Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৬-১৬-২০১৬

শিহাব নিজেই কুপিয়েছিল টুটুলকে: পুলিশ

শিহাব নিজেই কুপিয়েছিল টুটুলকে: পুলিশ

ঢাকা, ১৬ জুন- শুদ্ধস্বর প্রকাশনীর মালিক আহমেদুর রশীদ টুটুল হত্যাচেষ্টার সঙ্গে জড়িত অভিযোগে গ্রেফতার শিহাব নিজ হাতে টুটুলকে চাপাতি দিয়ে তিনটি আঘাত করেছিলেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। পুলিশ জানায়, টুটুল হত্যাচেষ্টার দুই মাস আগে শিহাব আনসারুল্লাহ বাংলাটিমে (এবিটি) যোগ দেয়। চট্টগ্রামে দুইমাস প্রশিক্ষণ নিয়ে চার সঙ্গীসহ সে ঢাকায় আসে।

বৃহস্পতিবার সকালে পুলিশের গোয়েন্দা শাখার মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে তথ্য জানান ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম।

কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্র্যান্স ন্যাশনাল ক্রাইমের অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘তারা মহাখালী এলাকায় একটি বাসা নেয়। যেটাকে তারা মারকাজ বলে। প্রকাশকের অফিসে ঢুকে পড়ে, তারা ভেবেছিল একজন আছে, কিন্তু সেখানে তিনজন ছিল। পরে তারা তিনজনের ওপরই হামলা চালায়। শিহাব নিজেই টুটুলের ওপর তিনটা আঘাত করে বলে স্বীকার করেছে।’

মনিরুল ইসলাম বলেন, গত ১৯ ফেব্রুয়ারি উত্তর বাড্ডার সাতারকুল এলাকার এবিটির একটি প্রশিক্ষণকেন্দ্রে অভিযান চালায় ডিবি। এ সময় এবিটির সঙ্গে সংঘর্ষে ডিবির এক সদস্য গুরুতর আহত হন। ঘটনাস্থল থেকে এবিটির দুই সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। এ ছাড়া মোহাম্মদপুরের একটি বাসায় এবিটির একটি বোমা তৈরির কারখানা এবং দক্ষিণখানের সরদারপাড়ার একটি বাসা থেকে বিপুল পরিমাণ বোমা ও বোমা তৈরির সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়। পরবর্তী সময়ে এবিটির আরও পাঁচ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়। এরপর ১৩ জুন চট্টগ্রাম থেকে এবিটির আরও দুজনকে গ্রেফতার করা হয়। এবিটির এসব সদস্যের কাছ থেকে পাওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সুমনকে গ্রেফতার করে ডিবি।

টুটুলের উপর যেদিন হামলা হয় একই দিন কাছাকাছি সময়ে শাহবাগের আজিজ সুপার মার্কেটে জাগৃতি প্রকাশনীর মালিক ফয়সল আরেফিন দীপনকে হত্যা করে আনসারুল্লাহ বাংলাটিমের আরেকটি দল।

মনিরুল জানান, টুটুল হত্যাচেষ্টার সার্বিক দায়িত্বে ছিল শরীফ নামে একজন। আর দীপন হত্যার সমন্বয়কারী হিসেবে সেলিম নামে একজনের নাম পেয়েছেন তারা। দুইজনেই আনসারুল্লাহ বাংলাটিমের তৃতীয় পর্যায়ের নেতা।

এই দুটি হত্যার সমন্বয়কারী সেলিম ও শরীফকে গ্রেফতার করতে পারলে এ বিষয়ে আরও তথ্য পাওয়া যাবে বলেও জানান ওই পুলিশ কর্মকর্তা।

গত বছরের ৩১ অক্টোবর লালমাটিয়ায় শুদ্ধস্বরের কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে হত্যার চেষ্টা করা হয় প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার আহমেদুর রশীদ টুটুলকে। ঘটনার সময় চাপাতির আঘাত ও গুলিতে টুটুলের সঙ্গে আহত হন ব্লগার লেখক তারেক রহিম ও রনদিপম বসু। একই দিনে শাহবাগের আজিজ সুপার মার্কেটের জাগৃতি প্রকাশনীর প্রকাশক ফয়সল আরেফিন দীপনকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়।

এদিকে, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শিহাবকে পাঁচদিনের রিমান্ড দিয়েছেন আদালত। ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম লুৎফর রহমান শিশির এ আদেশ দেন।

আনসার উল্লাহ বাংলাটিমের তাত্ত্বিক গুরু হিসেবে পরিচিত জসিম উদ্দীন রাহমানী ২০১৩ সাল থেকে জেলে থাকলেও গত দেড় বছর ধরে একের পর এক নাশকতা করে যাচ্ছে সংগঠনটি। এই সময়ের মধ্যে কর্মী পর্যায়ের অনেককে গ্রেফতার করা সম্ভব হলেও নেতৃত্বদানকারী কাউকে আইনের আওতায় আনা যায়নি কেন?  এমন প্রশ্নের জবাবে মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘তাদের ভাষায় কথিত ইসলামের দুষমনদের এইভাবে হত্যা করে একটা পর্যায়ে তারা আরও বেশি সংগঠিত হলে বড় কিছু করবে।’

এছাড়া, রামকৃষ্ণ মিশনের প্রধান ধর্মগুরুকে হত্যার হুমকি দিয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছে বলে যে অভিযোগ উঠেছে, সে ব্যাপারে খোঁজ খবর চলছে বলেও জানান তিনি।

আর/১০:১৪/১৬ জুন

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে