Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৮-০৭-২০১৬

প্রেম, বিচ্ছেদ থেকে বন্ধুত্বে যত বলিউড জুটি

প্রেম, বিচ্ছেদ থেকে বন্ধুত্বে যত বলিউড জুটি

মুম্বাই, ০৭ আগষ্ট- তাদের সম্পর্ক শুরু হয় বন্ধুত্ব থেকে। একই সিনেমায় কাজ করতে গিয়ে অভিনয়ের খাতিরে বোঝাপড়ার বিষয়টি যেন এমনিতেই চলে আসে। বিশেষ করে, রোমান্টিক সংলাপ বলা কিংবা ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করতে হলে তো নিজেদের মধ্যে এই জিনিসটির বেশি প্রয়োজন। বেশির ভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায়, সিনেমার পর্দায় ক্যামেরার সামনে প্রেমের অভিনয় করতে গিয়ে সত্যিই প্রেমে পড়ে যান অভিনেতা অভিনেত্রীরা। বলিউডে এমন জুটির সংখ্যা নেহায়েত কম নয় কিন্তু!

পর্দার প্রেম একসময় রূপ নেয় বাস্তবে। কিন্তু সিনেমার মত তো আর বাস্তবে সম্পর্কের শুভ পরিণতি হয় না! বেশিরভাগ ক্ষেত্রে দেখা যায়, এমন মধুর সম্পর্কে ভিলেন হিসেবে প্রবেশ করে অন্যান্য নায়ক নায়িকা, অথবা তাদের বাবা মা। এমনকি সামাজিক প্রেক্ষাপটের কারণেও এমন প্রেমের সম্পর্ক ভেঙ্গে যায়। তবে বলিউডের নায়ক নায়িকারা পর্দায় যেরকম কঠিন ব্যক্তিত্ব ও বিশেষ ক্ষমতার অধিকারী হন, তেমনি বাস্তবেও এমন রূপ দেখান নিজেদের বিচ্ছেদের পর। যেন কিছুই হয় নি এমন ভাব করে আলাদা আলাদা ঘুরে বেড়াতে শুরু করেন এক কালের ঘনিষ্ঠ প্রেমিক প্রেমিকারা। কদিন পর দেখা যায় সাবেক প্রেমিক প্রেমিকার সঙ্গে রুপালি জগতের খাতিরে আবারও একই সেলুলয়েডের ফিতায় বাধা পড়েন তারা। আর প্রেমের বিচ্ছেদ ভুলে তারা গড়ে তোলেন নতুন সম্পর্ক। আর এর নাম দেন ‘বন্ধুত্ব’। বলিউডের তেমন কয়েকটি জুটি নিয়ে বন্ধু দিবসে আমাদের বিশেষ আয়োজন।


সালমান খান-ক্যাটরিনা কাইফ
বলিউড অভিনেত্রী ক্যাটরিনা কাইফ এবং সুপারস্টার সালমান খানের প্রেম এবং পরবর্তীতে তাদের ছাড়াছাড়ির বিষয়টি কারো অজানা নয়। সকলেই জানেন, ২০০৩ সালে ‘বুম’ ছবির মাধ্যমে হিন্দি সিনেমায় অভিষেক করেন ক্যাট। কিন্তু এখানে রয়েছে সালমানেরই হাত। বলিউড ব্যাড বয়ের মাধ্যমেই বলিউড ইন্ডাস্ট্রিতে পা রাখেন ক্যাটরিনা। 

প্রথম সিনেমায় ফ্লপ করলে সালমান তার ভাই সোহেল খানের প্রোডাকশনে কাস্ট করেন ক্যাটরিনাকে। ছবির নাম ‘ম্যায়নে প্যায়ার কিয় কিয়া’। এবারও নায়িকা ফ্লপ। তবুও এই নায়িকার কাছে ধরনা দিতে থাকেন বড় নির্মাতারাই। কারণ আবার সেই একই- সালমান খান। বিভিন্ন পার্টিতে ক্যাটরিনার হাত ধরে পৌঁছুতে শুরু করেন বলিউড ভাইজান। ‘যুবরাজ’ নামের একটি ছবিতে অভিনয়ের সময়  মিডিয়াতে সালমান ক্যাটরিনার প্রেমের সম্পর্কের কথা ছড়িয়ে পরতে সময় লাগে নি।

ওদিকে বড় নামী নির্মাতাদের ছবিতে প্রথম সারির নায়কদের সাথে অভিনয়ের সুবাদে সাফল্য পেতে সময় লাগে নি ক্যাটের। একে একে বাড়তে থাকে তার হিট ছবির সংখ্যা, আর কমতে থাকে সালমানের সঙ্গে সখ্যতা। ‘আজব প্রেম কি গজব কাহানি’ ছবিতে ক্যাটের বিপরীতে ছিলেন রণবীর কাপুর। অভিনয় করতে গিয়ে তাদের বন্ধুত্ব হতে সময় লাগে নি। কদিন পর শোনা গেল, একসঙ্গে ছুটি কাটাতে গিয়েছেন রণবীর-ক্যাটরিনা। ‘রাজনীতি’ ছবিতে আবারও রণবীরের সঙ্গে জুটি বাধেন ক্যাটরিনা। 

ভেঙ্গে যায় ক্যাটের সঙ্গে সালমানের প্রেম। সম্পর্ক থেকে রোমান্স বিদায় নিলেও ‘বন্ধুত্ব’ নামক নতুন মোড়কে প্রকাশ্যে আসতে থাকেন সালমান-ক্যাট। অভিনয় করেন কবির খানের ‘এক থা টাইগার’ ছবিতে। একসঙ্গে ছবির প্রচারনায়ও অংশ নেন। এমনকি সালমানের ‘বিগ বস’ অনুষ্ঠানে নিজের ছবি ‘ফিতুর’এর প্রোমোশন করতে আসেন ক্যাট। সকলের সামনে তারা প্রমান করেন, প্রেম নেই তাতে কি হয়েছে, বন্ধুত্ব তো আছে!


রণবীর কাপুর-দীপিকা পাড়ুকোন 

বন্ধু থেকে প্রেমের পড়া। তারপর ভাঙ্গন। আবারো সেই বন্ধুত্ব। এভাবেই নিজেদের  ভাসিয়ে নিচ্ছেন বলিউড ইন্ডাস্ট্রির একসময়ের রোমান্টিক জুটি দীপিকা পাডুকোন ও রণবীর কাপুর। ২০০৮ সালে ‘বাচনা এয় হাসিনো’ ছবিতে একসঙ্গে কাজের সুবাদে বন্ধুত্ব তাদের। সম্পর্ক প্রেমের দিকে গড়াতে সময় লাগে নি। 

এরপর বিভিন্ন অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে একসঙ্গে উপস্থিত হতে শুরু করেন তারা। সঙ্গে থাকতেন রণবীরের বাবা মা ঋষি কাপুর ও নীতু সিং। কয়েক বছর চুটিয়ে প্রেম করলেও ক্যাটরিনার আবির্ভাবে দীপিকাকে ভুলে যান রণবীর। শুরু হয় দীপিকার একলা পথ চলা। এই বিচ্ছেদ কাজে লাগান বলিউড নির্মাতা করণ জোহর। প্রাক্তন প্রেমিক জুটি নিয়ে সিনেমা বানানোর এক্সপেরিমেন্ট করতে চাইলেন তিনি। সফলও হলেন তিনি। ছবির নাম ‘ইয়ে জাওয়ানি হ্যায় দিওয়ানি’। 

পুরনো জুটিকে ফিরে পেয়ে দর্শক হুমড়ি খেয়ে পড়ল প্রেক্ষাগৃহে। ওদিকে নিজেদের বিবাদ ভুলে মন প্রান ঢেলে সিনেমায় অভিনয় করলেন রণবীর ও দীপিকা। এবার আর প্রেম নয়, নতুন সম্পর্কের নাম দিলেন ‘বন্ধুত্ব’। সেই বন্ধুত্ব থেকে আবারও পর্দায় জুটি বাঁধেন তারা। এবারের ছবির নাম ‘তামাশা’। তবে ইমতিয়াজ আলীর এই ছবিটি তেমন দর্শক প্রিয়তা পায় নি। কিন্তু সফল ছিল রণবীর-দীপিকার রসায়ন। সবই যেন বন্ধুত্বের কৃতিত্ব!


রণবীর সিং-আনুশকা শর্মা
তাদের সম্পর্কের শুরু ২০১০ সাল থেকে। আদিত্য চোপড়ার যশরাজের ব্যানারে ইন্ডাস্ট্রিতে পা রাখেন রণবীর সিং। ছবির নাম ‘ব্যান্ড বাজা বারাত’। বিপরীতে অভিনয় করলেন ‘রব নে বানা দি জোড়ি’ খ্যাত আনুশকা শর্মা। সিনেমায় ঘনিষ্ঠ দৃশ্যে অভিনয় করতে গিয়ে সত্যিই ঘনিষ্ঠ হয়ে গেলেন রণবীর-আনুশকা। তাদের সম্পর্কের চমৎকার রসায়ন চোখ এড়ায় নি দর্শকের। 

ফলাফল ছবি সুপার হিট। অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে একসঙ্গে উপস্থাপনা  ও পারফর্ম করেন রণবীর-আনুশকা। আলোচিত হয় তাদের জুটি। সেই জেরে আবারও সিনেমায় জুটি বাঁধলেন তারা। ‘লেডিজ ভার্সেস রিকি ভেল’ শিরোনামের এবারের ছবিটিও সফল। কিন্তু রণবীরের মন টিকলো না আনুশকায়। ‘লুটেরা’ ছবিতে অভিনয় করতে গিয়ে সহ অভিনেত্রী সোনাক্ষী সিনহার প্রেমে পড়ে যান তিনি। ওদিকে আনুশকাও খুঁজে নেন তার সঙ্গী। তিনি মন দেন ভারতীয় জাতীয় দলের ক্রিকেটার বিরাট কোহলিকে। 

বিরাট-আনুশকার প্রেম সফল ভাবে চলতে শুরু করলেও ভেঙ্গে যায় রণবীর-সোনাক্ষীর সম্পর্ক। কিন্তু ততদিনে তিক্ততার জন্ম নেয় নি রণবীর-আনুশকা সম্পর্কে। এখনও দেখা হলে একে অপরকে এড়িয়ে যান না। বরং একে অপরের সঙ্গে বন্ধু সুলভ আচরণ করেন। কদিন আগে আনুশকার মুক্তি পাওয়া ‘সুলতান’ ছবির প্রোমোশন করেন রণবীর। প্যারিসের থিয়েটারে ‘সুলতান’ গানের তালে নাচেন তিনি। ওদিকে আনুশকাও হাসিমুখে রণবীরের এমন পারফরমেন্সের মন্তব্য করেন।


আদিত্য রয় কাপুর-শ্রদ্ধা কাপুর
২০১৩ সালের হিন্দি সিনেমার সেরা মিউজিক্যাল হিট ‘আশিকি ২’ ছবিতে অভিনয়ের মাধ্যমে একে অপরের কাছে আসেন শ্রদ্ধা কাপুর এবং আদিত্য রায় কাপুর। বেশ কিছুদিন তাদেরকে প্রেম করতে দেখা গেলেও গত বছরেই সম্পর্ক ছিন্ন করেন এই জুটি। ‘আশিকি ২’ ছবিটি আদিত্য-শ্রদ্ধার জন্য প্রথম বড় সিনেমা ছিল। দুজনেই তখনও সাফল্যের মুখ দেখেননি। 

ছবিটি করার সময়েই দুজনের বন্ধুত্ব গড়ে ওঠে। একসাথে ছুটি কাটাতে, এমনকি শ্রদ্ধার বাড়িতেও দুজনকে একসঙ্গে দেখা যেত। কিন্তু আদিত্য-শ্রদ্ধা জুটির সম্পর্কে নানা সমস্যা ছিল। শ্রদ্ধার পরিবার কখনও আদিত্যকে মেনে নেয়নি। শ্রদ্ধার মায়ের বক্তব্য ছিল, মাত্র ক্যারিয়ার শুরু হয়েছে শ্রদ্ধার। এর মধ্যে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়লে ক্যারিয়ারের ক্ষতি হতে পারে। তবে আদিত্যের পরিবার শ্রদ্ধাকে বেশ পছন্দ করত। ভাবি বিদ্যা বালান অনেকবার শ্রদ্ধার সঙ্গে কথা বললেও তাদের সম্পর্কের সমস্যা মেটেনি।

এরপরই শ্রদ্ধা একের পর এক হিট সিনেমা উপহার দেন বলিউডে- ‘এক ভিলেন, ‘হায়দার’, ‘এবিসিডি ২'। অন্যদিকে ‘দাওয়াত-এ-ইশক’ ছাড়া আদিত্যের ঝুলিতে ছিল না কোনও ছবি। ক্যারিয়ারের কারনেই দুই তারকার মধ্যে সমস্যা লেগেই থাকত। এবং এই কারনেই তাদের প্রেমের সম্পর্ক ক্রমশ খারাপের দিকে যায়। পরিশেষে প্রেমের সম্পর্কে ইতি টানেন আদিত্য-শ্রদ্ধা।

তবে প্রেম না থাকলেও বন্ধুত্ব নামক নতুন সম্পর্ক তৈরি করে আবারও পর্দায় জুটি বেঁধেছেন তারা। করণ জোহরের ধর্ম প্রোডাকশন থেক সাদ আলির পরিচালনায় ‘ওকে জানু’ ছবিতে দ্বিতীয়বারের মতো জুটিবদ্ধ হয়েছেন তারা। জানা যায়, এই ছবিতে নাকি বেশ কয়েকটি ঘনিষ্ঠ দৃশ্য রয়েছে  আদিত্য-শ্রদ্ধার। তবে বন্ধু নামক সম্পর্ক তৈরি হওয়ায় সিনেমাটিতে কাজ করতে তেমন অসুবিধা হয় নি তাদের।


বরুণ ধাওয়ান-আলিয়া ভাট
অভিনয় করতে এসে প্রণয়ে জড়িয়ে পড়া বলিউডপাড়ায় নতুন কিছু নয়। আলিয়া ভাট আর বরুণ ধাওয়ান এক্ষেত্রে ব্যতিক্রম নয়। ২০১২ সালে করণ জোহর পরিচালিত রোমান্টিক কমেডি সিনেমা ‘স্টুডেন্ট অব দ্য ইয়ার’-এ অভিনয়ের মধ্য দিয়ে বলিউডে অভিষেক ঘটে আলিয়া ভাট ও বরুণ ধাওয়ানের। সিনেমায় কাজ করতে গিয়েই নাকি প্রেমের সম্পর্কে জড়ান তারা। 

গত বছর যখন আলিয়া ও বরুণ অভিনীত ‘হাম্পটি শর্মা কি দুলহানিয়া’ মুক্তি পায়, তখন প্রেমের আকাশে রীতিমতো ডানা মেলে উড়ছেন দুজনে। যদিও এ সম্পর্ক বন্ধুত্বের মধ্যেই সীমাবদ্ধ বলে মিডিয়ার কাছে বরাবরই বলে আসছিলেন তারা। যা-ই হোক, বছর ঘুরতে না ঘুরতেই, নতুন দিকে মোড় নেয় এ সম্পর্ক। বরুণ ফিরে যান সাবেক প্রেমিকা নাতাশার কাছে। বাধ্য হয়েই রাস্তা ছেড়ে দিতে হয় আলিয়াকে। কাজেই আর বলার অপেক্ষা রাখে না যে, অঙ্কুরেই সম্পর্কের ইতি টানতে হয়েছে দুজনকে। 

তবে আলিয়াও একা হয়ে যান নি। পেয়েছেন প্রাক্তন সহ অভিনেতা সিদ্ধার্থ মালহোত্রাকে। নতুন প্রেমের সম্পর্কে জড়িয়েছেন দুজন। তাদের প্রেম এখন বলিউডের ওপেন সিক্রেট। তবে অভিনয়ের খাতিরে বরুণের সঙ্গেও কাজ করছেন আলিয়া। ‘হাম্পটি শর্মা কি দুলহানিয়া’ ছবির সাফল্যের পর আবারও জুটি বেঁধেছেন তারা। এবারের ছবির নাম ‘বাদ্রিনাথ কি দুলহানিয়া’। আর এতকিছু সম্ভব হচ্ছে ‘বন্ধু’ নামক সম্পর্কটির জন্য।

আর/১৭:১৪/০৭ আগষ্ট

বলিউড

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে