Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 2.9/5 (7 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৭-২৭-২০১৬

মেয়র পদে লড়বেন নাসিম, সংসদে শাহরিয়ার ও কাহের শামীম!

মেয়র পদে লড়বেন নাসিম, সংসদে শাহরিয়ার ও কাহের শামীম!

সিলেট, ২৭ জুলাই- সাবেক অর্থমন্ত্রী কিবরিয়া হত্যা মামলায় কারান্তরিণ রয়েছেন সিলেট সিটি করপোরেশনের (সিসিক) সাময়িক বহিস্কৃত মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। এই মামলার সুরাহা হওয়ার আগেই দিরাইয়ে সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের উপর গ্রেণেড হামলার মামলায় জড়িয়ে গেছেন আরিফ। ওই মামলায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে আবেদন করেছেন তদন্তকারী কর্মকর্তা।

এ অবস্থায় আরিফুল হক চৌধুরীর কারামুক্তি ও মেয়র পদ ফিরিয়ে পাওয়া নিয়ে শঙ্কিত দলের নেতাকর্মীরা। আরিফের সাজা হয়ে গেলে সিটি করপোরেশনের নির্বাচনে মেয়র পদে কোন নেতাকে প্রার্থী করা যায় তা নিয়ে ভাবতে শুরু করেছেন দলের নেতারা। সেই সাথে তাদের চিন্তা ভাবনায় রয়েছে সংসদ নির্বাচনে সিলেটের বিভিন্ন আসনে প্রার্থী ঠিক করা।

দলীয় সূত্রে জানা যায়- আরিফের বিকল্প খুঁজতে গত সোমবার রাতে মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইনের বাসায় মহানগর বিএনপির শীর্ষ নেতারা গোপন বৈঠক করেন। ওই সভায় আরিফুল হক চৌধুরীর মামলাগুলোর বর্তমান অবস্থা নিয়ে ব্যাপক আলোচনা হয়। সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের উপর গ্রেণেড হামলার মামলায় আরিফকে জড়ানোর কারণে তার ভবিষ্যত রাজনীতি নিয়ে অনেকে শঙ্কা প্রকাশ করেন। সাবেক অর্থমন্ত্রী শাহ এএমএস কিবরিয়া হত্যা মামলা বা সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের উপর হামলার মামলার কোনটায় সাজা হয়ে গেলে আরিফুল হক চৌধুরী মেয়র পদ থেকে স্থায়ীভাবে বহিস্কৃত হবেন। তখন উপনির্বাচন হলে বিএনপি থেকে মেয়র প্রার্থী কে হবেন এনিয়ে বৈঠকে আলোচনা করেন দলীয় নেতারা। বৈঠকে আরিফের বিকল্প হিসেবে মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইন যোগ্য প্রার্থী হিসেবে মত দেন উপস্থিত নেতৃবৃন্দ। নাসিম হোসাইন বিগত সিটি নির্বাচনেও দলীয় মনোনয়ন প্রত্যাশী ছিলেন। 

এদিকে, শমসের মুবিন চৌধুরী বিএনপিতে ফিরে আসার সম্ভাবনা না থাকায় আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেট-১ আসনে মহানগর বিএনপির সাবেক আহ্বায়ক ডা. শাহরীয়ার হোসেন চৌধুরী, সিলেট-৬ আসনে সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি আবুল কাহের শামীম ও সুনামগঞ্জ-২ আসনে মহানগর বিএনপির সাবেক আহ্বায়ক কমিটির সদস্য মাহবুব চৌধুরী দলীয় প্রার্থী হওয়ার পক্ষে মতামত দেন উপস্থিত নেতারা। এছাড়া বৈঠকে আরিফুল হক চৌধুরীকে সুরঞ্জিত সেনগুপ্তের উপর গ্রেণেড হামলার মামলায় জড়ানোর প্রতিবাদে বিক্ষোভ সমাবেশ করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয় বলে দলীয় সূত্র নিশ্চিত করেছে। 

মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- মহানগর বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক মিফতাহ সিদ্দিকী, মহানগর বিএনপির সাবেক আহ্বায়ক কমিটির সদস্য এডভোকেট হাবিবুর রহমান হাবিব, একে আহাদুস সামাদ চৌধুরী, এডভেকেট ফয়জুর রহমান জাহেদ, হুমায়ূন কবীর শাহীন, মাহবুব চৌধুরী, এমদাদ হোসেন চৌধুরী, সৈয়দ মঈনুদ্দীন সুহেল, সৈয়দ রেজাউল করিম আলো, মুকুল মুর্শেদ। 

তবে বৈঠকে সিটি করপোরেশন বা সংসদ নির্বাচন নিয়ে কোন আলোচনা হয়নি দাবি করে মহানগর বিএনপির সভাপতি নাসিম হোসাইন বলেন- ‘ওই বৈঠকটি আনুষ্ঠানিক ছিল না। পূর্ণাঙ্গ কমিটি না থাকায় মহানগর বিএনপির সাবেক আহ্বায়ক কমিটির নেতাদের নিয়ে একসাথে বসেছিলাম। এসময় দলীয় আলাপ আলোচনার পাশাপাশি আরিফুল হক চৌধুরীকে নতুন আরেকটি মামলায় জড়ানোর ঘটনায় নগরীতে বিক্ষোভ কর্মসূচি পালনের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।’

এফ/০৭:৫০/২৭জুলাই

সিলেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে