Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 2.3/5 (9 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৫-৩০-২০১৬

কোনো প্রেম নেই, পায়রায় নেশা মুস্তাফিজের

কোনো প্রেম নেই, পায়রায় নেশা মুস্তাফিজের

প্রথমবারের মতো আইপিএল খেলতে যান বাংলাদেশের গর্ব ও বিস্ময়কর পেসার মুস্তাফিজুর রহমান। একেবারে দলকে চ্যাম্পিয়ান করে জিতে নিয়েছেন সেরা উদীয়মান ক্রিকেটারের মুকুট। মুস্তাফিজুর যেন এলেন, দেখলেন এবং জয় করে নিলেন। সানরাইজার্স হায়দরাবাদের চ্যাম্পিয়ান হওয়ার পিছনে মুস্তাফিজুরেরই বড় অবদান। 

শুরু থেকেই হায়দরাবাদের প্রতি ম্যাচেই মুস্তাফিজ ছিলেন তুরুপের তাস। দেখিয়েছেন তার নৈপূণ্য। তবে টানা ১৫ ম্যাচ খেলার পর দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচে ছিলেন না মুস্তাফিজ। ইনজুরির কারণে ছিলেন মাঠের বাইরে। তবে দল জিতে উঠে এসেছিল ফাইনালে। 

ফাইনালে মুস্তাফিজ খেলতে পারবেন কি না, তা নিয়ে ছিল সংশয়। তবে সব শঙ্কা উড়িয়ে দিয়ে মাঠে নামেন মুস্তাফিজ। প্রথম দুই ওভারে রান দিয়েছেন মাত্র ১৬। শেষের দুই ওভারে অবশ্য রান বেশী গেছে। দিয়েছেন ২১। তবে এর মধ্যে তৃতীয় ওভারে ফিরিয়েছেন ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠার আগেই শেন ওয়াটসনকে। যা শিরোপা জয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে। সব মিলিয়ে ১৬ ম্যাচে ১৭ উইকেট নিয়ে আইপিএল মিশন শেষ করলেন মুস্তাফিজ। অবস্থানগত দিক দিয়ে আছেন পঞ্চম স্থানে। সর্বোচ্চ ২৩ উইকেট মুস্তাফিজেরই সতীর্থ ভুবনেশ্বর কুমারের। ২১ উইকেট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে বেঙ্গালুরুর চাহাল। ২০ উইকেট নিয়ে তৃতীয় স্থানে বেঙ্গালুরুর ওয়াটসন। ১৮ উইকেট নিয়ে চতুর্থ অবস্থানে গুজরাটর কুলাকার্নির।

তবে একটি জায়গায় সবার উপরেই রয়েছেন মুস্তাফিজ। আর তা হলো বোলিংয়ে ইকোনমি রেট। পুরো টুর্নামেন্টে মুস্তাফিজ বল করেছেন ৬১ ওভার। মোট রান দিয়েছেন ৪২১। ইকোনমি রেট সবচেয়ে ভালো, ৬.৯০। গোটা টুর্নামেন্টে তুখোর বোলিংয়ের কারণে একবার ম্যাচ সেরার পুরস্কারও জিতেছেন মুস্তাফিজ। 

আইপিএলের অফিশিয়াল ওয়েবসাইটে সেরা উদীয়মান খেলোয়াড় হিসেবে মুস্তাফিজুর ৮৩.২ শতাংশ ভোট পেয়েছেন। বাংলাদেশের বাঁ হাতি এই বোলারের নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী লোকেশ রাহুলের পক্ষে ভোট পড়েছে মাত্র ৬.৫ শতাংশ।

তারচেয়ে বড় বিষয় হচ্ছে- মুস্তাফিজুর খুবই লাজুক প্রকৃতির ছেলে। সাতক্ষীরার ছেলে একেবারে গ্রামে ক্রিকেট খেলতে খেলতেই পাদপ্রদীপের আলোয় চলে এসেছেন। নামকরা সব ব্যাটসম্যানদের রাতের ঘুম কেড়ে নেয়া মুস্তাফিজের জীবনে নেই কোনো প্রেম। তবে তিনি বাড়িতে পায়রা পোষেণ। যেখানেই থাকেন বাবা-মাকে ফোন দিয়ে আগে প্রিয় পায়রাগুলোর খোঁজ-খবর রাখেন। পায়রা পোষাই তার শখ। এখনো পর্যন্ত তার জীবনে প্রেম আসেনি বলেই শোনা যায়। ক্রিকেটই তার প্রথম প্রেম। ক্রিকেটকেই আঁকড়ে ধরে বেঁচে রয়েছেন মুস্তাফিজুর।

এফ/২৩:০৫/৩০মে

ক্রিকেট

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে