Deshe Bideshe

DESHEBIDESHE

Login
ইউনিজয়
ফনেটিক
English

গড় রেটিং: 3.0/5 (10 টি ভোট গৃহিত হয়েছে)

print
আপডেট : ০৫-২৮-২০১৬

রোজ অন্তত ৩০ মিনিট দৌড়াবেন যেসব কারণে

আফসানা সুমী


রোজ অন্তত ৩০ মিনিট দৌড়াবেন যেসব কারণে

প্রাচীন গ্রীসে একটি কথা প্রচলিত আছে। 'আপনি যদি শক্তিশালী হতে চান- দৌড়ান, আপনি যদি সুন্দর হতে চান- দৌড়ান, আপনি যদি স্মার্ট হতে চান- দৌড়ান'। আর আজকের বিজ্ঞান বলে, তারা সঠিকই ছিলেন।

হ্যাঁ, দৌড়ালেই আপনার সব সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে না। কিন্তু প্রতিদিন নিয়ম করে দৌড়ানো যদি আপনার অভ্যাসে পরিণত হয় তাহলে এই অভ্যাসটির অনেক সুফল আপনি নিশ্চিত পাবেন। দৌড়ানো স্বাস্থ্যের জন্য খুবই ভাল এবং বিনামূল্যে ফিট থাকার একমাত্র উপায়। আসুন জেনে নিই দোড়ানোর কিছু স্বাস্থ্যসুবিধা।

১। হার্ট ভাল রাখে
প্রতিদিন নিয়মিত দৌড়ালে ভাল থাকবে আপনার হার্ট। এর ফলে শরীরে ক্যাপিলারির সংখ্যা বাড়ে এবং একই সাথে রক্তের লোহিত কণিকা বাড়ে। মাসলের মতোই শক্তিশালী হয় হার্ট।

২। মাসলের ক্ষমতা বাড়ে
আমাদের মাসলের যে অক্সিজেন ব্যবহারের ক্ষমতা তা বৃদ্ধি পায়। দৌড়ালে হৃদযন্ত্রের গতি বাড়ে, রক্তের প্রবাহ বাড়ে এবং অক্সিজেনের প্রয়োজনও বাড়ে। প্রথমে যখন মাত্র নতুন দৌড় শুরু করবেন তখন অল্পতেই হাঁপিয়ে যাবেন। কারণ শরীর হৃৎপিন্ডের গতির সাথে তাল মেলাতে পারে না। কিন্তু ধীরে ধীরে মাসলের ক্ষমতা বাড়ে এবং শরীর আরও রক্ত গ্রহণ করে, অক্সিজেন আর পুষ্টিতে পরিপূর্ণ হয়।

৩। স্ট্রেস দূর করে
আপনি হয়ত অবাক হবেন যে, দৌড় আপনার স্ট্রেস কমানোর জন্যেও কাজে দেবে। সারাদিন কাজের চাপে বাড়ে স্ট্রেস, তৈরি হয় অবসাদ। এর থেকে মুক্তির জন্য নিয়মিত দৌড়ানো এবং ঘাম ঝরানো খুবই কার্যকর একটি উপায়।

৪। হ্যাপিনেস হরমোন নিঃসরণ করে
আপনি যখন এক্সারসাইজ করেন আপনার শরীর একটি বিশেষ হরমোন নিঃসরণ করে, যার নাম এনডরফিন। একে হ্যাপি হরমোনও বলা হয়। এর কারণ হল, আমাদের শরীর যখন এই হরমোন নিঃসরণ করতে থাকে আপনা আপনি আমাদের ভাল লাগতে থাকে এবং হতাশা দূর হয়ে যায়!

৫। মানসিক দক্ষতা বাড়ে
আপনি যখন নিয়মিত জগিং করেন, দৌড়ান আপনার মস্তিষ্ক তখন আরও দক্ষভাবে কাজ করার ক্ষমতা অর্জন করতে থাকে। ব্যায়ামের সময় আমরা অধিক অক্সিজেন গ্রহণ করি। এই অক্সিজেন মস্তিষ্কের নার্ভাস সিস্টেমকে সুস্থ রাখে এবং আমাদের ব্রেইনকে আরও কৌশলী হতে, অধিক কাজ করতে সাহায্য করে।

৬। ইমিউন সিস্টেম ভাল রাখে
নিয়মিত দৌড়ানো রক্তের লোহিত কণিকা এবং হিমোগ্লোবিন বাড়ায়। একই সাথে এটি রক্তের কোলেস্টেরল কমায়, ক্ষুধা কমায় এবং অন্ত্রের ক্রিয়া স্বাভাবিক রাখতে সহায়তা করে। মেটাবলিজম সিস্টেমের উন্নতি হয় আর এভাবে ভাল থাকে আপনার পুরো শরীর। ভাল থাকেন আপনি।

৭। হাড়ের জন্য ভাল
নিয়মিত যারা দৌড়ান তাদের হাড় আরও মজবুত হয়। এই চমৎকার অভ্যাসটি আপনাকে হাড়ের জয়েন্টের নানান রোগ থেকে মুক্তি দেয়।

৮। লিভার ভাল রাখে
গবেষণায় দেখা গেছে নিয়মিত দৌড়ানো লিভারের জন্য ভাল। এতে লিভারের কোষগুলোর পার্শিয়াল রিজেনারেশন ঘটে।

৯। সময়ের বাধ্যবাধকতা নেই
কখন দৌড়ানো ভাল, সকালে নাকি বিকেলে? দৌড়ানোর জন্য এমন কোন বাধা-ধরা সময় নেই। আপনি যে কোন সময় আপনার পছন্দমত দৌড়ের অভ্যাস করতে পারেন। সকালে শরীরের হরমোন লেভেল একটু বেশী থাকে। তখন দৌড়ানো আপনার শরীরকে স্বাভাবিক অবস্থায় দ্রুত ফিরিয়ে আনতে সাহায্য করে। আবার সন্ধ্যায় দৌড়ানো দূর করে দেবে আপনার সারাদিনের স্ট্রেস, করে তুলবে ঝরঝরে।

লিখেছেন- আফসানা সুমী

এফ/২২:৪২/২৮মে

শরীর চর্চা

আরও সংবাদ

Bangla Newspaper, Bengali News Paper, Bangla News, Bangladesh News, Latest News of Bangladesh, All Bangla News, Bangladesh News 24, Bangladesh Online Newspaper
উপরে