Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 1.0/5 (1 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৬-২৪-২০১৬

‘বাংলাদেশে মত প্রকাশের স্বাধীনতা কোন আমলে ছিল?’

‘বাংলাদেশে মত প্রকাশের স্বাধীনতা কোন আমলে ছিল?’

নিউ ইয়র্ক, ২৩ জুন- দৈনিক ইত্তেফাকের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক তাসমিমা হোসেন বলেছেন, ‘শেখ হাসিনা হচ্ছেন সেরা শাসক। ভালো লিডার। এখনও তিনি তার বিচক্ষণতাপূর্ণ নেতৃত্বের গুণে টিকে আছেন এবং আন্তর্জাতিকভাবেও স্বীকৃতি পাচ্ছেন।’ বাংলাদেশে মত প্রকাশের স্বাধীনতা নেই বলে মহলবিশেষের প্রচারণা প্রসঙ্গে বাংলাদেশের প্রাচিনতম দৈনিকের এই সম্পাদক বলেন, ‘বাংলাদেশে মত প্রকাশের স্বাধীনতা কোন আমলে ছিল? আমার ওপরে কোন সেন্সরশীপ নেই। আমাকে কোন রিপোর্ট প্রকাশের ব্যাপারে বিধি-নিষেধ আরোপ করা হয়নি।’

আওয়ামী লীগের কট্টর সমর্থক হওয়া সত্ত্বেও জাতীয় পার্টি করছেন কেন-এমন প্রশ্নের জবাবে সাবেক সাংসদ তাসমিমা বলেন, ‘আমরা সবাই আওয়ামী লীগের প্রজাতি। আনোয়ার হোসেন মঞ্জু ছাত্রলীগ করেছে। জাতিরজনক বঙ্গবন্ধুর শাহাদৎ বরণের পর দেশে নানা রকমের রাজনীতি এসেছে। প্রো-আমেরিকান রাজনীতি সব সময় করেছেন মঞ্জু সাহেব। কখনো প্রো-ভারতীয় রাজনীতি করেননি। ১৯৯১ সালে ভান্ডারিয়া থেকে আমাকেই নির্বাচন করতে হলো। দেশের মানুষের অনুরোধে নির্বাচনে দাঁড়াতে হয় এবং এলাকাবাসীর সমর্থনও পেয়েছি বিপুলভাবে। তবে এটি ছিল পারিবারিক সূত্রে পাওয়া। এমনটি আমেরিকাসহ বিভিন্ন দেশেই ঘটছে।’

নিউইয়র্ক সর্বাধিক প্রচারিত ‘সাপ্তাহিক ঠিকানা’র চলতি সংখ্যা (বুধবার ২২ জুন বাজারে এসেছে)য় প্রকাশিত দীর্ঘ এ সাক্ষাতকার প্রথম পাতায় ‘নিজ বিচক্ষণতায় এখনও বেঁচে আছেন শেখ হাসিনা’ শিরোনামে ফলাও করে প্রকাশিত হয়েছে। সেখানে তাসমিমা হোসেন তার স্বামী বর্তমান সরকারের মন্ত্রী আনোয়ার হোসেন মঞ্জু সম্পর্কে বলেছেন, ‘আনোয়ার হোসেন মঞ্জু ইজ এ্যা পলিটিক্যাল প্রডাক্ট। সব সময় সে তার বাবার সাথে থেকেছে। সে তার বাবার ফটোগ্রাফার ছিল। ১৯৬৫ সালের যুদ্ধে সে ইত্তেফাকে ফটোগ্রাফারের কাজ করেছে। ঐ সময় থেকেই মঞ্জু ছাত্রলীগ করতো। সিরাজুল আলম খান, তোফায়েল আহমদ, আ স ম রব, শাহজাহান সিরাজ, নূরে আলম সিদ্দিকীরা রাজনীতি করতেন। মঞ্জু ছিল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডান হাত। তাকে তুই বলে সম্বোধন করতেন।’

গত মাসে নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিত ‘আন্তর্জাতিক বাংলা উৎসব ও বইমেলা’য় বিশেষ অতিথি হিসেবে এসেছিলেন তামমিমা হোসেন। সে সময়ে নেয়া এ সাক্ষাতকারে পাকিস্তান আমলের রাজনীতি এবং বাংলাদেশের রাজনীতির প্রসঙ্গেও নিজের পর্যবেক্ষণ আলোকপাত করেছেন। বলেছেন, ‘সেই সময়ের রাজনীতি আর আজকের রাজনীতির মধ্যে আকাশ-পাতাল তফাৎ। আজ যারাই রাজনীতি করেন না কেন, তাদেরকে শুরু করতে হয় আওয়ামী লীগ দিয়েই। আবার আওয়ামী লীগ দিয়েই শেষও করতে হয়, যদি তাদের বিবেক বলে কিছু থাকে। এবং বঙ্গবন্ধু ছাড়া বাংলাদেশ যদি কেউ বলতে চায়, আমি বলবো সে উম্মাদ ছাড়া কিছু নয়।’

বিএনপির রাজনীতি প্রসঙ্গে বলেন, ‘খালেদা জিয়া ১৯৯১ সাল থেকে ৫ বছর ভালোই চালিয়েছেন। উনার ছেলে (তারেক রহমান) আসার পরেই গোলমাল হয়ে গেল।’ বাংলাদেশের ভবিষ্যত সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘আমি তো জ্যোতিষি নই, আমি বাংলাদেশের ভবিষ্যত বলতে পারবো না। তবে আমি মনে করি বাংলাদেশের বেসরকারী খাত এক্সিলেন্ট। অর্থনীতি খুব ভালো। বাঙালিকে যেখানেই ফেলে দেয়া হউক না, তারা উঠে আসবেই।’

আর/১৭:১৪/০১ জু

মিডিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে