Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৭-২১-২০১৬

রোমান্স আবেদনে কোন রাশি কেমন?

রোমান্স আবেদনে কোন রাশি কেমন?

মঙ্গল হল যৌনতা, যুদ্ধ এবং শক্তির দেবতা আর এ সবকিছুই ফুটে ওঠে মেষ রাশির জাতক-জাতিকার জীবনে। দৈহিক প্রেমের ক্ষেত্রে শক্তি প্রয়োগে পারঙ্গম এই মানুষেরা দুর্দান্ত প্রেমিক হিসেবে পরিচিত। কিন্তু বেস্ট পারফরম্যান্সের জন্য আপনাকে ব্যাটবল চালাতে হবে সমানতালে। আর খেলার মাঠের কাটাছেঁড়া, রক্ত বা অন্য কোনো লাভ বাইট দেহজ প্রেমকে যেন করে তোলে আরো আকর্ষণীয়।

বৃষ: ভালোবাসাই সব... পারদর্শী ভেনাসের প্রত্যক্ষ প্রভাব রয়েছে এই রাশির জাতক জাতিকার ওপর। এরা দৈহিক ভালোবাসার ক্ষেত্রে একই সঙ্গে খুব সংবেদনশীল এবং শক্তিমত্তা প্রয়োগে পারঙ্গম। যৌনতার স্ট্যামিনা বা শক্তির দিক থেকে এদের জুড়ি মেলা ভার। ক্লান্তিবিহীন, সদাপ্রস্তত এবং ছন্দময় দৈহিক সম্পর্কের গ্যারান্টি দিয়ে থাকে এই রাশির মানুষেরা।

মিথুন: বুধ গ্রহের প্রভাবে সদাসর্তক মনোভাব, মিষ্টভাষী, আদুরে আর খুনসুটিপূর্ণ ব্যক্তিত্ব নিয়ে এই রাশির জাতক-জাতিকা রয়েছে মহাসুখে। শুদ্ধ 'কথা' দিয়েই অপর মানুষদের বশ করতে এদর জুড়ি নেই। যৌনতার বিভিন্ন এক্সপেরিমেন্টাল দিক এই রাশির মানুষদের টানে। আপনার মিথুন প্রেমিক/প্রেমিকাকে আপনি শয্যায় পেতে পারেন ঠিক যেভাবে আপনি চান।

কর্কট: দৈহিক প্রেমের ক্ষেত্রে কর্কট রাশির জাতক জাতিকার সাহচর্য রোলার কোস্টার রাইডের মতো। এই চরম আনন্দের শিখরে তো এই শান্তশিষ্ট, ভাজা মাছটি উল্টে খেতে না জানার মতো হাবভাব। তাই এদের সঙ্গে কোনো কিছু করার সময় সারপ্রাইজড হওয়ার প্রস্তুতি থাকতে হবে পুরোদস্তুর।

সিংহ: প্রেমিক-প্রেমিকা হিসেবে বিখ্যাত সিংহ দৈহিক সম্পর্কের ক্ষেত্রেও নিজরে সুনামের সঙ্গে অবিচার করেনি। যে কোনো প্রগাঢ় সম্পর্কের ক্ষেত্রেই এদের ইতিবাচক মনোভাব, হাস্যরস আর শরীরিক দক্ষতা তুলনাহীন। সিংহ রাশির কাউকে ভালবাসার মানুষ হিসেবে পাওয়া সত্যিই ভাগ্যের ব্যাপার।

কন্যা: নিখাদ ভালবাসা আর দুর্দান্ত সেক্সের অসাধারণ প্যাকেজ আপনাকে উপহার দিতে পারেন কন্যা, পুরুষ বা মহিলা। কান, ঠোঁট বা স্তনের সংবেদনশীলতা এ রাশির মানুষের অতিমাত্রায় বেশি আর দেহজ ভালবাসার ক্ষেত্রে কোমলতা ও রক্ষতার অদ্ভুত এক সমন্বয় এদের পছন্দ।

তুলা: দিনে বন্ধু আর রাত্রিতে প্রেমিক এই প্রবাদের সবচেয়ে বড় উদারহণ হলো তুলা রাশির ছেলে-মেয়েরা। ভেনাসের প্রভাবে এরা সাধারণত সৌন্দর্য, রহস্যময়তা আর দৈহিক আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু। সঙ্গী-সঙ্গিনীদের শুধু একটু হাসি, উদ্দেশ্য পূর্ণ চাহনি, গাঢ় আলিঙ্গন বা হাতে মৃদু স্পর্শের মাধ্যমেই পটিয়ে ফেলতে পারে তুলা পুরুষ বা মহিলারা। দেহজ প্রেমের ক্ষেত্রে তারা আপনাকে বশে আনতে চাইবে না বরং আপনাকে দেবে ভালবাসার সুখ সাগরে অবাধ স্বাধীনতা। এভাবেই তুলারা অর্জন করতে পারবে আপনার বিশ্বাস আর দৈহিক সম্পর্কের চরম উৎকৃষ্টতা।

বৃশ্চিক: প্রতিটি বৃশ্চিকের মধ্যেই যেন লুকিয়ে আছে একেকটি অ্যাটম বোমার শক্তি। প্রবল আবেগ আর উন্নাসিকতার জন্য বৃশ্চিক জাতক-জাতিকা বেশ বিখ্যাত বা কুখ্যাত। যৌন জীবনে তা অনুদিত হয় উত্তেজনায় ভরপুর যন্ত্রণা আর উচ্ছ্বাসের সংমিশ্রণে এক আকর্ষণীয় মেলোড্রামায়। একজন বৃশ্চিকের দৃষ্টি ঠিক একটি ঈগলের মতো, যা সবকিছু ভেদ করে আপনার কিছু বোঝার আগেই করে ফেলবে বশীভূত।

ধনু: ধনু রাশির কাউকে পার্টনার হিসেবে পাওয়াটা বেশ মজার অভিজ্ঞতার সূচনা করবে, এটি বলার অপেক্ষা রাখে না। কারণ সাধারণ বেশ অ্যাথলেটিক গড়নের ধনুরা বেশি রসবোধসম্পন্ন, বর্হিমূর্খী এনাজের্টিক এবং আশাবাদী। আর এসব গুন আপনার কাছে অন্তরঙ্গ মুহূর্তে তারা প্রকাশ করবে ঠাট্টা-তামাশা, মজার সব সেক্সুয়াল অ্যাক্ট আর বিভিন্ন ফোর প্লের মাধ্যমে। এহেন আকষর্ণীয় সঙ্গী-সঙ্গিনী থেকে কীভাবে দূরে থাকা সম্ভব?

মকর: মকর রাশির জাতক-জাতিকা কোনো কিছু করার আগে অনেক ভেবেচিন্তে পা ফেলে, আর কেস যদি হয় যৌনতাভিষয়ক, তাহলে, তো কথাই নেই। হয়তো শুরুর সময়টাতে আপনাকেই নিতে হবে কিছু আগ্রহী ভূমিকা কিন্তু এরপর শুধু ফান-রাইড, কারণ আপনার মকর কাউন্টারপার্ট আপনার দৈহিক সুখ স্বাচ্ছন্দ্রের প্রতি থাকবে অতিমাত্রায় মনোযাগী। হয়তো প্রেমিক হিসেবে সিংহ বা বৃশ্চিকের মতো উত্তেজনাকর তারা নয়, কিন্তু মকর প্রেমিকের মতো নির্ভরযোগ্য ও বিশ্বাসী অপর কাউকে খুঁজে পাওয়াটা হবে বেশ দুষ্কর।

কুম্ভ: ইউরেনাস প্রভাবম্বিত কুম্ভ রাশির ছেলেমেয়েরা প্রখর বুদ্ধিমত্তার অধিকারী এক নিজেদের প্রেমিক-প্রেমিকার প্রতি বিশেষ যত্নবান। আপনি যেভাবে এদের পেতে চান ঠিক সেভাবেই এরা আপনার কাছে ধরা দেবে। এথন আপনার ওপরই নির্ভর করছে এদের বোরিং পার্টনার হিসেবে দূরে ঠেলে দেয়া বা বিশ্বস্ত সঙ্গী হিসেবে কাছে টেনে নেয়া।

মীন: চাতুর্যপূর্ণ কথা, আপাদমস্তক, দৈহিক আর্কষণে পরিপূর্ণ এবং আবেগ দৃষ্টি দিয়ে বন্দ করার চেষ্টা; এ সবকিছুই আপনি পাবেন দেহজ প্রেমের আরেক হান্টার মীন রাশির মানুষের কাছে। তার এতটুকু স্পর্শেও আপনি উত্তেজনায় অস্থির হয়ে উঠতে পারেন অথবা তার প্রগাঢ় আলিঙ্গণ আপনাকে নিয়ে যেতে পারে অন্য জগতে। মীনের সঙ্গে ভালবাসার প্রতিটি মুহূর্তের যেন সুরের মূর্ছনা।

এফ/১৬:৩০/২১জুলাই

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে