Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 0/5 (0 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৬-০১-২০১৬

এবার হিন্দুদের ১০ সন্তান জন্ম দেয়ার আহবান

এবার হিন্দুদের ১০ সন্তান জন্ম দেয়ার আহবান

লখনউ, ০১ জুন- ভারতের কাশী সুমেরপীঠের শঙ্করাচার্য নরেন্দ্রানন্দ সরস্বতী হিন্দুদের বেশি সন্তান জন্ম দেয়ার পক্ষে সাফাই গেয়েছেন। তিনি হিন্দুদের উদ্দেশ্যে কমপক্ষে ১০ সন্তানের জন্ম দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন। উত্তর প্রদেশের গোন্ডাতে এক ধর্মীয় সভায় তিনি ওই আহ্বান জানান।

মঙ্গলবার গণমাধ্যমে প্রকাশ, ওই শঙ্করাচার্য বিতর্কিত মন্তব্য করে বলেছেন, ‘যেখানে যেখানে হিন্দুদের সংখ্যা কমে গেছে সেখানে সন্ত্রাসবাদ বেড়েছে। এজন্য যারা পরিবার পরিকল্পনার কথা বলে তারা নির্বোধ। আজকের দিনে পরিবার নিয়ন্ত্রণের কথা ভাবাই উচিত নয়। বরং বেশি বেশি করে সন্তান জন্ম দেয়ার সামর্থ রাখতে হবে।’

তার দাবি, হিন্দুদের অকপটে সন্তান জন্ম দিতে হবে যাতে হিন্দু ধর্মের প্রসার ঘটানো যায়। তিনি বলেন, যদি দশরথ পরিবার নিয়ন্ত্রণ করতেন তাহলে ভরতের মতো ভাই কি করে পাওয়া যেত?

ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারে বিজেপি ক্ষমতায় আসার পর থেকে সন্তান জন্ম দেয়া সংক্রান্ত বিবৃতি দেয়ার প্রবণতা তৈরি হয়েছে। কখনো আরএসএস তো কখনো বিশ্ব হিন্দু পরিষদ, অথবা বিজেপি’র পক্ষ থেকে এ সংক্রান্ত বিবৃতি প্রকাশ্যে এসেছে। শঙ্করাচার্য নরেন্দ্রানন্দ সরস্বতী অবশ্য কোনো রাখঢাক না করে হিন্দুদের ১০ সন্তানের জন্ম দেয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

এর আগে বিজেপি সংসদ সদস্য সাক্ষী মহারাজ হিন্দু ধর্ম রক্ষা করার নামে হিন্দু মহিলাদের ৪ সন্তানের জন্ম দেয়ার পরামর্শ দিয়েছিলেন। বিশ্ব হিন্দু পরিষদ নেত্রী সাধ্বী প্রাচিও ৪ সন্তানের পক্ষে সাফাই দেন। যদিও পশ্চিমবঙ্গের বীরভূমের বিজেপি নেতা সমীর গোস্বামী দাবি করেন ৪ টি নয় ৫ সন্তানের জন্ম দিতে হবে। যদিও এদের সবাইকে ছাপিয়ে গেছেন শঙ্করাচার্য নরেন্দ্রানন্দ সরস্বতী।

এর আগে গত সোমবার তুর্কি প্রেসিডেন্টে রেসোপ তায়েব এরদোগান মুসলমানদের উদ্দেশ্যে ওই একই ঘোষণা দিয়েছিলেন। তুর্কি টেলিভিশনে সরাসরি সম্প্রচারিত এক ভাষণে প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান বলেছিলেন, কোনো মুসলিম পরিবারেরই জন্ম নিয়ন্ত্রণের কথা বিবেচনা করা উচিৎ নয়। তাদের উচিত আরো বেশি করে বংশবৃদ্ধি করা।

প্রেসিডেন্ট এরদোয়ান এর আগেও জন্মনিয়ন্ত্রণকে রাষ্ট্রদ্রোহিতার সমতুল্য বলে অভিহিত করেছিলেন। তখন তুরস্কের নারী অধিকার সংগঠনগুলো এর সমালোচনা করেছিল। এরদোয়ান সে সময় নারী-পুরুষের সাম্যের ধারণাকেও উড়িয়ে দিয়েছিলেন।

সোমাবার এরদোয়ান তার ভাষণে বলেন, ‘আল্লাহর সিদ্ধান্তে কেউ হস্তক্ষেপ করতে পারে না। এ বিষয়ে প্রথম দায়িত্বটা থাকে মায়ের।’

আর/১০:১৪/০১ জুন

দক্ষিণ এশিয়া

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে