Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (5 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৮-১৬-২০১৬

সিলেটের আলোচিত ‘হাওয়া ভবন’ এখন নিস্তব্দ

সিলেটের আলোচিত ‘হাওয়া ভবন’ এখন নিস্তব্দ

সিলেট, ১৬ আগস্ট- বিএনপি নেতৃত্বাধীন চারদলীয় জোট সরকারের আমলে প্রভাবশালী নেতাদের মধ্যে অন্যতম ছিলেন আবুল হারিছ চৌধুরী। তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক সচিব হিসেবে ব্যাপক দাপট ছিল বর্তমানে অন্তরালে থাকা এই বিএনপি নেতার। ওই সময়ে ব্যাপক আলোচিত ঢাকার ‘হাওয়া ভবনের’ আশির্বাদপুষ্ট ছিলেন হারিছ চৌধুরী। সেই আশির্বাদের দাপটেই সিলেটের কানাইঘাটে দর্পনগরে নিজের গ্রামের বাড়িতে আরেক ‘হাওয়া ভবন’ গড়ে তুলেছিলেন তিনি। তবে বিএনপি সরকারের আমল শেষে ঢাকার হাওয়া ভবনের সাথে পতন হয় হারিছ চৌধুরীর ‘হাওয়া ভবনে’রও। ওয়ান-ইলেভেনের পর থেকে অদৃশ্য হয়ে যাওয়া হারিছ চৌধুরীর ওই বাড়িটি বর্তমানে নিথর, নিস্তব্দ।

চারদলীয় জোট সরকারের আমলে দুর্দন্ড প্রতাপশালী ছিলেন হারিছ চৌধুরী। বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের মদদপুষ্ট হারিছ চৌধুরীর দাপটে অনেক প্রবীণ, জনপ্রিয় রাজনীতিবিদও ছিলেন কোনঠাসা। রাজনৈতিক প্রভাব খাটিয়ে হারিছ চৌধুরী তার গ্রামের বাড়িতে গড়ে তুলেন বিশাল সাম্রাজ্য। নিজ বাড়িতে পুলিশ ক্যাম্প, ব্যাংকের শাখা, সরকারি অনুদানে দাদার নামে দাতব্য চিকিৎসালয় ও ডাকঘর বসিয়েছিলেন তিনি। এমনকি গড়ে তুলেছিলেন মিনি চিড়িয়াখানাও। তার সেই বিলাসবহুল বাড়ি ‘সিলেটের হাওয়া ভবন’ নামেই পরিচিতি লাভ করে।

রাজনৈতিক দৃশ্যপটের পালাবদলে ওয়ান-ইলেভেনের পর একদিকে পতন ঘটে আলোচিত হাওয়া ভবনের, অন্যদিকে হাওয়া হয়ে যান হারিছ চৌধুরী নিজেই। পতন ঘটে ‘সিলেটের হাওয়া ভবনে’রও। ওয়ান-ইলেভেনের পর বাড়ি থেকে তুলে নেয়া হয় পুলিশ ক্যাম্প ও ডাকঘর। সরকারি অনুদান বন্ধ হয়ে যাওয়ায় তালা ঝুলে দাতব্য চিকিৎসালয়ে। মিনি চিড়িয়াখানা থেকে উদ্ধার করা হয় হরিণসহ বিভিন্ন বণ্যপ্রাণী। বর্তমানে আলোচিত সেই বাড়িটি নিস্তব্দ অবস্থায় পড়ে আছে। বাড়ির চারদিকে বিরাজ করছে শূন্যতা। বিএনপি সরকারের আমলে যে বাড়ি প্রভাবশালী আর ক্ষমতাধর সব ব্যক্তিদের পদচারণায় মখূর থাকতো, সেই বাড়িতে এখন সাধারণ কোনো নেতাকর্মীও পা মাড়ান না। জনশূণ্য বাড়িটি অনেকটা পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে।

এদিকে ওয়ান-ইলেভেনের পর থেকে গায়েব হয়ে যাওয়া হারিছ চৌধুরী এখন কোথায় আছেন, সেই প্রশ্নেরও উত্তর মিলছে না। ওই সময় দেশের শীর্ষ ৫০ দুর্নীতিবাজের তালিকায় নাম আসা, একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা এবং সাবেক অর্থমন্ত্রী সাবেক এএমএস কিবরিয়া হত্যা মামলার আসামী হারিছ এই বিএনপি নেতার সাথে যোগাযোগ নেই পরিবারের সদস্য ও রাজনৈতিক সহকর্মীদেরও। তবে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর ধারণা, দেশের বাইরে কোথাও আত্মগোপনে রয়েছেন হারিছ চৌধুরী।

হারিছ চৌধুরীর চাচাতো ভাই ফখর উদ্দিন চৌধুরী বলেন, হারিছ চৌধুরী কোথায় আছেন, তা আমাদের জানা নেই। আমাদের সাথে তার কোনো যোগাযোগ নেই।

হারিছ চৌধুরীর রাজনৈতিক সহকর্মী, সিলেট জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আলী আহমদ বলেন, হারিছ চৌধুরীর বর্তমান অবস্থান সম্পর্কে আমাদের কিছু জানা নেই।

এদিকে সিলেটের রেঞ্জের ডিআইজি মিজানুর রহমান বলেন, হারিছ চৌধুরী বিদেশে কোথাও আত্মগোপন করে থাকতে পারেন। তার অবস্থান সনাক্তে কাজ করছেন গোয়েন্দারা। তাকে গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনার চেষ্টা চলছে।

এফ/০৯:৫০/১৬আগষ্ট

সিলেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে