Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৬-০৭-২০১৬

ভারতের বন্দরে এ বার মার্কিন নৌবহর? চিন উৎকণ্ঠার প্রহর গুনছে

ভারতের বন্দরে এ বার মার্কিন নৌবহর? চিন উৎকণ্ঠার প্রহর গুনছে

দিল্লী, ০৭ জুন- ভারতীয় বন্দরে এ বার কি মার্কিন নৌবহর? আমেরিকার নৌসেনার একের পর এক যুদ্ধজাহাজ এ বার নোঙর করবে ভারতের উপকূলে?

তেমনই সম্ভবনা তৈরি হয়েছে। মোদী-ওবামা সপ্তম বৈঠকের আগে দু’দেশের প্রতিরক্ষা মন্ত্রকেই জল্পনা, আমেরিকার দীর্ঘ দিনের অনুরোধ মেনে নিতে চলেছে ভারত। আন্তর্জাতিক জলপথে টহলদারিতে নিযুক্ত মার্কিন যুদ্ধজাহাজগুলিকে ভারতের বন্দরে নোঙর করে মেরামতি এবং জ্বালানি ভরার অনুমতি দিতে পারে নয়াদিল্লি। একই সঙ্গে বারত মহাসাগর থেকে প্রশান্ত মহাসাগর পর্যন্ত বিস্তৃত বিশাল জলভাগে মার্কিন এবং ভারতীয় নৌসেনা পরস্পরের সবচেয়ে বড় বন্ধু হয়ে উঠতে পারে।

বন্ধুত্বের হাত আমেরিকা আগেই বাড়িয়েছে। মার্কিন নৌসেনার প্যাসিফিক কম্যান্ডের প্রধান অ্যাডমিরাল হ্যারি বি হ্যারিস জুনিয়র সাম্প্রতিক এক দিল্লি সফরে নিজের উচ্ছ্বাস চেপে রাখতে পারেননি। তিনি বলেছিলেন, ‘‘সেই দিন আর মোটেই খুব বেশি দূরে নয়, যখন ভারত আর আমেরিকার যুদ্ধজাহাজগুলি একসঙ্গে দাপিয়ে বেড়াবে ভারত মহাসাগর থেকে প্রশান্ত মহাসাগর পর্যন্ত বিশাল এলাকায়। সে এক খুব স্বাভাবিক এবং প্রত্যাশিত দৃশ্য হয়ে উঠবে।’’ ভারত আর আমেরিকার নৌসেনা এক সঙ্গে কাজ করলে যা যা হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে, তা কল্পনা করে তিনি ‘আনন্দে উন্মাদ’ (চন্দ্রাহত) হয়ে যাচ্ছেন বলেও মন্তব্য করেছিলেন অ্যাডমিরাল হ্যারিস।

হ্যারিস যখন এই মন্তব্য করেছিলেন, ভারত সরকার তখনও সে বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি। চিনের দাপট রুখতে ভারতকে অনেক দিন ধরেই নিজেদের পাশে চাইছে আমেরিকা। ভারতীয় বন্দরে মার্কিন যুদ্ধজাহাজের অবাধ যাতায়াত, মেরামতি এবং জ্বালানি ভরার অনুমতিও চাইছে তারা। কিন্তু ভারত দীর্ঘ দিন ধরেই নিজেদের বন্দরে মার্কিন যুদ্ধজাহাজের অবাধ যাতায়াতের প্রস্তাব নাকচ করে আসছে। আমেরিকার সঙ্গে যৌথ টহলদারিতেও রাজি হচ্ছে না। দক্ষিণ চিন সাগরে চিনা আগ্রাসন যে রোখা উচিত, তা নিয়ে আমেরিকার সঙ্গে ভারত সহমত। সেই কারণে দক্ষিণ চিন সাগরে ভারতীয় নৌসেনা চারটি যুদ্ধজাহাজও মোতায়েন করে দিয়েছে। কিন্তু আমেরিকার সঙ্গে যৌথ টহলদারি এখনও শুরু করেনি ভারত। মোদীর এই আমেরিকা সফরে এই বিষয়ে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি হতে পারে বলে শোনা যাচ্ছে।

এ আর/ ১১:/৩৪ জুন

দক্ষিণ এশিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে