Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (15 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৬-১৭-২০১৬

উচ্ছেদ করছেন আইভী, বসাচ্ছেন শামীম ওসমান!

উচ্ছেদ করছেন আইভী, বসাচ্ছেন শামীম ওসমান!
নারায়ণগঞ্জে হকারদের দখলে ফুটপাত

নারায়ণগঞ্জ, ১৭ জুন- নারায়ণগঞ্জ শহরের ফুটপাতে হকার উচ্ছেদ ও বসানো নিয়ে প্রভাবশালী সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের সঙ্গে সিটি করপোরেশন মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভীর মধ্যে স্নায়ুযুদ্ধ চলছে। রোজায় শহরের যানজট নিরসনসহ ফুটপাত দিয়ে চলাচল স্বাচ্ছন্দ্যময় করতে ফুটপাত হকারমুক্ত করা হলেও বৃহস্পতিবার থেকে এমপি শামীম ওসমানের নির্দেশে আবারও তারা ফুটপাতে বসতে শুরু করেছে। আর এদিন দুপুর থেকে শামীম ওসমান অনুগামী যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদেরও ট্রাফিক পুলিশের ভূমিকায় গিয়ে যানজট নিরসনে কাজ করতে দেখা গেছে।

জানা গেছে, বিগত ওয়ান ইলেভেনের সময় শহরের ফুটপাত হকারমুক্ত রাখতে ওই সময়ে সেনাবাহিনীর সহায়তায় সিটি করপোরেশন শহরের প্রধান প্রধান সড়কে ফুটপাতে হকারগিরি করছেন এমন ৬৭৫ জনের একটি তালিকা করে। পরে তাদেরকে শহরের চাষাঢ়ায় খাজা সুপার মার্কেটের পাশে সিটি করপোরেশনের জায়গাতে দোকান তৈরি করে পুনর্বাসন করা হয়। তবে ২০০৮ সালের ডিসেম্বরে সংসদ নির্বাচনের পর আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পরেই ধীরে ধীরে আবারও শহরের ফুটপাত হকাররা দখল করতে শুরু করে।

গত কয়েক বছরে ফুটপাতে হকারদের সংখ্যা বাড়তেই থাকে। বিশেষ করে রোজার সময় ফুটপাত দিয়ে চলাচল বেশ দুষ্কর হয়ে ওঠে। গত রোজায় ফুটপাত থেকে হকার উচ্ছেদ নিয়ে পুলিশের সঙ্গে কয়েক দফা সংঘর্ষের ঘটনাও ঘটে।

এদিকে, এবার রোজা শুরুর আগেই জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন ও সিটি করপোরেশনের যৌথ সমন্বয়ে শুরু হয় হকার উচ্ছেদ অভিযান। আর এতে করে শহরের ফুটপাত একেবারেই হকারশূন্য হয়ে ওঠে। এরই মধ্যে ফুটপাতে বসার দাবিতে জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার ও সিটি করপোরেশনের মেয়রের কাছেও আবেদন করেন হকাররা। এ নিয়ে শহরে কয়েকদিন ধরে নিয়মিত মিছিল মিটিংও হচ্ছিল।

এদিকে, সিটি করপোরেশন ও পুলিশ প্রশাসন যখন বেশ অনড় অবস্থানে তখন হকাররা ধর্ণা দিতে শুরু করেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের  সংসদ সদস্য শামীম ওসমানের কাছে। তিনি ফতুল্লা ও সিদ্ধিরগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য হলেও শহরের হকারদের পুনর্বাসনের উদ্যোগ নেন। শুরুতে তিনি শহরের চাষাঢ়া বালুর মাঠে রাজউকের খালি জায়গায় বসার কথা বলেও হকাররা স্থান সংকুলন না হওয়ার অজুহাতে পিছু হটে। যেকোনওভাবে রোজার মাসে তারা শহরে বসার দাবি করেন।

এ অবস্থায় সবশেষ গত মঙ্গলবার হকারদের সঙ্গে শামীম ওসমানের আলোচনা হয়। তখন শামীম ওসমান বলেন, ‘আমি নিজেও ফুটপাত দখলের সমর্থন করি না, করবোও না। কিন্তু মানবিক বিষয়টি চিন্তা করে অন্তত ঈদের আগে তাদের পেটে লাথি মারা উচিত হয়নি। তাই আমি গরিব হকারদের হয়ে সিটি করপোরেশনের কাছে এই অনুরোধ করছি। দুইদিন আমি সময় দিচ্ছি। না হলে আমি নিজেই ব্যবস্থা করবো।’

শামীম ওসমান ঘোষণা দিয়েছিলেন বৃহস্পতিবার থেকে তিনি নিজে থেকে হকারদের বসার ব্যবস্থা করবেন। কে বাধা দেয় সেটাও দেখবেন বলে হুঁশিয়ারি দেন।


নারায়ণণঞ্জ শহরের বেশিরভাগ ফুটপাতই এখন হকারদের দখলে

এদিকে, বৃহস্পতিবার দুপুর থেকেই হকাররা রাস্তার পাশে ও ফুটপাতে বসতে শুরু করে। আর যানজট নিরসনে শামীম ওসমান সমর্থিত যুবলীগ ও ছাত্রলীগের কয়েকজনকেও দেখা গেছে পথে নেমে যানজট নিরসন করতে। তবে ফুটপাত আবারও দখল হওয়ায় সাধারণ লোকজনদের চলাচলে দুর্ভোগ পোহাতে হয়।

এ ব্যাপারে সিটি করপোরেশন মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভী জানান, ‘কয়েক বছর ধরেই আমরা ফুটপাত হকারমুক্ত রাখার জন্য পুলিশকে বলে আসছি। শহরের ফুটপাতগুলোতে টাইলস করা হয়েছে। পথচারী ফুটপাত দিয়ে হাঁটবে সেটাই স্বাভাবিক। নগরবাসীর জন্য ফুটপাত হকারমুক্ত থাকতে হবে। এ জন্য আমরা প্রায়শই প্রশাসনকে চিঠি দিয়ে অবহিত করি। সম্প্রতি উচ্ছেদের সময় পুলিশ আমাদের কাছে সহযোগিতা চেয়েছিল আমরা করেছি। যেহেতু পুলিশ উচ্ছেদ অভিযান শুরু করেছে সেহেতু আমার অনুরোধ থাকবে সেটা যেন ধারাবাহিক থাকে।’

আইভী বলেন, ‘বিগত ২০০৭ সালে শহরের ফুটপাত হকারমুক্ত করতে ৬৭৫ জন হকারের তালিকা করে তাদেরকে চাষাঢ়ায় হকার্স মার্কেটে পুনর্বাসন করা হয়। সাধারণ একজন পান দোকানদারও দোকান পেয়েছিল। যেখানে শহরের সব হকার দোকান পেয়েছে সেখানে নতুন করে কারা হকার বসাচ্ছে সেটাও খোঁজ নেওয়া প্রয়োজন। দোকান পাওয়া ব্যক্তিদের অনেকেই নতুন করে তাদের লোকজনদের দিয়ে হকার বসিয়েছে।’

‘হকাররা গরিব, অসহায়’ ইমোশনাল এসব কথা বলে তাদের বসতে দেওয়ার কোনও যুক্তি নেই বলেও মন্তব্য করেন আইভী।

নারায়ণগঞ্জ জেলা পুলিশ সুপার ড. খন্দকার মহিদউদ্দিন জানান, নগরবাসীর নিরাপদ চলাচল ও যানজট দূর করতে হকার উচ্ছেদ একটি নিয়মিত অভিযান। এটা চলবে। 

আর/১০:২৪/১৭ জুন

নারায়নগঞ্জ

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে