Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৬-২৩-২০১৬

দেশের সার্বভৌমত্ব নিয়ে খালেদার শঙ্কা

দেশের সার্বভৌমত্ব নিয়ে খালেদার শঙ্কা

ঢাকা, ২৩ জুন- দেশের সার্বভৌমত্ব নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া বলেছেন, অনির্বাচিত সরকার দেশ পরিচালনা করার নামে দেশকে অন্যের হাতে তুলে দিতে ষড়যন্ত্রে ব্যস্ত। আপনারা দেখেছেন বিডিআর হত্যার ঘটনার মাধ্যমে এর সূত্রপাত হয়েছে। ভয়ভীতি, দমন, হত্যা করে দেশের মানুষকে সরকার নিয়ন্ত্রণে রাখতে চাইছে।

বুধবার সন্ধ্যায় রাজধানীর ইস্কাটনের লেডিস ক্লাবে ডক্টর’স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (ড্যাব) আয়োজিত ইফতারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে খালেদা এসব কথা বলেন।

খালেদা জিয়া বলেন, বিজিবি সীমান্তে মানুষকে রক্ষা করতে পারছে না। অন্য দেশের বাহিনী দেশের অভ্যন্তরে ঢুকে মানুষ হত্যা করছে। কিন্তু ব্যর্থ সরকার একটি প্রতিবাদও করতে পারছে না। এমনকি মিয়ানমার পর্যন্ত দেশে আক্রমণ করছে। বিজিবির কোনো ক্ষমতায় নেই।

তিনি বলেন, এই ষড়যন্ত্র বন্ধ করতে পারে শুধু দেশের মানুষ। এজন্য সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

খালেদা জিয়া বলেন, কে কোন দল করি, কে ছোট কে বড়, কে হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান তা বড় কথা নয়। সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে দেশ রক্ষার জন্য।

বিএনপি চেয়ারপারসন বলেন, দেশ এখন আর গণতান্ত্রিক নয়, পুলিশি রাষ্ট্র। পুলিশের নির্দেশে সব চলছে। পুলিশ যাকে ইচ্ছা ধরে নিয়ে যাচ্ছে, যাকে ইচ্ছা ক্রসফায়ার করছে।  মহিলাদের পর্যন্ত নির্যাতন করছে। প্রতিবাদ করার সুযোগ নেই। যারা প্রতিবাদ করে তাদেরও জেল-জুলুম সহ্য করতে হয়।

দেশে কোনো আইন নেই এমন মন্তব্য করে খালেদা বলেন, কেউ নিরপেক্ষভাবে কাজ করতে পারছে না।

সাম্প্রতিক সময় সন্দেহভাজন জঙ্গি ফাইজুল্লাহ ফাহিমের পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হওয়ার ঘটনা উল্লেখ করে সবার উদ্দেশে খালেদা বলেন, এ ঘটনা থেকে বুঝতে পারেন দেশের কী হচ্ছে। আমরা শঙ্কিত দেশের সার্বভৌমত্ব আছে কি না তা নিয়ে। মানুষ নির্ভয়ে কোনো কাজ করতে পারছে না। অনির্বাচিত সরকার দেশ পরিচালনার নামে দেশকে অন্যের হাতে তুলে দেয়ার ষড়যন্ত্রে ব্যস্ত।

ড. এমাজউদ্দিন আহমেদ বলেন, সামনের পথ বন্ধুর। কষ্ট করে যে পথ চলতে হবে। এজন্য চাই নিজেদের মধ্যে দৃঢ় শৃঙ্খলাবোধ, ঐক্য।  এই মুহূর্তে আমাদের একটাই লক্ষ্য হওয়া উচিত অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য নির্বাচন।  এমন নির্বাচন হলে আমরা যে সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি তা দূর হবে। আমরা কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্য গণতন্ত্র ফিরে পাবো। অনিশ্চিত অধিকারের জায়গাটি নিশ্চিত হবে।

তিনি বলেন, যখন সুশৃঙ্খল ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টার মধ্য দিয়ে আমরা সামনে পা ফেলতে চাই।

ইফতার মাহফিলে সভাপতিত্ব করেন আয়োজক সংগঠনের সভাপতি ডা. আজিজুল  হক। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন ড্যাবের মহাসচিব ডা. এজেডএম জাহিদ হোসেন ও সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব ডা. এসএম রফিকুল ইসলাম বাচ্চু।

খালেদা জিয়ার সঙ্গে মঞ্চে ইফতার করেন ড. এমাজউদ্দিন আহমেদ, ড. মাহবুব উল্লাহ, সাংবাদিক মাহফুজ উল্লাহ, ড. খন্দকার মোস্তাহিদুর রহমান, রুহুল আমিন গাজী, অধ্যক্ষ সেলিম ভুঁইয়া।

বিএনপি নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, ব্যারিস্টার জমির উদ্দিন সরকার, চৌধুরী কামাল ইবনে ইউসুফ, গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, সেলিমা রহমান প্রমুখ।

আর/১০:৪৪/২২ জুন

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে