Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৬-০৩-২০১৬

আবারো ডিগবাজি খেলেন সিলেটের আতিক

পিংকু ধর


আবারো ডিগবাজি খেলেন সিলেটের আতিক

সিলেট, ০৩ জুন- আতিকুর রহমান আতিক। সিলেটের রাজনৈতিক অঙ্গনের পরিচিত নাম। বর্তমান সময়ের রাজনৈতিক উত্তাপে রাজনীতির মাঠের অন্যান্য তারকা খেলোয়াড়দের কারণে জাতীয় পার্টির এই নেতাকে যেনো বসে থাকতে হয়েছিল রাজনীতির মাঠের সাইড লাইনে। জাতীয় পার্টির সদ্য কাউন্সিল এই আতিককে আবারো নিয়ে এসেছে আলোচনায়। তার স্বভাবসূলভ আচরণ ‘ডিগবাজী’-ই তাকে করছে আলোচিত-সমালোচিত। 

বারবার ‘ডিগবাজী’ দেওয়া আতিকুর রহমান আতিক আবারো ডিগবাজী দিলেন। চলতি বছরের এপ্রিল মাসে প্রয়াত কাজী জাফর আহমদের জাতীয় পার্টি ছেড়ে দিয়েছিলেন তিনি। ফিরেন এরশাদের নেতৃত্বাধীন জাতীয় পার্টিতে।

জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্যদের নাম ঘোষণা করা হয়েছে বৃহস্পতিবার (২ জুন)। পার্টির সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম প্রেসিডিয়ামে পুণরায় ‘প্রেসিডিয়াম মেম্বার’ হিসেবে নির্বাচিত করা হয়েছে দলের আতিকুর রহমান আতিককে। জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ফের তাঁকে এই দায়িত্ব প্রদান করেছেন।

এর আগে তিনি ২০০৮ সালে জাতীয় পার্টি থেকে সিলেট-৩ আসনে নির্বাচনে হেরে যান। দায়িত্ব পালন করেন জাতীয় পার্টির সিলেট বিভাগীয় সমন্বয়কারী ও হবিগঞ্জ জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি হিসেবে।

দ্বিতীয় বারের মতো প্রেসিডিয়াম সদস্য নির্বাচিত হওয়া আতিকুর রহমান আতিকের মূল রাজনীতি শুরু হয়েছিল আওয়ামী লীগের রাজনীতির মাধ্যমে। তিনি কৃষকলীগের নেতা ছিলেন। কৃষকলীগের নেতা হিসেবে ১৯৯১ সালের জাতীয় সংসদ নির্বাচনে সিলেট-৩ আসন থেকে নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন আতিক। ওই নির্বাচনে তিনি হেরে যান জাতীয় পার্টির প্রার্থী আব্দুল মুকিত খানের কাছে। পরে আতিকুর রহমান আতিক যোগ দেন জাতীয় পার্টিতে। পরের বার নবম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ওই আসন থেকে কৃষকলীগ থেকে দলছুট নেতা আতিক নতুন পরিচয় জাতীয় পার্টির আতিক হয়ে নির্বাচনে অংশ গ্রহণ। ওই নির্বাচনেও তিনি হেরে যান আওয়ামী লীগ প্রার্থী মাহমুদ-উস সামাদ কয়েসের কাছে। 

নির্বাচনে ভরাডুবি ঘটায় তিনি সিলেট থেকে নিজেকে গুটিয়ে নিয়ে হবিগঞ্জে সক্রিয় হন। প্রভাব খাটিয়ে তিনি হবিগঞ্জ জেলা জাতীয় পার্টির সভাপতি নির্বাচিত হন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত হবিগঞ্জ-৩ আসন (সদর-লাখাই) থেকে নির্বাচন করেও তিনি বিজয়ী হতে পারেননি। 

ওই নির্বাচনের পর এরশাদের ওপর নাখোশ হয়ে প্রিয় অভিবকের সঙ্গ ছাড়তেও কুণ্ঠাবোধ করেননি আতিকুর রহমান। ২০১৪ সালের ৫ এপ্রিল যোগ দেন ১৯ দলীয় জোটের শরীক দল জাতীয় পার্টি কাজী জাফরের দলে। পরে ২০১৬ সালের এপ্রিল মাসে প্রয়াত কাজী জাফর আহমদের জাতীয় পার্টি ছেড়ে ফিরেছেন আবার এরশাদের দুয়ারে। দলছুট এই নেতা এরশাদকে নিয়ে অতীতে নানামুখী মন্তব্য করলেও এরশাদ কোন ক্ষোভ না রেখে বৃহস্পতিবার প্রকাশ করা প্রেসিডিয়াম সদস্যের নামের তালিকাতে রেখেছেন আতিকুর রহমান আতিককে।

সিলেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে