Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৮-০৯-২০১৬

ভারতে শুল্কমুক্ত বাণিজ্যের সুফল পাচ্ছে বাংলাদেশ: শ্রিংলা

ভারতে শুল্কমুক্ত বাণিজ্যের সুফল পাচ্ছে বাংলাদেশ: শ্রিংলা

ঢাকা, ০৯ আগষ্ট- গত দুই বছরে ভারত থেকে বাংলাদেশের আমদানি কমলেও রপ্তানি বেড়েছে জানিয়ে ঢাকায় দেশটির হাই কমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা বলেছেন, বাংলাদেশি ব্যবসায়ীরা দুই দেশের শুল্কমুক্ত বাণিজ্যে র সুফল পেতে শুরু করেছেন।

সোমবার মেট্রোপলিটন চেম্বার অফ কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের (এমসিসিআই) এক অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

ভারতের বাজারে বাংলাদেশের পণ্য শুল্কমুক্ত সুবিধা পেলেও বিভিন্ন অশুল্ক বাধার কথা ব্যবসায়ীরা অনুষ্ঠানে তুলে ধরলে জবাবে দুই দেশের বাণিজ্যের  হালনাগাদ তথ্য উপস্থাপন করেন হাই কমিশনার। 

২০১৪-১৫ অর্থবছরে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে দ্বিপক্ষীয় বাণিজ্যের পরিমাণ ছিল ৬৩৪ কোটি ডলার, যার মধ্যে ৫৫৮ বিলিয়ন ডলারের পণ্য  বাংলাদেশিই আমদানি করে। 

হাই কমিশনার বলেন, ওই অর্থবছর বাংলাদেশে ভারতের রপ্তানির পরিমাণ ৩.৬ শতাংশ কমেছে। অন্যদিকে বাংলাদেশের রপ্তানি বেড়েছে ১৫.৪ শতাংশ। 

তার ভাষায়, এটা দুই দেশের বাণিজ্যে প্রতিযোগিতা বাড়ারই ইঙ্গিত। 

হর্ষবর্ধন শ্রিংলা জানান, গত অর্থবছরের জুলাই থেকে মার্চ পর্যন্ত সময়ে বাংলাদেশে ভারতের রপ্তানি আগের বছরের একই সময়ের তুলনায় ৪.৩৬ শতাংশ কমেছে। আর এই সময়ে ভারতে বাংলাদেশের পণ্য রপ্তানি বেড়েছে ৩০.৮ শতাংশ। 

হাই কমিশনার বলেন, ২০০১ সাল থেকে ভারতে বাংলাদেশের রপ্তানির পরিমাণ দশগুণ বেড়েছে। অন্যদিকে বাংলাদেশে ভারতের রপ্তানি বেড়েছে ছয়গুণ।  

“ভারত যেসব পণ্য রপ্তানি করে, তার মধ্যে  উল্লেখযোগ্য হল কাঁচামাল, যা বাংলাদেশের শিল্পখাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখে।”  

এর উদাহরণ দিয়ে তিনি বলেন, ২০১৪-১৫ অর্থবছরে ভারত যে পরিমাণ প‌ণ্য বাংলাদেশের কাছে বিক্রি করেছে, তার মধে বস্ত্র খাতের কাঁচামাল তুলার পরিমাণই ২২.৫ শতাংশ।    

২০১১ সাল থেকে ভারত তামাক ও অ্যালকোহল ছাড়া বাংলাদেশের সব পণ্যে শুল্কমুক্ত সুবিধা দিয়ে আসছে।

“এর ফলে বাংলাদেশের কোম্পানিগুলোর সামনে দারুণ সম্ভাবনার দুয়ার উন্মুক্ত হয়েছে।... ভারত বাংলাদেশের ব্যবসায়ীদের জন্য ভিসা পাওয়াও সহজ করেছে।”

২০১৫ সালের পর থেকে বাংলাদেশের সাত হাজার ব্যাবসায়ী ভারতের পাঁচ বছর মেয়াদী ডাবল এন্ট্রি ভিসা পেয়েছেন বলে তথ্য‌ দেন হাই কমিশনার। 

বাংলাদেশের রপ্তানি আরও বাড়ানোর জন্য আরও বেশি ভারতীয় বিনিয়োগ টানতে সরকারকে পরামর্শ দেন শ্রিংলা। পাশাপাশি এ দেশে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে বাধাগুলো দূর করার আহ্বান জানান। 

এক্ষেত্রে কর্মীদের বেতন দেশে পাঠানো, থানায় নিয়মিত তথ্য দেওয়ার বাধ্যবাধকতা এবং সময়মত ভিসা না পাওয়ার সমস্যার কথা তুলে ধরেন তিনি। 

১ জুলাই হলি আর্টিজান বেকারিতে জঙ্গি হামলার ঘটনায় নিহতদের প্রতি শোক জানিয়ে সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের বাংলাদেশের পাশে থাকার প্রতিশ্রুতির কথাও এ অনুষ্ঠানে পুনর্ব্যক্ত করেন ভারতীয় হাই কমিশনার।

অন্যদের মধ্যে এমসিসিআই সভাপতি সৈয়দ নাসিম মনজুর অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন।

আর/১০:১৪/০৮ আগষ্ট

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে