Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 1.5/5 (2 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৬-২৮-২০১৬

ঘরোয়া টুকিটাকি কাজে ব্যবহার করুন নেইল পলিশ

কে এন দেয়া


ঘরোয়া টুকিটাকি কাজে ব্যবহার করুন নেইল পলিশ

মেয়েদের প্রসাধনীর মাঝে সব সময়েই দুই-একটি নেইলপলিশ থাকে। শুধু রূপচর্চার জন্য নয়, নেইলপলিশের ছোট্ট এই কৌটাটি আরও অনেক কাজেই লাগতে পারেন। মেঝের টাইলস মেরামত করা থেকে শুরু করে পোশাক ঠিক করা পর্যন্ত কাজে আসবে এই প্রসাধনী। চলুন দেখে নিই নেইলপলিশ ব্যবহারের দারুণ উপায়গুলো।
 
১। চলটা ওঠা কাঠ
কাঠের ফার্নিচার, চৌকাঠ এমনকি কাঠের হ্যাঙ্গারে অনেক সময়ে চলটা উঠে যায় এবং খসখসে হয়ে থাকে। এতে বেকায়দায় ঘষা লেগে পোশাক বা ত্বক ছিঁড়ে যাবার সম্ভাবনা থাকে। ক্লিয়ার নেইল পলিশ দিয়ে চলটা ওঠা অংশের ওপর একটি প্রলেপ দিয়ে দিন। দরকার হলে একাধিক প্রলেপ দিতে পারেন। এতে এই অংশটা মসৃণ হবে এবং কোন দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা কমে যাবে।

২। মরিচার দাগ
বাথরুমে রাখা হয় কিছু ধাতব কৌটা, যেমন শেভিং ক্রিম বা হেয়ার স্প্রে-র ক্যান। এগুলো পানির সংস্পর্শে এসে মরিচা পড়তে পারে। মরিচার দাগ লেগে নষ্ট হতে পারে আপনার বাথরুমের সৌন্দর্য। এসব ক্যানের তলায় ক্লিয়ার নেইল পলিশ লাগিয়ে নিন, তাতে সহজে মরিচা পড়বে না।

৩। মুক্তোর মতো বোতাম
মেয়েদের পোশাকে মুক্তোর মতো বোতামগুলো খুব সুন্দর লাগে। কিন্তু একটা সময় পর এসব বোতামের ওপরের চকচকে আবরন উঠে যায়, তখন একে সাধারণ প্লাস্টিকের বোতাম বলেই মনে হয়। এই সমস্যা এড়াতে এর ওপরে ক্লিয়ার নেইল পলিশ অথবা গ্লসি সাদা নেইল পলিশের আবরন দিয়ে দিতে পারেন।

৪। পুরনো পোশাক
পোশাক পরতে পরতে পুরনো হয়ে গেলে হাতা, হেম এসব জায়গায় সুতো বের হয়ে যায়। এসব জায়গায় কাপড়টাকে আগের মতো করে তুলতে দিতে পারেন ক্লিয়ার নেইল পলিশের একটি প্রলেপ।

৫। ফাটা কাঁচ
গাড়ির কাঁচ বা বাড়ির জানালার কাচে খুব ছোটখাটো ফাটল দেখা দিতে পারে। এত ছোট ফাটলের কারণে পুরো কাঁচ পরিবর্তন করা যায় না। আবার এই ফাটল বড় হতে হতে একসময় পুরো কাঁচ ফেটে যেতে পারে। এক্ষেত্রে ফাটল ছোট থাকতেই ক্লিয়ার নেইল পলিশ দিয়ে দিন ফাটলের উভয় দিকে, অর্থাৎ কাঁচের দুই দিকেই। এতে কিছুটা সময় নিরাপদ থাকা যাবে।

৬। জুতোর ফিতা
জুতোর ফিতার সুতোগুলো অনেক সময় আলাদা হয়ে যেতে থাকে, তখন আর তা সহজে ব্যবহার করা যায় না। এই ফিতার খুলতে থাকা অংশ ক্লিয়ার নেইল পলিশে ডুবিয়ে নিন। এরপর আগের মতো পেঁচিয়ে নিন এবং শুকাতে দিন। শুকিয়ে গেলে দেখবেন আর খুলে যাচ্ছে না।

৭।অলংকার
কিছু কিছু অলংকার ব্যবহারের পর দেখা যায় পেছনের দিকটা অর্থাৎ ত্বকের সাথে লেগে থাকা অংশটা সবুজ হয়ে গেছে। এই সবুজ দাগ আবার লেগে যেতে পারে আপনার ত্বকে বা পোশাকে। অনেকের আবার এতে অ্যালার্জিও হয়। হাতে পরার রিং, গলায় পরার নেকলেসের ভেতরের দিকে ক্লিয়ার নেইল পলিশের একটি প্রলেপ দিয়ে রাখলে এই সমস্যা এড়ানো যায়।

৮। মেঝের টাইলস মেরামত
বিভিন্ন কারণে দেখা যায় টাইলসে ছোট চিড় ধরে গেছে বা চলটা উঠে গেছে। টাইলসের ওই অংশের সাথে ম্যাচিং করে নেইল পলিশ লাগিয়ে নিন। সহজে দেখা যাবে না কোনো খুঁত। গাড়ির রং উঠে গেলেও একইভাবে ম্যাচিং রঙের নেইল পলিশ ব্যবহার করতে পারেন।

৯। চাবি খুঁজে পেতে
অনেক সময়ে অনেকগুলো চাবির ভিড়ে দরকারিটাই খুঁজে পাওয়া যায় না। এর জন্য একেক চাবিতে একেক রঙের নেইলপলিশ লাগিয়ে নিন। দরজার রঙের সাথে মিলিয়ে সেই রং দিতে পারেন চাবিতে।

১০। অলংকার মেরামত
অনেক অলংকারে আলগা স্টোন লাগানো থাকে। দেখা যায় পার্টিতে যাবার আগে খেয়াল করলেন স্টোন খুলে গেছে। এমন অবস্থায় ক্লিয়ার নেইল পলিশ দিয়ে সেই স্টোন সেট করে নিতে পারেন আগের মতো করে।
 
এছাড়াও যা করতে পারেন-
১। বোতাম লুজ হয়ে গেলে এর সুতোর ওপরে ক্লিয়ার নেইল পলিশ দিয়ে দিতে পারেন
২। জুতোর ছোটখাটো ছেঁড়া-ফাটা মেরামত করতে পারেন
৩। স্মার্টফোনের কভার সাজাতে পারেন নেইল পলিশ দিয়ে

আর/১৭:১৪/২৮ জুন

জানা-অজানা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে