Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 1.3/5 (3 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৬-২১-২০১৬

রাষ্ট্রপতির আলাদা ট্রেনে কনফারেন্স রুম, কোন দেশে জানেন?

রাষ্ট্রপতির আলাদা ট্রেনে কনফারেন্স রুম, কোন দেশে জানেন?

ভারতের রাষ্ট্রপতি সম্মানই আলাদা।  তার জন্য ঠিক আলাদা ট্রেনও আছে। চড়েছেন অবশ্য খুব কমই।  

তবে প্রেসিডেন্সিয়াল সেলুন ঠিক চেনা ট্রেনের মতো নয়।  এটার মাত্র দু’টো বগি।  তার নম্বর ৯০০০ এবং ৯০০১।  

১৯৫৬ সালে এই বগি দু’টি তৈরি করা হয়েছিল।  রাখা থাকে নয়াদিল্লি স্টেশনে।  এর ভেতরে রয়েছে ডাইনিং রুম, ভিজিটিং রুম, লাউঞ্জ, কনফারেন্স রুম এবং রাষ্ট্রপতির বেডরুম।  সবটাই বেশ বিলাসবহুল।

ছয় ও সাতের দশকে রাষ্ট্রপতিরা

অনেকই এ ট্রেন ব্যবহার করেছেন।  সাধারণত নিজেদের টার্ম শেষ হওয়ার পরে রাষ্ট্রপতিরা এ ট্রেনে চড়ে নিজের শহরে বা গ্রামে গিয়েছেন।  

যেমনটা করেছিলেন নীলম সঞ্জিব রেড্ডি ১৯৭৭ সালে।  শেষবার চড়েছিলেন রাষ্ট্রপতি এপিজে আবদুল কালাম।

২৬ বছর পর ২০০৩ সালের ৩০ মে এ ট্রেনে চড়েন তৎকালীন রাষ্ট্রপতি এপিজে আবদুল কালাম।  সেই সময় ট্রেনটিকে নতুন করে সাজানো হয়।

প্রণব মুখোপাধ্যায় রাষ্ট্রপতি হওয়ার পর একবার এ ট্রেনটিকে নতুন করে সাজানোর কথা হয়, কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা আর হয়নি।

ব্রিটিশ ভারতে ভাইসরয়ের চড়ার জন্যই প্রথম এ ধরনের ট্রেনের কথা ভাবা হয়।  তখন নাম ছিল ‘ভাইস রেগাল কোচ’।  

সেই রাজকীয় কোচ রাজধানী কলকাতায় মানে হাওড়া স্টেশনেই ছিল।  পরে দিল্লিতে রাজধানী স্থানান্তরিত হলে এ ট্রেনটিও চলে যায় ১৯২৭ সালে।

স্বাধীন ভারতের রাষ্ট্রপতি হিসেবে প্রথম এ ট্রেনে চড়েন ডক্টর রাজেন্দ্র প্রসাদ।  ১৯৫০ সালে তিনি নয়াদিল্লি থেকে কুরুক্ষেত্র গিয়েছিলেন।

এ আর/০৮:৫৫/ ২১জুন

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে