Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৬-১৪-২০১৬

ভারতে হিন্দুদের উৎখাত করছে মুসলিমরা!

ভারতে হিন্দুদের উৎখাত করছে মুসলিমরা!

দিল্লী,১৪ জুন- শিরোনাম দেখে কি চমকে গেলেন? চমকানোরই কথা সংখ্যাগরিষ্ঠ হিন্দুর দেশে সংখ্যালঘূ হয়ে কিভাবে হিন্দুরের তাড়াতে পারে মুসলমানরা। আমারও প্রশ্ন তাই তবে। এমনি একটি অভিযোগ করেছেন ক্ষমতাসীন বিজেপির এক নেতা। তবে তার বক্তব্যের প্রতিবদও জানিয়েছেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব।

সোমবার সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘বিজেপি অভিযোগ করছে, সমাজবাদী পার্টির সমর্থকরা নাকি হিন্দুদের তাড়িয়ে দিচ্ছে। আর কত মিথ্যা বলবে বিজেপি!’ তিনি বলেন, ‘বিজেপিওয়ালারা কত বেইমান! মিথ্যা কথা বলছে!’

বিজেপি উত্তর প্রদেশে নির্বাচনের আগে কায়রানায় সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিঘ্নিত না করে সার্বিক উন্নয়নের দিকে নজর দিক বলেও মন্তব্য করেন মুখ্যমন্ত্রী অখিলেশ যাদব।

বিজেপি’র দাবির প্রতি পাল্টা চ্যালেঞ্জ জানিয়ে তিনি বলেন, ‘কত বড় লজ্জার কথা! কাইরানার তালিকা নিয়ে আসুন। আপনাদের তালিকায় দেখতে হবে, কে কত বছর আগে চলে গেছে। কেউ ৫ বছর আগে, কেউ ১৪ বছর আগে চলে গেছে, সেজন্য কী আমরা দায়ী?

শামলির অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অনিল কুমার ঝা বলেন, লোকজন ভিন ভিন্ন কারণে চলে গেছে। ভয়ে কেউ পালিয়ে যাননি। তাছাড়া দুই সম্প্রদায়েরই কিছু মানুষ নানা কারণে চলে গেছেন।

শামলির জেলা প্রশাসক সুজিত কুমার বিজেপি নেতার দেয়া নামের তালিকাকে প্রত্যাখ্যান করে বলেন, যে ৩৪৬ জনের তালিকা দেয়া হয়েছে তার মধ্যে ১১৯ জন সম্পর্কে তদন্ত করে দেখা গেছে, তালিকায় থাকা ৪ জনের মৃত্যু হয়েছে ২০ বছর আগে। এছাড়া তালিকায় নাম থাকা ৬৮ জন লোক উন্নত রোজগারের আশায় ১৫ থেকে ২০ বছর আগে কাইরানা থেকে অন্যত্র চলে গেছেন। এসব লোকেরা পানিপথ, কারনাল, সোনিপত, দেরাদুনের মতো শিল্প নগরীতে চলে গেছেন।’

তিনি বলেন, আইনশৃঙ্খলা নিয়ে কোনো সমস্যা নেই। আগামী দুই/তিন দিনের মধ্যে সম্পূর্ণ তালিকা তদন্ত করার কাজ শেষ হবে।

এর আগে বিজেপি সংসদ সদস্য হুকুম সিং সম্প্রতি অভিযোগ করেছেন, কাইরানা শহরে হিন্দুদের ওপর অত্যাচার করা হচ্ছে। ৩৪৬টি হিন্দু পরিবারকে স্থানীয় মুসলিমরা ঘরছাড়া করেছে বলে তিনি দাবি করেন। গত বুধবার সাংবাদিকদের সামনে তিনি দাবি করেন, কাইরানাকে কাশ্মিরে পরিণত করার চক্রান্ত করা হচ্ছে! এরপর থেকে এ নিয়ে রাজনৈতিক মহলে তীব্র চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মানেকা গান্ধী বলেন, এমন সময় আসবে, যে কেউ উত্তর প্রদেশ থেকে পালিয়ে যাবে। যদিও উত্তর প্রদেশ সরকারের কোনো লজ্জা নেই!

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মহেশ শর্মা উত্তর প্রদেশকে কাশ্মিরে পরিণত করার অভিযোগ করে উত্তর প্রদেশ সরকারের পদত্যাগ দাবি করেছেন।

কেন্দ্রীয়মন্ত্রী কিরণ রিজিজুর মন্তব্য, এটা খুব দুর্ভাগ্যজনক যে, দেশে কিছু মানুষকে নিজের গ্রাম ছেড়ে চলে যেতে হয়েছে। এ জন্য রাজ্য সরকারকেই দায় নিতে হবে।

বিজেপি সংসদ সদস্য সাক্ষী মহারাজের দাবি, কাইরানাকে কাশ্মির তৈরি করার চেষ্টা চলছে। সমগ্র উত্তর প্রদেশ জ্বলছে। আইনশৃঙ্খলা নামক কোনো জিনিষ নেই। এই প্রদেশ কাশ্মির হতে চলেছে।

বিজেপি নেতারা কাইরানা থেকে মুসলিমদের হুমকিতে হিন্দুদের পালিয়ে যাওয়ার অভিযোগ করে রাজনৈতিক ময়দান উত্তপ্ত করে ফায়দা তোলার চেষ্টা করছেন। যদিও প্রশাসনিক তদন্তে এবং আলাদাভাবে বিভিন্ন মিডিয়ার তদন্তেও ওই দাবি মিথ্যা প্রমাণিত হতে চলেছে।

এ আর/ ১৫:০২/ ১৪ জুন

দক্ষিণ এশিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে