Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 1.5/5 (2 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৮-০৬-২০১৬

পরিবার নিয়ে নৌকায় ৬ বছর!

আরিফুল ইসলাম


পরিবার নিয়ে নৌকায় ৬ বছর!

পিরোজপুর, ০৬ আগষ্ট- বেদে সাধারণভাবে বাদিয়া বা বাইদ্যা নামে পরিচিত একটি ভ্রাম্যমাণ জনগোষ্ঠী। কথিত আছে, ১৬৩৮ খ্রিস্টাব্দে শরণার্থী আরাকানরাজ বল্লাল রাজার সাথে এরা ঢাকায় আসে। পরবর্তীকালে তারা ইসলাম ধর্মে দীক্ষা নেয়। এরা প্রথমে বিক্রমপুরে বসবাস শুরু করে এবং পরে সেখান থেকে বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চলে, এমনকি ভারতের পশ্চিমবঙ্গ ও আসামেও তারা ছড়িয়ে পড়ে। বেদেরা জন্মগত ভাবে এক অঞ্চল থেকে অন্য অঞ্চলে নৌকায় চরে পাড়ি জমায়। পরিবেশ মেনে নিয়ে চলতে পারে।

কিন্তু নদী ভাঙ্গনের ফলে বর্তমানে বাংলাদেশী নাগরিক বেদেরা কঠিন জীবন যাপন করছেন, তাদের বিষয়ে সরকার আথবা বেসরকারি প্রতিষ্ঠান তেমন খেয়াল রাখছেন না। পিরোজপুর জেলার স্বরুপ কাঠি উপজেলার উপরদিয়ে বয়ে গেছে সন্ধা নদী। এ নদীর পানিতে এক সন্তান ও স্ত্রীকে নিয়ে ছয় বছর যাবৎ ভেসে বেড়াচ্ছেন বাংলাদেশী নাগরীক উৎপল বাবু। আধুনিক যুগে মানুষ যেখানে পৃথিবী সম্পর্কে জানতে আগ্রহী সেখানে এ পরিবার নিজেদের জীবন রক্ষার সংগ্রামে ব্যাস্ত।

উৎপলের কোন সম্পদ নেই, রয়েছে শুধু যুদ্ধ করে বেঁচে থাকার সাহস আর সঙ্গী রয়েছে ছেলে, স্ত্রী ও একটি নৌকা। জন্মগত ভাবে উত্পল বাঙ্গালী। তার বাবার এক সময় জায়গা-জমি সবকিছুই ছিল এখন সে সব জমি নদীর পানিতে বিলীন হয়ে গেছে।

উত্পল জানান, আমাদের জায়গা -জমি নদীতে বিলীন হয়ে গেছে আমাদের মাথা গোজার কোন ঠাই নেই। স্ত্রী সন্তান নিয়ে ৬ বছর যাবৎ নদীর পানির উপর বসবাস করছি। ঝড় বৃষ্টি যাই হক আমাদের এ নৌকাতে থাকতে হয়, ঘুম রান্না থেকে শুরু করে সব কিছু নৌকার উপরে সারতে হয়। একবেলা খাবার পেলে আরেক বেলা অনাহারে থাকি। সরকারি বেসরকারি কোন সহযোগিতা আমি পাইনি।

ছেলেকে স্কুলে পাঠান কি না জানতে চাইলে উত্পল বলেন, আমি নদীতে মাছ ধরে জিবিকা অর্জন করি। পড়ালেখার তেমন সুযোগ পাইনি। ভেবেছিলাম আমার ছেলেকে পড়া লেখা শেখাব। কিন্তু সেটি সম্ভব হচ্ছে না। আমাদের নির্দিষ্ট কোন মাথা গোজার ঠাই নেই আজ এখানে ত কাল আরেক খানে যেতে হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বাংলাদেশে উত্পলের মত হাজারো মানুষ নদী ভাঙ্গনের ফলে জায়গা- জমি হারিয়ে বেদের মত পানিতে বসবাস করছেন। সরকার ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠান শহর কেন্দ্রিক মানুষের খোঁজ খবর রাখলেও এসব অবহেলীত মানুষের খবর কেউ রাখছে না। এসব মানুষ জন্মগত ভাবে বেদে না হয়েও সব সময় মৃত্যুর সাথে যুদ্ধ করে বেঁচে থাকে

এফ/১৮:৩০/০৬আগষ্ট

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে