Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৬-১৭-২০১৬

পাকিস্তানে শিকড় গাড়ার চেষ্টায় আইএস

পাকিস্তানে শিকড় গাড়ার চেষ্টায় আইএস

ইসলামাবাদ, ১৭ জুন- অরল্যান্ডোর নৈশ ক্লাবে বন্দুক হামলাকারীর সঙ্গে আইএসের সংযোগের বিষয়ে তদন্ত চলছে। বিশ্লেষকেরা বলছেন, একটি দেশে বারবার বড় ধরনের হামলা চালানোর সঙ্গে সে দেশে জঙ্গিদের শিকড় গাড়ার জোরালো চেষ্টার যোগসূত্র রয়েছে।

গত শনিবার মধ্যরাতে অরল্যান্ডোতে ওমর মতিন নামের আফগান-বংশোদ্ভূত এক মার্কিন যুবক সমকামীদের নৈশ ক্লাবে নির্বিচারে গুলি ছুড়ে ৪৯ জনকে হত্যা করেন। পরে পুলিশের গুলিতে তিনি মারা যান। হামলার আগে পুলিশের কাছে ফোনে আইএসের আনুগত্য স্বীকার করলেও তিনি ওই জঙ্গিগোষ্ঠীর যোদ্ধা নন বলে যুক্তরাষ্ট্র দাবি করছে। ঘটনার পর পর আইএস মতিনকে তাদের অনুসারী যোদ্ধা বলে দাবি করেছে।

ওই ঘটনার পর আমেরিকার রিপাবলিকান দলের মনোনয়ন প্রত্যাশী ডোনাল্ড ট্রাম্প অরল্যান্ডোতে রক্তক্ষয়ী হামলা প্রসঙ্গে অভিবাসননীতির কড়া সমালোচনা করেন। যুক্তরাষ্ট্রে সন্ত্রাসী হামলা করেছে এমন দেশের নাগরিকদের সেদেশে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপের পক্ষে তিনি। তাঁর বক্তব্যে পাকিস্তানের কথাও উঠে আসে।

গত নভেম্বরে ক্যালিফোর্নিয়া হত্যাকাণ্ডের কথা উল্লেখ করেন। একজন পাকিস্তানি নারী ও তাঁর মার্কিন স্বামী ওই সময় গুলি ছুড়ে ১৪ জনকে হত্যা করেন। ওই দম্পতিকেও আইএস তাদের যোদ্ধা বলে দাবি করেছিল।

খবরে বলা হয়, আইএসের আরও একটি হামলার ঘটনায় পাকিস্তানের ধোঁয়াশা সংযোগ থাকার বিষয়টিও এখন আলোচনায় আসছে। গত সোমবার ফ্রান্সে গোয়েন্দা পুলিশ ও তাঁর স্ত্রীকে হত্যা করার হামলাকারী আইএসকে সমর্থন করেন। ওই পুলিশ পাকিস্তানের সঙ্গে যুক্ত জিহাদি গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে ভূমিকা রেখেছিল। গত নভেম্বরে প্যারিসে রক্তক্ষয়ী হামলার ঘটনাতেও পাকিস্তানের সম্পৃক্ত থাকার বিষয়ে তদন্ত চলছে বলে এপ্রিলে জানিয়েছেন অস্ট্রীয় কৌঁসুলি। ওই হামলারও দায় স্বীকার করে আইএস।

আফগানিস্তান ও পাকিস্তানভিত্তিক জঙ্গি সংগঠনগুলো নিয়ে আইএস ঘোষিত খোরাসান প্রদেশ গঠনের পরিকল্পনার কথা বছরের শুরুতে জানিয়েছে ওয়াশিংটন। তবে পাকিস্তান দেশটিতে এভাবে আইএসের আনুষ্ঠানিক উপস্থিতির কথা অস্বীকার করেছে।

এসব উগ্রপন্থীর কারণে পাকিস্তানে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনায় এককভাবে আইএসের সফলতার হার খুব বেশি নয়। ২০১৫ সালে করাচিতে বন্দুক হামলা চালিয়ে ৪৪ জনকে হত্যার ঘটনা ছিল আইএসের বড় ধরনের হামলা।

অভিজ্ঞজনেরা মনে করেন, সদস্য সংগ্রহে পাকিস্তানের মধ্যবিত্ত যুবকদের টানছে আইএস। এর মধ্যে বিত্তশালী পরিবারের অনেক যুবকও রয়েছে। তারা এখন সাইবার পরিচালনা, হাসপাতাল ও প্রশাসনিক কর্মকাণ্ড চালাতে সক্ষম যুবকদের ভেড়াচ্ছে। প্রায় ৭০০ তরুণ-তরুণী পাকিস্তান থেকে আইএসে যোগ দিয়েছে।

এ আর/ ১৫:০৫/ ১৭ জুন

দক্ষিণ এশিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে