Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৬-১৫-২০১৬

ট্রাম্পের আমেরিকা চাই না: ওবামা

ট্রাম্পের আমেরিকা চাই না: ওবামা

ওয়াশিংটন,১৫ জুন- যুক্তরাষ্ট্রের অরল্যান্ডো হামলার পর রিপাবলিকান দলের সম্ভাব্য প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্পের মুসলিম বিরোধী বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করেছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। তিনি ট্রাম্পকে ‘বিপজ্জনক মানসিকতার’ মানুষ হিসেবে উল্লেখ করে বলেছেন, ‘আমরা তার নির্দেশিত আমেরিকা চাই না।’

মঙ্গলবার হোয়াইট হাউজে দেয়া এক বক্তব্যে প্রেসিডেন্ট ওবামা বলেন, আমেরিকার মুসলিমদের আলাদা করে দেখলে আমেরিকা কম নিরাপদ হবে। তখন পশ্চিমের সঙ্গে মুসলিম বিশ্বের বিভেদ আরো বাড়বে।

তিনি মনে করেন, ট্রাম্প যুক্তরাষ্ট্রে মুসলমানদের ঢুকতে দেয়া বন্ধ করার যে প্রস্তাব করেছেন তা চরমপন্থিদের অপপ্রচারকে আরো উসকে দেবে এবং আমেরিকাকে  কম নিরাপদ করে তুলবে।

ডোনাল্ড ট্রাম্প গত সোমবার যেসব দেশের মানুষ এর আগে দেশটিতে সন্ত্রাস সৃষ্টি করেছে তিনি সেইসব দেশের মুসলিমদের যুক্তরাষ্ট্র প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা বলেছিলেন। এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য তিনি প্রেসিডেন্টের নির্বাহী ক্ষমতা কাজে লাগানোর পরামর্শ দেন।

ট্রাম্পের এই পরিকল্পনার তীব্র সমালোচনা করেছেন প্রেসিডেন্ট ওবামা। তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র ধর্মীয় স্বাধীনতায় বিশ্বাস করে এবং মার্কিন সংবিধানেও এর উল্লেখ রয়েছে। তিনি আরো বলেন, সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে যেসব সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে সেগুলো কোনো বাইরের দেশের লোক করেনি। যুক্তরাষ্ট্রে জন্মগ্রহণকারীরাই করেছে। অরল্যান্ডোতে সমকামীদের নাইটক্লাবে হামলাকারী ওমর মতিনও নিউইয়র্কে জন্মগ্রহণ করেছিলেন। সেই দিক দিয়ে দেখতে গেলে তিনি ছিলেন ট্রাম্পের প্রতিবেশী।

প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রার্থিতা বাছাইয়ের লড়াই শুরু হওয়ার পর থেকেই নিজেকে একজন মুসলিম বিদ্বেষী হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন ট্রাম্প। সম্প্রতি তিনি আমেরিকায় বসবাসকারী মুসলিমদের ওপর নজরদারি করারও দাবি জানিয়েছেন। কিন্তু এবারই প্রথমবারের মতো তার বিরুদ্ধে কড়া বক্তব্য দিতে দেখা গেল প্রেসিডেন্ট ওবামাকে। এছাড়া তিনি ট্রাম্পের তোলা নিজের পদত্যাগের দাবিও প্রত্যাখ্যান করেছেন।

ওবামা ট্রাম্পের এই বিদ্বেষমূলক বক্তব্যের কারণে রিপাবলিকান দলের নীতি নির্ধারকদেরও সমালোচনা করেছেন। তার ভাষায়, ‘আমরা কি তবে মুসলিম-আমেরিকানদের আলাদা করে দেখব? আমরা কি তাদের বিশেষ নজরদারির আওতায় আনতে যাচ্ছি? কেবল মাত্র ধর্মের কারণে আমরা তাদের সঙ্গে বৈষম্যমূলক আচরণ করব? রিপাবলিকান দলের কর্মকর্তারা কি ট্রাম্পের এই প্রস্তাবের সঙ্গে একমত পোষণ করছেন?

ওবামা বলেন, ‘আইএস (ইসলামিক স্টেট) এবং আল কায়েদার মতো গোষ্ঠীগুলো তাদের এই যুদ্ধকে ইসলাম বনাম আমেরিকা কিংবা ইসলাম বনাম পশ্চিমের মধ্যে যুদ্ধে পরিণত করতে চায়। এখন আমরা যদি সব মুসলমানকে সন্ত্রাসী হিসেবে চিহ্নিত করি তাহলে আসলে আমরা তাদের ফাঁদে পা দেব এবং তাদের কাজই করে দেব।’

ট্রাম্পের সমালোচনা করে প্রেসিডেন্ট ওবামা আরো বলেন, ‘আমরা এই আমেরিকা চাইনা, যেখানে কোন গণতান্ত্রিক মতবাদের প্রতিফলন হবে না। এটা আমাদেরকে কোনভাবে অধিক নিরাপদ করবে না। এর ফলে আমরা পশ্চিমারা মুসলিমদের ঘৃণা করি বলে আইএসের যে অপপ্রচার রয়েছে তাকে আরো উসকে দেয়া হবে।’

প্রসঙ্গত, গত রোববার অরল্যান্ডোর ওই নাইট ক্লাবে এক বন্দুকধারীর হামলায় ৪৯ জন নিহত এবং আরো ৫৩ জন আহত হয়েছেন। পরে পুলিশের গুলিতে একমাত্র হামলাকারী মতিনও নিহত হন। এই ঘটনার পর নানা ধরনের বিতর্কে লিপ্ত হয়েছেন মার্কিন নেতারা। এ ঘটনা থেকে তারা সবাই ফায়দা লুটতে চাইছেন।

এ আর/ ১৪:৪৪/ ১৫জুন 

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে