ সালে। দুটি ছবির কাহিনী একটি নারীর একাকিত্ব জীবনযাপন।


ম্যায়নে প্যায়ার কিউ কিয়া ও জাস্ট গো উইথ ইট
বলিউডে রোমান্টিক কমেডি সিনেমা ‘ম্যায়নে প্যায়ার কিউ কিয়া’। মুক্তি পায় ২০০৫ সালে। এতে অভিনয় করেন সালমান খান, সুস্মিতা সেন, ক্যাটরিনা কাইফ, আরশাদ ওয়ার্সি ও সোহেল খান। প্রথমত এটিই ছিল হলিউডের ‘ক্যাকটাস ফ্লাওয়ার’ ছবির রিমেক। এটি মুক্তি পায় ১৯৬৯ সালে। পরে একই কাহিনী নিয়ে আবারও হলিউডে নির্মিত হয় ‘জাস্ট গো উইথ ইট’ ছবিটি। রমান্টিক কমেডি ঘরানার এই ছবিটি ২০১১ সালে মুক্তি পায়। ‘ম্যায়নে প্যায়ার কিউ কিয়া’ সিনেমায় সুস্মিতা সেনের ভূমিকায় ‘জাস্ট গো উইথ ইট’ এ অভিনয় করেন জেনিফার অ্যানিস্টন।


লেডিস ভার্সেস রিকি ভেল ও দ্য আদার ওম্যান
যদিও দুটি ছবির বর্ণনা ও চিত্রায়ন আলাদা, তবে তারপরেও বলিউডের ‘লেডিস ভার্সেস রিকি ভেল’ ছবির সঙ্গে মিল পাওয়া যায় হলিউডের ‘দ্য আদার ওম্যান’ ছবিটির সঙ্গে। রণবীর সিং, আনুশকা শর্মা, পরিণীতি চোপড়া অভিনীত ছবিটি মুক্তি পায় ২০১১ সালে। অপরদিকে হলিউডের ‘দ্য আদার ওম্যান’ ছবিটি মুক্তি পায় ২০১৪ সালে। বলিউডের মত হলিউডের সেই ছবিতেও তিনজন নারী মিলে একজন পুরুষের উপর প্রতিশোধ নেয়। 

আর/১৭:১৪/২৩ আগষ্ট

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে