Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print

আপডেট : ০৬-০৫-২০১৬

স্বপ্নপূরণের পথে ৯৭ নারী

নেহাল হাসনাইন


স্বপ্নপূরণের পথে ৯৭ নারী

চট্টগ্রাম, ০৫ জুন- পুরুষের পাশাপাশি এবার থেকে বাংলাদেশের সীমান্ত পাহারা দেবে নারীরাও। সীমান্ত পাহারার পাশাপাশি নারী ও শিশু পাচার এবং চোরাচালান বন্ধেও নারী সদস্যরা বিশেষ ভূমিকা রাখবে বলেই আশা। তাই দেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর ২৩২ বছরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো সৈনিক পদে ৯৭ জন নারীকে নিয়োগ দেয়া হচ্ছে। পার্সিং আউটের মাধ্যমে ওই নারীদের সেই স্বপ্নপূরণ হতে যাচ্ছে।

রোববার সকালে চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) প্রশিক্ষণ ক্যাম্পে পার্সিং আউট অনুষ্ঠিত হবে। এ উপলক্ষে শনিবার সকালেই প্রশিক্ষণ ক্যাম্পে উপস্থিত হন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আছাদু্জ্জামান খাঁন কামাল ও বিজিবির মহাপরিচালক (ডিজি) মেজর জেনারেল আজিজ আহমেদ।

এদিকে ৯৭ নারী সদস্যর পার্সিং আউট উপলক্ষে বর্ণিল আলোকসজ্জায় সেজেছে বিজিবির পুরো ক্যাম্প। ভবন থেকে শুরু করে প্রতিটি গাছেও রয়েছে আলোকছটা। রাত জেগে তৈরি করা হচ্ছে পার্সিং আউট উপভোগের প্যান্ডেল।

শনিবার রাতে বিজিবির প্রশিক্ষণ ক্যাম্পে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও বিজিবির ডিজির উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত হয় মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এতে বিজিবির ৮৮তম রিক্রুট ব্যাচের সদস্যরা অংশ নেয়।

বিজিবি সূত্রে জানা যায়, এদিন ৮৮তম রিক্রুট ব্যাচের ১ হাজার ১৪৪ নবীন সৈনিকের কুচকাওয়াজ পরিদর্শন ও অভিবাধন গ্রহণ করবেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। এসময় এই ব্যাচের সৈনিকদের মধ্য থেকে বিষয়ভিত্তিক প্রথম স্থান অর্জনকারী ও সর্ববিষয়ে শ্রেষ্ঠ নবীন সৈনিকের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হবে।

সংশ্লিষ্ঠ সূত্র আরো জানায়, নানা পেশায় পুরুষের পাশাপাশি নারীর অংশগ্রহণ ও সমঅধিকার প্রতিষ্ঠা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে বিজিবিতে ২০১৫ সালে প্রথমবারের মতো নারী সৈনিক নিয়োগ দেয়া হয়। চট্টগ্রামে মৌলিক প্রশিক্ষণ শেষে রোববার নারী সৈনিকদের প্রথম ব্যাচটি বিজিবির কর্মকাণ্ডে সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করবে। এ বছর আরো ১০০ নারী সদস্য নিয়োগ দেয়া হয়েছে। যাদের মৌলিক প্রশিক্ষণ জুলাই মাসেই শুরু হবে।
 
সম্প্রতি এক সংবাদ সম্মেলনে বিজিবির ডিজি মেজর জেনারেল আজিজ আহমেদ বলেন, যোগদানের পরপরই তাদেরকে টেকনাফ ও বেনাপোলের মতো যেসব এলাকায় নারী পাচারকারীদের আনাগোনা সেখানে পোস্টিং দেয়া হবে। এছাড়াও বিজিবির গেটগুলোতেও নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবে নারীরা।

তাছাড়া মাদক চোরাচালানের জন্য বেশিরভাগই নারীদের ব্যবহার করা হয়ে থাকে। ফলে নারীদের দেহ তল্লাশির ক্ষেত্রে নানা জটিলতায় পড়তে হয় বিজিবির পুরুষ সদস্যদের। এক্ষেত্রে নারী সদস্যরা বিশেষ ভূমিকা রাখবে। 

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে