Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৮-০৩-২০১৬

‘আমার মাকে মুক্তি দিবেন না’  

‘আমার মাকে মুক্তি দিবেন না’

 

ওয়াশিংটন, ০৩ অগাস্ট- তাকে মুক্তি দেবেন না, তার হাত থেকে শিশুরা এখনও নিরাপদ নয়। এই হচ্ছে আদালতকে মায়ের বিরুদ্ধে মেয়ের আবেদন। কিন্তু কী এমন করেছিলেন ওই মা, যে কারণে নিজের সন্তানই তার বিরুদ্ধে আদালতে দাঁড়ালো মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের আলবামা রাজ্যের ওই মায়ের নাম মেলিসা রাইট (৪০) এবং মেয়ের নাম অ্যাশলি স্মিথ (১৫)।

২০০৩ সালে অ্যাশলির বয়স যখন মাত্র ১৪ মাস, তখন তাকে ছয়শ' ডিগ্রি তাপমাত্রার একটি ওভেনে ছুড়ে মেরেছিলেন মা মেলিসা।

প্রথমে মা একে দুর্ঘটনা বলে দাবি করেছিলেন।পরে আদালতে প্রমাণিত হয় তিনি এটি ইচ্ছাকৃতভাবে করেছিলেন। এর জন্য তার ২৫ বছরের কারাদণ্ড হয়।

আলবামার সংবাদ মাধ্যম ডব্লিউএসএফএ জানিয়েছে, মেলিসা ওভেনটির ঢাকনা খুলে একে উত্তপ্ত করেন, পরে বাচ্চাটিকে এর ভেতরে ছুড়ে ফেলেন।

বাচ্চাটির চিৎকার শুনে তার বাবা রান্না ঘরে ছুটে আসেন।তিনি দগ্ধ মেয়েকে ওভেন তুলে নিয়ে হাসপাতালে ছুটে যান। পরে ২৫টি অস্ত্রোপাচারের মধ্য দিয়ে সেরে ওঠে মেয়েটি। সেই বাচ্চাটি এখন ১৫ বছরের কিশোরী অ্যাশলি স্মিথ।

মা মেলিসা ২৫ বছরের দণ্ড ভোগের আগেই কারাগার থেকে মুক্তি পেতে সম্প্রতি আদালতে আবেদন করেন। কিন্তু মায়ের এই আবেদনের বিরোধিতা করে অ্যাশলি। তার দাবি, বাড়িতে তাদের ছোট ছোট ভাতিজা-ভাতিজী রয়েছে। মাকে মুক্তি দিলে এই বাচ্চাদের জীবন হুমকির মুখে পড়বে।

অ্যাশলি বলে, সত্যিই আমি তাকে (মা) বিশ্বাস করতে পারছি না। তার কাছ থেকে বাচ্চাদের নিরাপদ থাকার ব্যাপারে আমি ভীত।

মায়ের বর্বরতার শিকার মেয়েটি বলে, আমি যে ভয়াবহ কষ্ট সহ্য করেছি, কারও ক্ষেত্রেই এমনটা হোক তা কল্পনাও করতে পারি না। আমি মেলিসাকে ঘৃণা করি না। তবে তাকে আমি ভালোও বাসি না। আমি মেলিসাকে ভুলে গেছি।

অবশেষে মেয়ের আপত্তির মুখে আলবামা রাজ্য প্যারোলে বোর্ড মেলিসার আগাম মুক্তির আবেদন প্রত্যাখ্যান করেছে। এমনকি ২০২১ সালের আগে তিনি প্যারোলে মুক্তির জন্য উপযুক্তও বিবেচিত হবেন না।

উত্তর আমেরিকা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে