Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English
» নাসিরপুরের আস্তানায় ৭-৮ জঙ্গির ছিন্নভিন্ন মরদেহ **** ইমার্জিং কাপে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন বাংলাদেশ       

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৬-১৬-২০১৬

বিপদজনক দ্রব্য পরিবহণ, অ্যামাজনের জরিমানা

বিপদজনক দ্রব্য পরিবহণ, অ্যামাজনের জরিমানা

ওয়াশিংটন, ১৬ জুন- বিপদজনক রাসায়নিক দ্রব্য প্রেরণে নীতিমালা ভঙ্গের অভিযোগে ই-কমার্স জায়ান্ট অ্যামাজন সাড়ে তিন লাখ মার্কিন ডলার জরিমানার মুখোমুখি হতে যাচ্ছে।

রায়াসনিক দ্রব্যের কারণে পরিবহণ কর্মী আহত হয়েছে বলে জানা যায়। আইন ভঙ্গ করে আকাশপথে ক্ষতিকারক নর্দমা পরিষ্কারক রাসায়নিক দ্রব্য পাঠানোর অভিযোগে অভিযুক্ত করে যুক্তরাষ্ট্র ফেডারেল এভিয়েশন অ্যাডমিনিস্ট্রেশন (এফএএ) এই জরিমানার প্রস্তাব করে। কর্তৃপক্ষ জানায়, ভেতরের দ্রব্য নির্গত হলে যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক পণ্য পরিবহণ প্রতিষ্ঠান ইউপিএস-এর নয়জন কর্মী তাতে দগ্ধ হওয়ার অভিযোগ করেন। অ্যামাজন বিষয়টির অগ্রগতির জন্য এফএএ-এর সঙ্গে কাজ করবে বলে বিবিসিকে জনিয়েছে।

কর্তৃপক্ষের ভাষ্যমতে, ২০১৪ সালের অক্টোবরে অ্যামাজন ইউপিএস-এর মাধ্যমে কেনটাকি থেকে কলোরাডোতে ‘অ্যামেইজিং! লিকুইড ফায়ার’ নামের নর্দমা পরিষ্কারকের এক গ্যালনের একটি কনটেইনার পাঠায়। এফএএ বলে, “পরিবহণের সময় ফাইবারবোর্ড বাক্স থেকে কিছু 'লিকুইড' ছিদ্রপথে নির্গত হয়। নয়জন ইউপিএস কর্মী সেই বাক্সের সংস্পর্শে আসলে তারা তাতে দগ্ধ হন বলে জানান এবং তাদেরকে পরে অন্য রাসায়নিক দ্রব্য দিয়ে ধোয়া হয়।” তারা আমাজনের বিরুদ্ধে পরিবহণকৃত পণ্য ঠিকভাবে প্যাকেজিংয়ে ব্যর্থ হওয়ার অভিযোগ করে এবং আরও জানায়, পণ্যের গায়ে পণ্য সম্পর্কে সঠিক লেবেল বা তথ্য ছিল না এবং প্রতিষ্ঠানটির দায়িত্বে থাকা কর্মীর প্রশিক্ষণের অভাব রয়েছে।

এফএএ বলে, “অ্যামাজনের ‘হ্যাজার্ডাস ম্যাটেরিয়ালস রেগুলেশন’ ভঙ্গ করার ইতিহাস রয়েছে। ফেব্রুয়ারি ২০১৩ থেকে ২০১৫-এর সেপ্টেম্বর পর্যন্তই তারা এ সম্পর্কিত নীতিমালা ভঙ্গ করেছে ২৪ বার। আকাশপথে পরিবহণে প্রযোজ্য হ্যাজার্ডাস ম্যাটিরিয়ালস রেগুলেশনস-এ অ্যামাজনের সম্মতির ব্যাপারে এফএএ তদন্ত চালিয়ে যাচ্ছে।”

রয়টার্স-এর এক প্রতিবেদনে জানা যায়, এসব ঘটনার ফলে এফএএ প্রায় ১৩ লাখ মার্কিন ডলার জরিমানা করেছে। এফএএ তাদের নীতিমালা ভঙ্গের নোটিশে অন্তত ১৫ বার বিপজ্জনক দ্রব্য নির্গত হওয়ার ঘটনা উল্লেখ করেছে।

রয়টার্স-কে কর্তৃপক্ষের একজন মুখপাত্র জানান, অ্যামাজন কতবার জরিমানা দিয়েছে বা দায়িত্ব স্বীকার করে নিয়েছে তা স্পষ্ট না আর এফএএ ৫০ হাজার মার্কিন ডলারের নিচে জরিমানা প্রস্তাব করে না। প্রতিষ্ঠানটি ২০১৪ সালের এপ্রিলে একজন কর্মীর ভুলভাবে দাহ্য তরল পরিবহণের কারণে ৯১ হাজার মার্কিন ডলার জরিমানা দেয়।

অ্যামাজনের একজন মুখপাত্র বলেন, “আমরা প্রতিদিন লাখ লাখ পণ্য পরিবহণ করি এবং সম্ভাব্য পরিবহণ বিশৃঙ্খলা শনাক্ত করতে উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহার করি। আমরা যে কোনো ত্রুটিকে আরও উন্নয়নের সুযোগ হিসেবে ব্যবহার করি। আমরা এই ক্ষেত্রে এফএএ-এর অংশীদারিত্ব চালিয়ে যাব।”

প্রতিষ্ঠানটির হাতে এফএএ-এর কাছে সাড়া দেওয়ার জন্য ৩০ দিন সময় দেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে