Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৬-০৪-২০১৬

দেরীতে আসা লাগেজের হোম ডেলিভারি চালু হচ্ছে!

দেরীতে আসা লাগেজের হোম ডেলিভারি চালু হচ্ছে!

ঢাকা, ০৪ জুন-  উন্নত দেশের বিমানবন্দরে লাগেজ পেতে তেমন বেগ পেতে হয় না যাত্রীদের। যদি সঠিক সময়ে লাগেজ না পাওয়া যায় তবুও নিশ্চিন্তে বাসায় চলে যাওয়া যায়। কারণ দেরীতে আসা লাগেজ কর্তৃপক্ষ নিজ দায়িত্বে যাত্রীর বাসায় পৌঁছে দেয় অনেক জায়গাতেই। আর যাত্রী যদি হোটেলে থাকে তবে লাগেজ হোটেলেই পৌঁছে যায়। কিন্তু এমন সেবার কথা বাংলাদেশে কেউ কল্পনাও করতে পারেন না। কিন্তু শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সেই সেবাই চালু করার চেষ্টা করছেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ ইউসূফ এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শরীফ মো: ফরহাদ হোসাইন। তারা বলছেন, এখানে এমন অনেক যাত্রীই আছেন যারা ঠিক সময়ে লাগেজ না পেয়ে হয়রানির শিকার হন এবং অনেক সময় যাত্রীরা সেই লাগেজের আশাও ছেড়ে দেন। প্রবাস কথা’র সাথে এ প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শরী মো: ফরহাদ হোসাইন বলেন,

‘উদ্যোগ নিয়েছি, এখন দেখা যাক কি হয়! এ বিষয়ে এরই মধ্যে এয়ারলাইন্স অপারেটিং কমিটির (এওসি) সাথে মিটিং হয়েছে। আমরা চাই আমাদের সার্ভিস বৃদ্ধি পাক। আমাদের বিমানবন্দর আন্তর্জাতিক যোগাযোগের প্রথম এবং প্রধান রুট। আসলেই আমরা চাই বিমানবন্দরের চেহারা পাল্টে দিতে। এয়ারলাইন্স স্টেশন ম্যানেজারদের সাথে কথা হয়েছে এবং হচ্ছে। তাদের কাছে যত লাগেজ রয়েছে তার তালিকা দিতে বলেছি এবং যাত্রীদের মোবাইল নম্বরে কল করতে বলেছি। যাত্রীরা এসে তাদের লাগেজ নিয়ে যাবেন। এভাবে প্রত্যেক সপ্তাহে আশা করি লাগেজের সংখ্যা কমতে থাকবে। আবার যারা হয়রানির শিকার হয়ে লাগেজের আশা ছেড়ে দিয়েছেন বা মিসিং লাগেজ পাওয়া গেছে বা লাগেজ বিমানবন্দরে পরে এসেছে তাদের হোম ডেলিভারির মাধ্যমে পৌঁছে দেয়া হবে।’

তবে এই প্রক্রিয়া চালু করতে গেলে কিছু নিয়ম-কানুন নির্ধারণ করা এবং ব্যাপারটিকে একটা শৃঙ্খলার মধ্যে আনতে হবে। বেশ কিছু বিষয়ও বিবেচনায় নিতে হবে। লাগেজের হোম ডেলিভারি সেবা চালু করার ব্যাপারে বিবেচ্য বিষয়গুলোও উঠে আসলো নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শরীফ মোঃ ফরহাদ হোসেনের কথায়।

‘যে লাগেজগুলোতে ট্যাক্সেবল কিছু থাকবে না, সেগুলো অনায়েসে কাস্টমস পার করা যাবে। আর যে লাগেজ স্ক্যানিং করার পরে দেখা যাবে ঐ লাগেজে ট্যাক্সেবল কোন পণ্য আছে সেক্ষেত্রে যে এয়ারলাইন্সে যাত্রী এসেছে তারা কাস্টমসকে ট্যাক্স প্রদান করবে এবং যাত্রীর কাছে লাগেজ পৌঁছে দেয়ার সময় ট্যাক্সে টাকা নিয়ে নেবে।’

শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কর্মরত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটরা আশা করছেন, এই উদ্যোগ বাস্তবায়িন হলে লাগেজ নিয়ে যাত্রীদের দীর্ঘদিনের অভিযোগের সমাপ্তি ঘটবে।

এ আর/ ১৯:৩০/০৪  জুন

জাতীয়

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে