Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৮-০৮-২০১৬

ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা সনদে চাকরি : ১৯ পুলিশ গ্রেফতার

ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা সনদে চাকরি : ১৯ পুলিশ গ্রেফতার

পাবনা, ০৮ আগস্ট- ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা সনদে সিরাজগঞ্জ জেলায় পুলিশের চাকরি নেয়ায় পাবনায় ১৯ জন পুলিশ কনস্টেবলকে গ্রেফতার করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। সোমবার বিকেলে পাবনার চাঁদাখার বাঁশতলা এলাকা থেকে তাদের গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- সিরাজগঞ্জের বেলকুচি থানার চর জকনালা গ্রামের আবদুর রাজ্জাক মণ্ডলের ছেলে আইয়ুব আলী (কনস্টেবল নং-২৯৮৫৫), আদাচাকি গ্রামের কোরবান মোল্লার ছেলে কামরুল ইসলাম (কনস্টেবল নং-২৬৬৬), দেলোয়াকান্দি গ্রামের সানাউল্লাহ শেখের ছেলে আবদুল কুদ্দুস শেখ (কনস্টেবল নং-২৯৫৪০), চর মেঠুয়ান গ্রামের শহিদ আলীর ছেলে আলী আব্বাস (কনস্টেবল নং-২৯০৮৩), ব্রাহ্মণ গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে মোহাম্মদ আলী (কনস্টেবল নং-২৯৯১৯), আদাচাকি গ্রামের আনসার আলীর ছেলে সবুজ মিয়া (কনস্টেবল নং-২৬৩১), কাজিপুড়া গ্রামের সাইদুল ইসলামের ছেলে আবু হানিফ (কনস্টেবল নং-২৬৩০), আগনুকালী গ্রামের শুকুর শেখের ছেলে সাইফুল ইসলাম (কনস্টেবল নং-২০৫৯২), কোনাবাড়ি গ্রামের আবদুল বারির ছেলে ফেরদৌস (কনস্টেবল নং-১৫০৯১), চর রাইয়পুর গ্রামের শাহাদত হোসেনের ছেলে সাইফুল ইসলাম (কনস্টেবল নং-১৪২৮০), ধুলগাগড়াখালী গ্রামের আজাহার আলীর ছেলে হায়দার আলী (কনস্টেবল নং-২৯৪৬০), লক্ষ্মীপুর গ্রামের আবদুস ছাত্তারের ছেলে বুদ্ধি মিয়া (কনস্টেবল নং-২৭৫৯), তেয়াশিয়া গ্রামের গোবিন্দ সরকারের ছেলে সুমন সরকার (কনস্টেবল নং-২৭৪৬), বিশ্বাসবাড়ি গ্রামের সুজাবত আলীর ছেলে শহিদুল ইসলাম (কনস্টেবল নং-২৯৯৬৩), চরমেটুয়ানি গ্রামের ইউনুস আলীর ছেলে আবদুল আওয়াল (কনস্টেবল নং-২৪৬০৯), চর মধ্য মেটুয়ানি গ্রামের গনি সরকারের ছেলে আমিনুল ইসলাম (কনস্টেবল নং-২৩০৬২), দক্ষিণ বানিয়াগাতি গ্রামের রজব আলীর ছেলে আলামিন (কনস্টেবল নং-২৯২৭৪), বয়রাবাড়ি গ্রামের সানাউল্লাহ মণ্ডলের ছেলে সোহেল রানা (কনস্টেবল নং-২০৭০২) ও বয়রাবাড়ি গ্রামের সোনাউল্লাহ মণ্ডলের ছেলে সুমন আহমেদ (কনস্টেবল নং-২০৮৮১)।

দুদক পাবনা সমন্বিত কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. আবু বকর সিদ্দিক ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, তিন বছর আগে ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা সনদ দিয়ে আসামিরা বাংলাদেশ পুলিশে চাকরি নেন। 

মুক্তিযোদ্ধা সনদে ভুয়া প্রমাণিত হলে তাদের পুলিশ হেড কোয়ার্টারে ক্লোজড করে। পুলিশ হেড কোয়ার্টারের পক্ষ থেকে পুলিশের আরও নুরুল ইসলাম বাদী হয়ে ৩৮ জনকে আসামি সিরাজগঞ্জ থানায় দুর্নীতির মামলা করেন। মামলায় গ্রেফতারকৃত ব্যক্তি ও তাদের অভিভাবকও রয়েছেন।

দুদক পাবনা সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের উপ-সহকারী পরিচালক মো. আবুল কালাম আজাদ মামলাটি তদন্ত করে প্রাথমিকভাবে সত্যতা পান। এরই ধারাবাহিকতায় সোমবার বিকেল ৫টার দিকে ১৯ আসামিকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারের পরপরই তাদের পাবনা আদালতের মাধ্যমে সিরাজগঞ্জ পাঠানো হয়। 

দুদকের পাবনা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক আবু বকর সিদ্দিক আরো জানান, জালিয়াতি চক্রের আরো সদস্যদের গ্রেফতারের জন্য তাদের বিশেষ অভিযান চলছে। 

এফ/২২:১৮/০৮আগষ্ট

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে