Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৭-১৮-২০১৬

মাত্র ১৯ বছর বয়সেই দ্রুততম ডাবল সেঞ্চুরির মালিক!

মাত্র ১৯ বছর বয়সেই দ্রুততম ডাবল সেঞ্চুরির মালিক!

লন্ডন, ১৮ জুলাই- সেই ১৯৮৫ সালের কথা। বারোদার বিপক্ষে মুম্বাইয়ের রবি শাস্ত্রী ১২৩ বলে করেছিলেন ডাবল সেঞ্চুরি। রোববার সেই ৩১ বছর পুরনো রেকর্ড ছুঁয়ে ফেললেন গ্ল্যামরগানের ১৯ বছর বয়সী অ্যানুরিন ডোনাল্ড। ইংল্যান্ডের কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশিপের দ্বিতীয় বিভাগের খেলায় কলিন বে’তে ডার্বিশায়ারের বিপক্ষে তিনি এই কীর্তি গড়লেন।

মজার ব্যাপার হল, সদ্য কৈশোর পেরোনো ডোনাল্ডের এর আগে কোনো সেঞ্চুরিও ছিল না। অথচ, তিনি এবার মাত্র ১৩৬ বলে খেলে ফেললেন ২৩৪ রানের ইনিংস। যখন তিনি ক্রিজে আসেন, দলের স্কোর তখন ছিল – ৯৬/৩। যখন তিনি আউট হয়ে সাজঘরে ফেরেন তখন স্কোর দাঁড়ায় – ৪৩৭/৭।

ডোনাল্ডের ইনিংসে ছিল ১৫ টি ছক্কা ও ২৬ টি চার। আউট হয়ে যাওয়ার পর যখন প্যাভিলিয়নে ফিরছিলেন তখন দর্শক-সতীর্থরা তো বটেই; প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়রাও করতালির মাধ্যমে ডোনাল্ডের এই অর্জনটাকে স্মরনীয় করে রাখে। যদিও তখনও অনেকেই জানতেন না ১২৩ তম বলে ২০০ রানের মাইলফলকে পৌঁছে রেকর্ডবুকে নাম তুলে ফেলেছেন তিনি।

কাকতালীয় ব্যাপার হল, ১০০, ১৫০ ও ২০০ – তিনটি মাইলফলকই পৌঁছাতেই ছক্কা হাঁকিয়েছেন ডোনাল্ড। দ্বিতীয় শতরানটা করতে সময় নেন কম – মাত্র ৪৩ বল।

অল্পের জন্য এই একই মাঠে করা গ্ল্যামরগানের সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড (স্টিভ জেমসের ৩০৯ রান) ছুঁতে না পারলেও সেটা নিয়ে আক্ষেপ নেই ডোনাল্ডের। বিবিসি ওয়েলস স্পোর্টসকে তিনি বলেন, ‘উইকেটটা ভাল ছিল, মাঠটাও ছোট ছিল। বোলাররা একটু ক্লান্ত ছিল। আর আমি সুযোগের পুরোটা কাজে লাগাতে পেরেছি। আমি জানতাম এই মাঠেই আমাদের সর্বোচ্চ রানের রেকর্ডটা হয়েছিল। সেটা হয়নি, তারপরও এটা দারুণ একটা ইতিহাস।’


দ্রুততম ডাবল সেঞ্চুরির রেকর্ডের কথাটা জানা ছিল না ডোনাল্ডের। জানা থাকলে, আরও আগেই রেকর্ডটা ছুঁয়ে ফেলার চেষ্টা করতেন। বললেন, ‘ক্যারিয়ারে এমন দিন খুব বেশি আসে না। তাই এই দিনটার পুরো সদ্ব্যবহার করতে পেরে আমি আনন্দিত। আমি ড্রেসিংরুমে ফেরার আগ অবধি দ্রুততম ডাবল সেঞ্চুরির রেকর্ডের কথা জানতাম না। জানলে হয়তো আরও আগেই রেকর্ডটা ভেঙে ফেলার চেষ্টা করতাম।’

এমনিতেই কাউন্টি ক্রিকেটে ‘বিশেষ প্রতিভা’ হিসেবে ডোনাল্ডের খুব নামডাক আছে। এটাও বলা হয় যে, সাইমন জোন্সের পর ওয়েলসের একমাত্র ক্রিকেটার হিসেবে ইংল্যান্ড জাতীয় দলেও ডাক পাবেন তিনি।

যদিও, নি:সন্দেহে বলে দেয়া যায় যে, জাতীয় দলে ডাক না পেলেও এই রেকর্ডটার সুবাদেই ক্রিকেটের ইতিহাস মনে রাখবে অ্যানুরিন হেনরি থমাস ডোনাল্ডের নাম!

এফ/১৬:৪২/১৮জুলাই

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে