Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 1.5/5 (2 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৭-২৮-২০১৬

দুটি অর্থনৈতিক অঞ্চল পেল বসুন্ধরা গ্রুপ

দুটি অর্থনৈতিক অঞ্চল পেল বসুন্ধরা গ্রুপ

ঢাকা, ২৮ জুলাই- ঢাকার অদূরে দক্ষিণ কেরানীগঞ্জে দুটি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার প্রাথমিক অনুমোদন পেয়েছে বসুন্ধরা গ্রুপ।

বৃহস্পতিবার ঢাকার কারওয়ান বাজারে বাংলাদেশ অর্থনৈতিক অঞ্চল কর্তৃপক্ষেল (বেজা) কার্যালয়ে বসুন্ধরা গ্রুপের উপদেষ্টা মোহাম্মদ মাহবুব হায়দার খানের হাতে দুটি অর্থনৈতিক অঞ্চলের প্রাকযোগ্যতা সনদ তুলে দেন বেজার নির্বাহী চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী।

এর আগে আমান গ্রুপ, বে গ্রুপ, আরিশা গ্রুপ, আব্দুল মোনেম গ্রুপ, মেঘনা গ্রুপ ও ইউনাইডেট গ্রুপসহ আটটি বেসরকারি শিল্প প্রতিষ্ঠানকে অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার অনুমোদন দেওয়া হয়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী মোট ১০০টি অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা ও এক কোটি মানুষের কর্মসংস্থান সৃষ্টির মাধ্যমে দেশকে মধ্যম আয়ের পর্যায়ে উন্নীত করার প্রচেষ্টায় যুক্ত রয়েছে বেজা।

বৃহস্পতিবার বসুন্ধরা গ্রুপকে ‘বসুন্ধরা স্পেশাল ইকোনমিক জোন লিমিটেড’ ও ‘ইস্ট-ওয়েস্ট স্পেশাল ইকোনমিক জোন লিমিটেড’ নামের নতুন দুটি অর্থনৈতিক অঞ্চলের প্রাকযোগ্যতা সনদ দেওয়া হয়েছে।

বসুন্ধরা গ্রুপের কর্মকর্তারা জানান, রাজধানী থেকে মাত্র ১৫ কিলোমিটার দূরে দক্ষিণ হাজারীবাগ, কোন্ডা ও দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ এলাকার প্রায় ২২৪ একর জমির ওপর ‘বসুন্ধরা স্পেশাল ইকোনমিক জোন’ করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। এর মধ্য ১৩৮ দশমিক ৯৯ একর জমির ক্রয়পক্রিয়া শেষ, বাকি ৮৪ দশমিক ৩৯ একর জমি ক্রয়ের পর্যায়ে রয়েছে।

রাজধানী থেকে একই দূরত্বে কোন্ডা ও দক্ষিণ কেরানীগঞ্জ এলাকায় পৃথক ২১৮ একর জমির ওপর ‘ইস্ট-ওয়েস্ট স্পেশাল ইকোনমিক জোন করা হচ্ছে। সেখানেও ১৩৭ দশমিক ৭৩ একর জমি কেনা হয়েছে, বাকিটা ক্রয়ের প্রক্রিয়ায় রয়েছে।

এসব অর্থনৈতিক অঞ্চলে ভারী ও মাঝারি শিল্প কারখানা গড়ে তোলা হবে বলে জানান বসুন্ধরা গ্রুপের প্রধান উপদেষ্টা মাহবুব হায়দার।

তিনি বলেন, এ দুটি জোনে পেট্রোলিয়াম অয়েল রিফাইনারি, স্টিল অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং, সিলিন্ডার ম্যানুফ্যাকচারিং (এলপিজি), এলপিজি বোটলিন প্ল্যান্ট এবং ফুড অ্যান্ড বেভারেজ কারখানা গড়ে তোলা হবে। বিদেশি বিনিয়োগকারীরাও এখানে বিনিয়োগ করতে পারবেন।

বেজার নির্বাহী চেয়ারম্যান পবন চৌধুরী বলেন, ব্যবসায়ীরা যাতে ঝামেলামুক্তভাবে নির্বিঘ্নে তাদের শিল্প প্রতিষ্ঠান স্থাপনের কাজ এগিয়ে নিতে পারে বেজা সেই উদ্যোগটি গ্রহণ করছে।

“ব্যুরোক্রেসি দুর্নীতি প্রবণ- এমন ধারণার কারণে অনেক সময় ব্যবসায়ীরা বিনিয়োগ করতে আসেন না। কিন্তু বেজার সঙ্গে কাজ করে তাদের সেই অভিজ্ঞতা হয়নি। বরং আরও নতুন নতুন নীতি সহায়তা তৈরির মাধ্যমে সবার জন্য বিনিয়োগের দ্বার উন্মুক্ত করার প্রতিশ্রুতি রয়েছে বেজার,” বলেন তিনি।

আর/১৭:১৪/২৮ জুলাই

ব্যবসা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে