Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৬-১৩-২০১৬

আম্পায়ারই অসুস্থ হওয়ায় খেলা স্থগিত হয়েছিল

আম্পায়ারই অসুস্থ হওয়ায় খেলা স্থগিত হয়েছিল

ঢাকা, ১৩ জুন- জমে উঠেছে ঘরোয়া ক্রিকেট লিগের সবচেয়ে বড় আসর ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের (ডিপিএল) । এরইমধ্যে প্রথম পর্ব শেষ হয়ে টুর্নামেন্ট গড়িয়েছে সুপার সিক্স রাউন্ডে।

তবে চলমান লিগ শুরু থেকে বিভিন্ন কারণে হয়েছে বিতর্কিত, কলঙ্কিত। সর্বশেষ অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনাটি দেখা গেল গতকাল রবিবার সাভারের বিকেএসপিরতেঐতিহ্যবাহী দল আবাহনী লিমিটেড ও প্রাইম দোলেশ্বর মধ্যকার ম্যাচে।

সুপার লিগের এই ম্যাচে আম্পায়ারদের ঘিরে কিছু অপ্রীতিকর ঘটনার কারণে ম্যাচটি শেষ পর্যন্ত স্থগিত ঘোষণা করেছে ম্যাচ রেফারি।

প্রাইম দোলেশ্বর ইনিংসের ১৫.৪ ওভারে সাকলাইন সজীবের বলে রকিবুল হাসানের বিপক্ষে স্টাম্পিংয়ের একটি জোরালো আবেদন করা হলেও তাতে সাড়া দেননি আম্পায়ার গাজী সোহেল।

এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে আবাহনী অধিনায়ক তামিম ইকবাল এবং তার সতীর্থ খেলোয়াড়েরা আম্পায়ারদের সাথে অশোভন আচরন করেন বলে জানা যায়।

এরপরপরই দুই আম্পায়ার খেলা স্থগিত রেখে মাঠ ছেড়ে বের হয়ে আসেন। অবশ্য ম্যাচ রেফারি মন্টু দত্ত ডিপিএলের নিয়ন্ত্রক সংস্থা ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিসের (সিসিডিএম) কাছে রিপোর্টে লিখেছেন ভিন্ন কথা। রিপোর্টে বলা হয়েছে এই দুই আম্পায়ার অসুস্থ হওয়ার কারণে মাঠ ছেড়ে গিয়েছিলেন।
এদিকে ম্যাচ রেফারির এই রিপোর্টের ওপর ভিত্তি করেই সুপার লীগ পর্বের এই স্থগিত ম্যাচটির ব্যাপারে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন সিসিডিএম-সমন্বয়ক আমিন খান।

সাংবাদিকদের আমিন খান বলেন, ‘ম্যাচ রেফারির রিপোর্ট আমরা দেখেছি। রিপোর্টে উনি লিখেছেন, আম্পায়ার অসুস্থ। ম্যাচ পরিচালনা করার মত অবস্থায় ছিল না। আজকেও তারা পারবেন কিনা, এটা নিয়ে ম্যাচ রেফারি সন্দিহান। এই কারণে উনি জানিয়েছেন যে আজকে খেলা চালানো যাচ্ছে না। সামনে বাকি ম্যাচগুলো সূচি অনুযায়ী হতে থাকবে’।

এই ব্যাপারে তিনি আরো বলেন, ‘মাঠে ঘটনা কি হয়েছে, আমি জানি না। আমি দেখব ম্যাচ রেফারির রিপোর্ট। ম্যাচ রেফারির রিপোর্টে কোনো দলের ব্যাপারে, কোনো ক্রিকেটারের ব্যাপারে বা সমর্থকদের উচ্ছৃঙ্খলতার ব্যাপারে কিছু লেখা ছিল না। স্রেফ লিখেছেন আম্পায়ার অসুস্থ। দুজন আম্পায়ারই অসুস্থ হওয়ায় খেলা স্থগিত করেছেন।”

তবে, আম্পায়ারদের ব্যাপারটা সিসিডিএমের হাতে নেই বলেই জানালেন আমিন খান। এই ব্যাপারে তিনি বললেন, ‘নতুন আম্পায়ার বা ম্যাচ রেফারি তো আমরা নিয়োগ দিতে পারিনা। সেই বাইন্ডিংস আমাদের নেই। আম্পায়ার্স কমিটি বা বোর্ড নেয়। আম্পায়ারদের ব্যাপারে বোর্ড, আম্পায়ার্স কমিটি সিদ্ধান্ত নেবে। সিসিডিএম তো আম্পায়ার পাঠায়নি।’

অবশ্য আমিন খান আম্পায়ারদের মাঠ ছেড়ে আসার ব্যাপারটি খতিয়ে দেখার ইঙ্গিতটা দিয়েই রাখলেন এক সময়। এই বিষয়ে তার বক্তব্য, “আম্পায়ারদের ব্যাপারেও বোর্ড সিদ্ধান্ত নেবে। আমরা জানতে পেরেছি, দুই দল একসময় খেলার জন্য প্রস্তুত ছিল। আম্পায়ারদের অপারগতার কারণেই খেলা হয়নি।”
তিনি আরও বলেন, “এই ম্যাচ আমরা বোর্ডের কাছে রেফার করেছি। বোর্ড সিদ্ধান্ত নেবে। আম্পায়ারদের ব্যাপারেও বোর্ড সিদ্ধান্ত নেবে’।

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে