Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৬-০৮-২০১৬

নারী ইউপি চেয়ারম্যান ১ শতাংশও নয়

নারী ইউপি চেয়ারম্যান ১ শতাংশও নয়

ঢাকা,০৮ জুন - প্রায় চার হাজার ইউনিয়নে নির্বাচনে মাত্র ২৬ জন নারী চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হয়েছেন, এই হার এক শতাংশের কম।

রাজনৈতিক পর্যায়ে নারীর ক্ষমতায়ন নিয়ে অনেক আলোচনার মধ্যে তৃণমূল পর্যায়ে ইউপি ভোটের ছয় পর্ব শেষে ফল বিশ্লেষণ করে এই চিত্র পাওয়া যায়।

এই পর্যন্ত ৩ হাজার ৯২২টি ইউনিয়নের ফল নির্বাচন কমিশন থেকে পাওয়া গেছে।

ইসির নির্বাচন পরিচালনা শাখার একজন কর্মকর্তা মঙ্গলবার বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “আমরা এখন পর্যন্ত ২৬ জন নারী চেয়ারম্যান পদে জয়ের তথ্য পেয়েছি। তিন পার্বত্য জেলার তথ্যসহ আরও পর্যালোচনা করে সঠিক পরিসংখ্যান দিতে পারব।”

ইসির তথ্য বিশ্লেষণে দেখা যায়, ফল ঘোষণা হয়েছে সেই ৩ হাজার ৯২২টি ইউনিয়নের মধ্যে ২৬ জন নারী চেয়ারম্যান, অর্থাৎ শতকরা শূন্য দশমিক ৬৬ শতাংশ নারী চেয়ারম্যান।

এই ইউনিয়নগুলোতে চেয়ারম্যান হতে প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নেমেছিলেন প্রায় ২০০ জন নারী। মোট প্রার্থী ২০ হাজারের মধ্যে নারী প্রার্থীর হার ১ শতাংশ।

চেয়ারম্যান পদে ২০০ জন নারী প্রার্থীর মধ্যে বিজয়ীদের সংখ্যা শতকরা হিসাবে ২৬ ভাগ বিজয়ী হয়েছেন।    

এর আগে ১৯৯৭ সালে চেয়ারম্যান পদে ১০২ জন ও ২০০৩ সালে ২৩৬ জন নারীর প্রতিদ্বন্দ্বিতার তথ্য ইসির প্রতিবেদনে রয়েছে।২০১১ সালেও দুই শতাধিক নারী চেয়ারম্যান পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন।

১৯৯৭ সালে চেয়ারম্যান পদে ২০ জন, ২০০৩ সালে ২২ জন নারী চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

এবার ইউপি ভোটে নারী ভোটারের উপস্থিতি অনেক দেখা গেলেও চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী নারীর সংখ্যা অনেক কম এবার ইউপি ভোটে নারী ভোটারের উপস্থিতি অনেক দেখা গেলেও চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী নারীর সংখ্যা অনেক কম
আগে স্থানীয় পর্যায়ের এই নির্বাচন নির্দলীয়ভাবে হলেও এবারই প্রথম দলীয় প্রতীকে এই ভোট হয়। অর্থাৎ রাজনৈতিক দলগুলো প্রার্থী মনোনয়ন দিয়েছে। তবে এর বাইরে স্বতন্ত্র প্রার্থী হওয়ার সুযোগ ছিল।   

ইউনিয়ন পরিষদগুলোতে সাধারণ ওয়ার্ডে ১৯৯৭ সালে ১১০ জন এবং ২০০৩ সালে ৯১ জন নারী জয়ী হন। এবারের পরিসংখ্যান পাওয়া যায়নি।

ভোটকেন্দ্রে নারীদের উপস্থিতিতে যতটা সন্তুষ্ট, নারীপ্রার্থীদের বিজয়ের হার নিয়ে ততটা নন ইলেকশন ওয়ার্কিং গ্রুপের (ইডব্লিউজি) এর পরিচালক আব্দুল আলীম।

তিনি বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকমকে বলেন, “এবারের ইউপিতে এত অনিয়ম ও সহিংসতার মধ্যেও নারী ভোটার উপস্থিতি ছিল বেশি। নির্বাচনী পরিবেশ নিশ্চিত করতে পারলে অংশগ্রহণের পাশাপাশি জিতে আসা নারীর সংখ্যাও বাড়বে আশা করি।”

বিজয়ী নারী চেয়ারম্যানরা

ইসি কর্মকর্তারা জানান, নির্বাচিত ২৬ জন নারী চেয়ারম্যানের মধ্যে ২১ জনই ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের। জাতীয় পার্টির একজন ও চারজন স্বতন্ত্র প্রার্থী। এর মধ্যে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হন ৫ জন।

আওয়ামী লীগ থেকে নির্বাচিতরা: চট্টগ্রামের সাতকানিয়ার নলুয়া ইউপিতে তাসলিমা আক্তার, ময়মনসিংহের গফরগাঁওয়ের দত্তেরবাজার ইউপিতে রোকসানা বেগম, ভালুকায় মেদুয়ারী ইউপিতে জেসমিন নাহার রানী, হবিগঞ্জের চুনারুঘাটের দেওরগাছা ইউপিতে শামছুন্নাহার, নেত্রকোণার পূর্বধলার জাজিরা ইউপিতে মাজেদা খাতুন, রাজবাড়ীর কালুখালীর রতনদিয়া ইউপিতে মেহেদী হাচিনা পারভীন, শরীয়তপুরে নাড়িয়ায় চরআত্রা ইউপিতে সেলিনা জামান, নাটোরের বড়াইগ্রামের নগর ইউপিতে নীলুফার ইয়াসমিন, নারায়ণগঞ্জের আড়াইহাজারে দুপ্তারা ইউপিতে শাহিদা মোশারফ, নরসিংদীর রায়পুরায় মরজাল ইউপিতে সানজিদা সুলতানা, নেত্রকোণার কলমাকান্দার রংছাতি ইউপিতে তাহেরা খাতুন, সিরাজগঞ্জের বেলকুচির রাজাপুর ইউপিতে ছনিয়া সবুর, কুষ্টিয়ার ভেড়ামারায় বাহিরচর ইউপিতে রওশন আরা বেগম, যশোর সদরের নওয়াপাড়া ইউপিতে নাছরিন সুলতানা, রামনগর ইউপিতে নাজনীন নাহার, ধাপেবাগেরহাটের চিতলমারীর সন্তোষপুর ইউপিতে বিউটি আক্তার, ফকিরহাটে শিরীনা আক্তার, মংলার সেনাইতলা ইউপিতে নাজিনা বেগম নারজিনা, ঝালকাঠির নলছিটির সিন্ধকাঠি ইউপিতে জেসমিন আক্তার বিনা, বাগেরহাটের কচুয়ার রাড়ীপাড়া ইউপিতে তাছলিমা বেগম, মুন্সীগঞ্জের সিরাজদীখানের মালখানগর ইউপিতে সানজিদা আক্তার।

রংপুর সদরের মমিনপুর ইউপিতে জাতীয় পার্টির সুলতানা আখতার চেয়ারম্যান পদে জয়ী হয়েছেন।

স্বতন্ত্র প্রার্থীদের মধ্যে ঢাকার ধামরাইয়ের চৌহাট ইউপিতে পারভীন হাসান প্রীতি, মুন্সীগঞ্জ সদরের মোল্লারকান্দি ইউপিতে মহসীনা হক, মৌলভীবাজারের কুলাউড়ার কুলাউড়া ইউপিতে নার্গিস আক্তার বুবলি, ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নবীনগরের পূর্ব নবীনগর ইউপিতে মৌসুমী আক্তার জয়ী হন।

এ আর/১৬:৪৫/০৮ জুন

 

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে