Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৬-০৫-২০১৬

দাড়ি রাখার অপরাধে চাকরি খুইয়ে আদালতে মাক্তুমহোসেন

দাড়ি রাখার অপরাধে চাকরি খুইয়ে আদালতে মাক্তুমহোসেন

নয়াদিল্লি,০৫ জুন- সেনাবিহিনীতে থাকতে গেলে থাকতে হবে একদম ‘ক্লিন শেভ’। দাড়ি রাখা চলবে না। আবার ইসলাম ধর্ম অনুসারে দাড়ি কাটা হারাম। এই দুই ভিন্ন নিয়মের গেরোয় চাকরি খুইয়ে এখন আদালতের দরজায় দরজায় ঘুরছেন মুসলিম জওয়ান মাক্তুমহোসেন।

বছর ৩৪-এর জওয়ান মাক্তুমহোসেন কর্ণাটকের বাসিন্দা। সেনাবাহিনীতে শিখ ধর্মাবলম্বী ছাড়া আর কোনও ধর্মের লোকেদের দাড়ি রাখার অধিকার নেই। কিন্তু ইসলাম ধর্ম মেনে দাড়ি রাখার অপরাধে চাকরি থেকে সরিয়ে দেওয়া হয় মাক্তুমহোসেনকে। ২০০১ সালে ধর্মীয় কারণে দাড়ি রাখার জন্য কমান্ডিং অফিসারের কাছে আবেদন করেছিলেন মাক্তুমহোসেন। সেই আবেদনে কর্ণপাত করেননি কমান্ডিং অফিসার। উলটে চাকরি থেকেই বসিয়ে দেওয়া হয়েছিল ওই জওয়ানকে। কোচির আর্মড ফোর্স আদালতও মাক্তুমহোসেনের দাড়ি রাখার বিরুদ্ধেই রায় দিয়েছিল। এরপর কর্ণাটক হাই কোর্টের শরণাপন্ন হয়েছিলেন মাক্তুমহোসেন। সেখানেও আদালত তাঁর বিপক্ষেই রায় শুনিয়েছিল। তারপর তাঁকে পুনেতে অবস্থিত সেনাবাহিনীর হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। সেখানেও একই সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় জওয়ান মাক্তুমহোসেনকে। সেনাবাহিনীর নিয়ম অমান্য করে দাড়ি রাখার অপরাধে তাঁকে ১৪ দিনের জন্য সাসপেন্ড করা হয়।

কোনোদিকেই কোনও সুরাহা না হওয়ায় এবার সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থ হওয়ার পরিকল্পনা করেছেন ওই মুসলিম জওয়ান। যদিও দেশের সর্বোচ্চ আদালত সেনাবাহিনীর নিয়ম অগ্রাহ্য করে তাঁর পক্ষে রায় দেবে কিনা সেদিকেই তাকিয়ে  মাক্তুমহোসেন।

এ আর/ ১৪:০২/০৫ জুন

দক্ষিণ এশিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে