Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৭-০১-২০১৬

যার নামে প্রকাশনা, দায় তার: ঢাবি ভিসি

যার নামে প্রকাশনা, দায় তার: ঢাবি ভিসি

ঢাকা, ০১ জুলাই- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের স্মরণিকার ‘ইতিহাস বিকৃতির’ জন্য ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার সৈয়দ রেজাউর রহমানকে দায়ী করেছেন উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক।

‘যার নামে প্রকাশনা, দায় প্রাথমিকভাবে তার’- এমন মন্তব্য করে তিনি বলেছেন, সেটি ইচ্ছাকৃত, না অনিচ্ছাকৃত এবং কার কারণে হয়েছে- সে বিষয়গুলো তদন্তের মাধ্যমে দেখা হবে।

শুক্রবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ-ভাংচুরের পর উপাচার্যের পদত্যাগের দাবির মধ্যেই বিকালে নিজের বাসভবনে সংবাদ সম্মেলনে আসেন আরেফিন সিদ্দিক।

স্মরণিকার একটি প্রবন্ধে ‘মারাত্মক ভুল’ লক্ষ্য করার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, “এটা বাইলাইন পাবলিকেশন ছিল। সেই প্রবন্ধের রচয়িতার ওপর দায় বর্তাবে। তাকে তাৎক্ষণিক অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।”

বিশ্ববিদ্যালয়ের ৯৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর স্মরণিকায় ‘স্মৃতি অম্লান’ শিরোনামে বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলোর বর্ণনা দিতে গিয়ে জিয়াউর রহমান হলের ক্ষেত্রে জেনারেল জিয়াকে ‘বাংলাদেশের প্রথম রাষ্ট্রপতি, সাবেক সেনাপ্রধান ও মুক্তিযোদ্ধা’ হিসেবে বর্ণনা করা হয়।


ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় দিবসের অনুষ্ঠানে নীল পাঞ্জাবি পরিহিত ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার সৈয়দ রেজাউর রহমানকে দেখা যাচ্ছে মাইক হাতে।

ওই ক্রোড়পত্রের প্রকাশনার দায়িত্বে ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) রেজাউর রহমান। এ ঘটনায় শুক্রবার দুপুরে ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ-ভাঙচুরের পর তাকে অব্যাহতি দেওয়া হয়।

বিকাল পৌনে ৫টার দিকে সংবাদ সম্মেলনে এসে আরেফিন সিদ্দিক বলেন, “আজকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ছিল। এ উপলক্ষে নানা আয়োজন চলছে। এ উপলক্ষে একটি আলোচনা সভায় একটা স্মরণিকা প্রকাশ করা হয়।


“সেখানে তাৎক্ষণিকভাবে আমরা প্রত্যক্ষ করি, ... ভুল আছে। সেই কারণে আলোচনা অনুষ্ঠানেই সেটা প্রত্যাহার এবং বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।”

তিনি বলেন, ঘটনাটি ইচ্ছাকৃত, না অনিচ্ছাকৃত এবং কার কারণে ঘটেছে সে বিষয়টি বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তদেন্ত করে দেখবে। “তবে এতটুকু স্বীকৃত পন্থা যে, যার নামে কোনো কিছু প্রকাশিত হয়, তাকেই দায়ী করা হয়। সে কারণে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ বিষয়টিকে দেখবে।”

ইতিহাস বিকৃতি নিয়ে ক্যাম্পসে বিক্ষোভের এক পর্যায়ে দুপুরে ছাত্রলীগ কর্মীরা উপাচার্যের বাংলোর সামনে তার গাড়ি ভাংচুর করে। এসময় তারা তার পদত্যাগ দাবিতে স্লোগানও দেয়।

সংবাদ সম্মেলনে গাড়ি ভাংচুরের প্রসঙ্গে উপাচার্য বলেন, “আমি বিশ্ববিদ্যালয়ের বাইরে ছিলাম। আমি যখন বাংলোতে প্রবেশ করছিলাম, সেই সময় আমার গাড়িতে হামলা করা হয়েছে। আপনারা সেটা অবগত আছেন।”

এফ/২২:৩৯/০১ জুলাই

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে